BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‌কীভাবে আয়োজিত হবে ঘরোয়া ক্রিকেট?‌ করোনা কালে নয়া পরিকল্পনার কথা জানাল বোর্ড

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: November 29, 2020 10:03 pm|    Updated: November 29, 2020 10:03 pm

An Images

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ IPL শেষ। করোনা আবহে (Corona Pandemic) দুবাইয়ে (Dubai) সফলভাবেই কোটি টাকার টি–টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটি আয়োজন করেছে ভারতীয় বোর্ড। এবার BCCI-এর লক্ষ্য যত দ্রুত সম্ভব দেশের মাটিতে সফলভাবে ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু করা। আপাতত সেদিকেই লক্ষ্য স্থির রেখেছেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। সেজন্য রাজ্য সংস্থাগুলোকে ইতিমধ্যে চিঠিও দিয়েছেন তিনি।

কীভাবে করা হবে ঘরোয়া ক্রিকেট?‌ সে ব্যাপারে আগামী ২ ডিসেম্বরের মধ্যে মতামত জানাতে হবে রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলোকে। মূলত চারটি অপশন দেওয়া হয়েছে ভারতীয় বোর্ডের তরফ থেকে। সেখান থেকেই বেছে নিতে বলা হয়েছে একটি। এছাড়া জানানো হয়েছে, ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফদের কথা ভেবে মূলত তিনটি স্টেডিয়ামে সবমিলিয়ে মোট ছ’‌টি জৈব সুরক্ষা বলয়েরর মধ্যেই ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হবে।

[আরও পড়ুন: ম্যাচ চলাকালীনই গ্যালারিতে অজি গার্লফ্রেন্ডকে বিয়ের প্রস্তাব ভারতীয় যুবকের, ভাইরাল ভিডিও]

চিঠিতে মোট চারটি পথ বাতলে দিয়েছে ভারতীয় বোর্ড। রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলোকে সেই চারটির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিয়ে বোর্ডকে জানাতে হবে। ২ তারিখের পর এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে BCCI। যে চারটি উপায়ে ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা বলা হয়েছে, সেগুলি হল:‌

• কেবলমাত্র রঞ্জি ট্রফি আয়োজন।
• সৈয়দ মুস্তাক আলি টি–২০ টুর্নামেন্ট আয়োজন
• রঞ্জি এবং সৈয়দ মুস্তাক আলি টি–২০ টুর্নামেন্ট–দু’‌টোরই আয়োজন।
• সৈয়দ মুস্তাক আলি টি–২০ টুর্নামেন্ট এবং বিজয় হাজারে ট্রফি আয়োজন।

[আরও পড়ুন: সিডনিতে ফের রানের পাহাড়ে অজিরা! সিরিজ বাঁচাতে অসাধ্য সাধন করতে হবে বিরাটদের]

এর পাশাপাশি টুর্নামেন্টের সম্ভাব্য তারিখও জানিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই। সৌরভের পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, রঞ্জি ট্রফি হতে পারে ১১ জানুয়ারি থেকে ১৮ মার্চ পর্যন্ত (৬৭ দিন)। ‌সৈয়দ মুস্তাক আলি টি–২০ টুর্নামেন্ট হতে পারে ২০ ডিসেম্বর থেকে ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত (‌২২ দিন)। এবং সর্বোপরি বিজয় হাজারে ট্রফি আয়োজিত হলে, তা হতে পারে ১১ জানুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত (‌২৪ দিন)‌।

এখানেই শেষ নয়, চিঠিতে আরও বলা হয়েছে মোট ছ’‌টি জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করা হবে। পাঁচটি এলিট গ্রুপের জন্য এবং একটি প্লেট গ্রুপের জন্য। ৩৮টি রঞ্জি দলের মধ্যে ছ’‌টি করে দল নিয়ে তৈরি হবে এলিট গ্রুপ এবং আটটি দল নিয়ে হবে প্লেট গ্রুপ। এখন কেবল রাজ্য সংস্থাগুলোর জবাব দেওয়ার পালা। তবে পুরো চিত্রটাই ২ ডিসেম্বরের পর পরিষ্কার হয়ে যাবে, মত ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের। ‌

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement