BREAKING NEWS

১০ আশ্বিন  ১৪২৮  সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

একই ম্যাচে ৪ ব্যাটসম্যানকে মানকাড আউট! বোলারের কীর্তিতে হতবাক নেটদুনিয়া

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 13, 2021 5:08 pm|    Updated: September 13, 2021 5:42 pm

Cameroon's Maeva Douma, 16, runs out four non-strikers in T20 World Cup qualifier | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রিকেট মাঠে মানকাড করে আউটের ঘটনা বরাবরই বিতর্কিত। ২০১৯ সালে আইপিএলের (IPL) একটি ম্যাচে রবিচন্দ্রন অশ্বিনও এইভাবেই আউট করেন জোস বাটলারকে। আর এই কাজের জন্য রীতিমতো বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। তবে সাধারণত এতদিন একটি ম্যাচে একবারই হয়তো মানকাডের ঘটনা ঘটেছে।

কিন্তু একটি ম্যাচে চারবার! না শুনতে অবাক লাগলেও একই ম্যাচে চারবার মানকাডের ঘটনা কখনও ঘটেনি। তবে সম্প্রতি এমনই কাণ্ড ঘটিয়ে খবরের শিরোনামে উঠে এল ক্যামেরুনের (Cameroon) ১৬ বছর বয়সি এক মহিলা ক্রিকেটার। Women’s T20I World Cup qualifier-এর একটি ম্যাচে উগান্ডা এবং ক্যামেরুনের ম্যাচে ঘটনাটি ঘটে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অভিষেকেই এই কাণ্ড ঘটাল মায়েভা ডৌওমা। ম্যাচে বোলিং পরিসংখ্যানের দিক থেকে একটিই উইকেট পেয়েছে মায়েভা। কিন্তু মানকাড করেই আউট করেছেন উগান্ডার আরও চারজন ব্যাটসম্যানকে।

[আরও পড়ুন: ঘোষিত ISL 8 মরশুমের সূচি, উদ্বোধনী ম্যাচেই নামছে এটিকে মোহনবাগান, ডার্বি কবে?]

ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালও হয়েছে মায়েভার সেই ভিডিও। যেখানে তিনি রানার্স এন্ডে থাকা একের পর ক্রিকেটারকে পরপর মানকাড করে চলেছেন। অনেকেই তার এই কাজ দেখে মজা করেছেন। কেউ কেউ আবার ওই ক্রিকেটারের এহেন কাজের সমালোচনাতেও মুখর।

কিন্তু কী এই মানকাড? কোনও ব্যাটসম্যান নন-স্ট্রাইকার এন্ডে থাকাকালীন বোলারের ডেলিভারির আগে যদি ক্রিজ থেকে বেরিয়ে যান, তখনই মানকাডিংয়ের প্রসঙ্গ উঠতে পারে। কারণ সেই মুহূর্তে বোলার উইকেটে বল ঠেকিয়ে দিলেই ওই ব্যাটসম্যান আউট। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে নন-স্ট্রাইকার এন্ডে থাকা ব্যাটসম্যানদেরই এই প্রবণতা বেশি দেখা যায়। রান নেওয়ার জন্য সদা প্রস্তুত থাকেন তিনি। স্ট্রাইকার ইশারা করলেই দৌড় লাগান। ইংল্যান্ডের মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবে (এমসিসি) রয়েছে ক্রিকেটের রুলবুক। যেখানে স্পষ্ট ভাষায় লেখা রয়েছে, নন-স্ট্রাইকার এন্ডের ব্যাটসম্যান যদি বল ডেলিভারি করার আগেই ক্রিজ ছাড়েন, তবে ওই ব্যাটসম্যানকে রান আউট করতে পারেন বোলার। বোলারের চেষ্টা সফল হোক বা ব্যর্থ, সেই বলকে ওভারের একটি ডেলিভারি হিসেবে ধরা হবে না। যদি বোলার আউট করতে ব্যর্থ হন, তবে আম্পায়ার সঙ্গে সঙ্গে ডেড বলের ইশারা করতে পারেন।

[আরও পড়ুন: ফুটবল ছেড়ে এবার রাজনীতি, কংগ্রেসে যোগ দিলেন ইস্টবেঙ্গলের প্রাক্তন ফুটবলার অ্যালভিটো]

তবে ২০১৭ সালে এই আইনে খানিক পরিবর্তন আনে এমসিসি। নতুন নিয়মে আরও খানিকটা ছাড় দেওয়া হয় বোলারকেই। এর আগে ডেলিভারির জন্য বোলারের দৌড়ের সময়ের মধ্যেই নন-স্ট্রাইকিং এন্ডের ব্যাটসম্যানকে আউট করা যেত। কিন্তু পরিবর্তিত নিয়ম অনুযায়ী, বোলার যদি ডেলিভারির জন্য খানিকটা হাত ঘুরিয়েও ফেলেন, তারপরও রান আউটের সুযোগ পাবেন তিনি। আসলে ব্যাটসম্যানকে সতর্ক করতেই ৪১.১৬ আইনে বদল আনা হয়েছিল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×