১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সিডনিতে সিরিজের তিন নম্বর সেঞ্চুরি পূজারার, ভাঙলেন গাভাসকরের রেকর্ড

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: January 3, 2019 1:26 pm|    Updated: January 3, 2019 1:26 pm

Cheteshwar Pujara bag 18th Test ton

ভারত: প্রথম ইনিংস ৩০৩/৪ (পূজারা ১৩০*, ময়ঙ্ক ৭৭)
প্রথম দিনের খেলা শেষ

দেবাশিস সেন, সিডনি: সিডনির গোলাপি টেস্টের প্রথম দিনেই চালকের আসনে ভারত। সৌজন্যে ময়ঙ্ক আগরওয়াল ও চেতেশ্বর পূজারার দুর্ধর্ষ ব্যাটিং। চলতি সিরিজে তিন নম্বর এবং কেরিয়ারের ১৮তম শতরান হাঁকালেন এদিন পূজারা। দিনের শেষে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের দাপুটে ইনিংসে ভর করে ৩০৩ রান তুলেছে ভারত। উইকেট পড়েছে ৪টি। পূজারার ব্যাটিং দেখে বৃহস্পতিবার বিস্মিত দর্শক থেকে অজি বোলাররাও। এই সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে সফল বোলার নাথান লিয়ঁ তো বলেই দিলেন, সিরিজে ২২ ঘণ্টা ক্রিজে কাটিয়ে ১০০০-এরও বেশি বল খেলে পূজারা এতটুকুও বোর নন! অ্যাডিলেডে ১২৩, পার্থে ১০৬ তারপর সিডনিতে প্রথম ইনিংসে ১৩০ রান করে অপরাজিত রয়েছেন পূজারা। ভারতীয়দের ব্যাটিংয়ের চালচিত্র দেখেই আন্দাজ করা যাচ্ছে টেস্টের দ্বিতীয় দিনে বড় রান করতে চলেছে টিম ইন্ডিয়া।

এদিন একটি রেকর্ড গড়ে ফেললেন পূজারা। টপকে গেলেন লিটল মাস্টার সুনীল গাভাসকরকে। এতদিন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে একটি সিরিজে ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বল খেলার রেকর্ড ছিল গাভাসকরের (১০৩৩টি বল)। পূজারার ব্যাটিং দেখতে দেখতে বিরক্ত হয়ে এদিন অজি স্পিনার লিয়ঁ তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, ‘তুমি এতটুকুও বিরক্ত হচ্ছো না’? কিন্তু এদিন অজিদের বোলিং এতটাই নির্বিষ ছিল যে পূজারার মতো ব্যাটসম্যান বিরক্ত হওয়ার মতো দেখাচ্ছিলেন না। কেনই বা দেখাবেন! তিনি তো রান মেশিন। তবে তাঁর সাফল্যের দিনে এদিন ফের ব্যর্থ হন কেএল রাহুল। মাত্র ৯ রান করে আউট হন। বাকিদের মধ্যে ময়ঙ্ক (৭৭) উল্লেখযোগ্য রান পেয়েছেন। অধিনায়ক কোহলি (২৩) এবং রাহানেও (১৮) এদিন ব্যর্থ। প্রথম দিনের শেষে পূজারার সঙ্গে অপরাজিত রয়েছেন হনুমা বিহারী (৩৯*)। এদিনের সেঞ্চুরির সৌজন্য গাভাসকর, বিরাটের সঙ্গে একাসনে বসে পড়লেন পূজারা। তিন বা তার বেশি শতরানের নজির অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে একটি সিরিজে এদেরই রয়েছে। গতবছরটা মোটের উপর খারাপ যায়নি পূজারার। ১৩টি টেস্ট খেলে করেছিলেন ৮৩৭ রান। এবছরের শুরুটা গোলাপি টেস্টে শতরান দিয়ে শুরু করলেন। বোঝাই যাচ্ছে, বছরটা ভাল যাওয়ার ইঙ্গিত রয়েছে। তাহলে তো বিরক্ত হওয়ার কোনও কারণই কীভাবে থাকে পূজারার!

[সিডনিতে মুখোমুখি ভারত-অস্ট্রেলিয়া, কেন এই ম্যাচকে ‘পিঙ্ক টেস্ট’ বলা হচ্ছে জানেন?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে