BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ট্যাটু দেখে চিনতে পারবেন নিজেদের প্রিয় সাত ফুটবলারকে?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 10, 2018 6:33 pm|    Updated: June 10, 2018 6:33 pm

Can you identify these players from their tattoo?

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাকি আর মোটে তিনদিন৷ তারপরই শুরু মাঠের মহারণ৷ যে জ্বরে শুধু রাশিয়াই নয়, ভুগছে গোটা বিশ্ব৷ ইতি-উতি অলি-গলি যেদিকেই চোখ যায় সেখানেই দাঁড়িয়ে মেসি কিংবা রোনাল্ডো কিংবা নেইমার৷ নিজেদের প্রিয় তারকাদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখার অপেক্ষায় ফুটবলপ্রেমীরা৷ প্রিয় নায়কদের ফুটবলের টেকনিক কিংবা স্কিল তো চেনা, কিন্তু শুধু ট্যাটু দেখে কি তাঁদের চিনতে পারবেন? বিশ্বকাপের আগে একবার যাচাই করে দেখতেই পারেন নিজেকে৷

১. খেলোয়াড়দের মধ্যে ট্যাটু প্রীতি একটু বেশিই লক্ষ্য করা যায়৷ এই ফুটবলারও সেই তালিকায় পড়েন৷ রিয়াল মাদ্রিদের জার্সি গায়ে যত না ইউরোপীয় কাপ জিতেছেন, তার চেয়ে বেশি ট্যাটু রয়েছে তাঁর শরীর জুড়ে৷ এবারের বিশ্বকাপে নিজের দলের অন্যতম ভরসা তিনি৷ চিনতে পারছেন কে এই তারকা?

[রাশিয়ায় আর্জেন্টিনার বেসক্যাম্পে এলাহি খানাপিনা, আলাদা ঘর পেলেন না মেসি!]

২. ফুটবলবিশ্ব তাঁর ম্যাজিকে মোহিত৷ দেশের জার্সি গায়ে সম্ভবত এটাই তাঁর শেষ বিশ্বকাপ৷ তাই ট্রফি হাতে তুলে সাফল্যের বৃত্ত পূরণ করুন তিনি, এমনটাই প্রার্থনা তাঁর ভক্তদের৷ নিজের পায়ে ছেলের নামের এই ট্যাটু করার পরই ছবিটি ভাইরাল হয়েছিল৷ নিশ্চয়ই বুঝে গিয়েছেন কে ইনি!

৩. টুডো পাসা৷ পর্তুগিজ শব্দ৷ যার অর্থ সময়ের সঙ্গে সবকিছুই চলে যায়৷ এমনই ট্যাটু গলায় এঁকেছেন তিনি৷ বিশ্বকাপে যাঁকে ঘিরে উত্তেজনা তুঙ্গে৷ আর সেই কারণে তাঁর উপর প্রত্যাশার চাপও বাড়ছে৷ পরের মরশুমে কোন ক্লাবের জার্সি গায়ে চাপাবেন, তা নিয়েও চলছে জল্পনা৷ পেলেন উত্তরটা?

৪. দুই ভাই খেলেন দুটি আলাদা ক্লাবে৷ ভাইয়েরও ট্যাটু প্রীতি রয়েছে৷ জার্মানির জার্সি গায়ে ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি৷ একটু ভাবলেই মিলবে উত্তর৷

[এখনও টাটকা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালের ক্ষত, র‌্যামোসকে ক্ষমা করেননি সালাহ]

৫. ২৩.০৭.২০১৪৷ এই দিনটা তিনি কখনও ভুলবেন না৷ আর তা চিরস্মরণীয় করে রাখতেই এই ট্যাটুটি বানিয়েছিলেন৷ কারণ এই বিশেষ দিনেই বিশ্বকাপে সোনার বুট জিতেছিলেন তিনি৷ তরুণ এই স্ট্রাইকার এবারের বিশ্বকাপে কী করেন, সেদিকে নজর রয়েছে ফুটবল মহলের৷

৬. তাঁর বয়স তখন মাত্র দু’বছর৷ বন্দুকের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছিলেন তাঁর বাবা৷ আর তারপরই নিজেকে প্রতিজ্ঞা করেছিলেন, কখনও বন্দুকে হাত লাগাবেন না৷ খেলার মাঠে সচল তাঁর ডান পা-ই৷ তাই এখানেই বাবার স্মৃতি খোদাই করেছেন ম্যাঞ্চেস্টার সিটির মিডফিল্ডার৷

৭. স্পেনের ক্লাবে খেলেন৷ রাশিয়ায় দেশকে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ এনে দিতে বদ্ধপরিকর তিনি৷ ইতিমধ্যেই ক্লাবের হয়ে ইউরোপা লিগ জিতেছেন৷ তাঁর দুরন্ত ফর্মে ভর করেই বিশ্বজয়ের স্বপ্ন দেখছেন সমর্থকরা৷ কে ইনি?

এবার মিলিয়ে নিন আপনার আন্দাজের সঙ্গে কটি উত্তর মিলল৷

১. সের্জিও ব়্যামোস (স্পেন), ২. লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা), ৩. নেইমার (ব্রাজিল), ৫. জেরম বোয়াতেং (জার্মানি), ৫. হামেস রডরিগেজ (কলম্বিয়া), ৬. রহিম স্টারলিং (ইংল্যান্ড), ৭. গ্রিজম্যান (ফ্রান্স)৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে