Advertisement
Advertisement
Smriti Mandhana

Smriti Mandhana: ‘দেবি মান্ধানা’! ভারতের তারকার টানে গ্যালারিতে চিনা সমর্থক, ছবি ভাইরাল

স্মৃতির জন্য গ্যালারিতে চিনা সমর্থক।

Asian Games 2023: To watch Goddess Smriti Mandhana Chinese fan travels from Beijing to Hangzhou for Indian women's cricket team। Sangbad Pratidin

স্মৃতি মান্ধানার টানে গ্যালারিতে চিনা সমর্থক।

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:September 26, 2023 8:45 am
  • Updated:September 26, 2023 9:18 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাইশ গজের যুদ্ধে দাপট দেখিয়ে সোনা জয়। প্রথমবার এশিয়ান গেমস (Hangzhou Asian Games 2023) খেলতে নেমেই হরমনপ্রীত কৌর (Harmanpreet Kaur)-জেমাইমা রডরিগেজদের (Jemimah Rodrigues) গলায় এল সোনার পদক। অবশ্য সোনার পদক জয়ে স্মৃতি মান্ধানার (Smriti Mandhana) ভূমিকাও অনেক। মাঠের বাইরেও তাঁর অনেক সমর্থক সেটা তো আগেই বোঝা গিয়েছিল। চিনেও যে স্মৃতির সমর্থক কম নয়, সেটাও এবার জানা গেল। শ্রীলঙ্কার (Sri Lanka Womens Cricket Team) বিরুদ্ধে ফাইনাল দেখতে গ্যালারিওতে ছিলেন এক চিনা সমর্থক। তাঁর হাতে ছিল একটি ব্যানার। সেখানে লেখা ‘মান্ধানা, দ্য গডেস’।

সেই সমর্থকের নাম জুন ইউ। বেজিং থেকে আসা সেই ছেলেটি জিওলজির ছাত্র। তাঁর হাতে ছিল একটি ব্যানার। সেখানে লেখা, ‘মান্ধানা, দ্য গডেস’। স্মৃতি মান্ধানাকে দেবীর আসনে বসিয়েছেন জুন ইউ। বলছেন, ‘আমি ওর ভক্ত। কম্পিউটার গেম খেলার ফাঁকে ওর খেলার ভিডিও দেখি। ওর খেলার স্টাইল আমার দারুণ পছন্দ।’

Advertisement

[আরও পড়ুন: ভারতকন্যাদের প্রতিভায় শীর্ষে তেরঙ্গা, এশিয়ার সেরা হওয়ার পরে হরমনপ্রীতদের অভিনন্দন মোদির]

ক্রিকেট শেখার প্রবল ইচ্ছে। কিন্তু সঙ্গী খুঁজে পাওয়া তাঁর পক্ষে কঠিন। যাঁকে তিনি বোলিং করতে পারবেন বা যে তাঁকে বোলিং করতে পারবেন। তাহলে কি চিনের লোকেরা একেবারেই ক্রিকেট বোঝেন না? জুনের কথায়, ‘চিনে ক্রিকেট খেলার সঙ্গী খুঁজে পাওয়া কঠিন। হাতে গোনা কয়েকজন হয়তো নিয়মটা জানে। কিন্তু খেলতে কেউ চায় না। বরং, ক্রিকেট মাঠের পরিবেশটাই তাদের কাছে বেশি পছন্দের।’

Advertisement

হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে সোনা জিতলেন হরমনপ্রীতরা। জেমাইমা ও স্মৃতির লড়াকু ব্যাটিংয়ের পর তিতাস সাধুর আগুনে বোলিং-দলগত পারফরম্যান্স করেই সোনালি পদক ছিনিয়ে নিল ভারত। ফাইনাল ম্যাচে বেশ কয়েকবার চাপে পড়লেও দারুণভাবে ফিরে এসে ম্যাচ পকেটে পুরেছেন সোনার মেয়েরা। কমনওয়েলথ গেমসে রুপোর পর ফের নতুন পালক ভারতের মহিলা ক্রিকেটের মুকুটে।

হরমনপ্রীত থেকে শুরু করে ওপেনার শেফালি- শ্রীলঙ্কা স্পিনারদের সামনে বিপাকে পড়েন সকলেই। ২০ ওভারের শেষে মাত্র ১১৬ রান তোলে ভারত। জবাবে বেশ মারকুটে মেজাজেই ইনিংস শুরু করেন দুই লঙ্কা ওপেনার। তার পর আসরে নামেন বাংলার পেসার তিতাস সাধু। অধিনায়ক আটাপাট্টুর উইকেট তুলে নিয়ে প্রথম ধাক্কা দেন তিনি। বঙ্গকন্যার হাত ধরেই ম্যাচে ফেরে ভারত। সোমবার ভারতীয় সময় ভোরবেলা সোনা এসেছিল শুটিংয়ের হাত ধরে। পড়ন্ত বিকেলে সোনালি পদক নিয়ে এলেন ভারতের সোনার মেয়েরাও। আর সেই ফাইনালের মাঝেই ভাইরাল হল ‘মান্ধানা, দ্য গডেস’ নামক সেই ব্যানার।

[আরও পড়ুন: ২২ কিমি দৌড়, জিম আর পরিশ্রম, অগ্নিকন্যা তিতাসের উত্থানের কাহিনি শোনালেন বাবা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ