২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

দেবাশিস সেন, সাউদাম্পটন: একটা নয়, দু’টো নয়। একসঙ্গে তিন-চারটে নতুন ব্যাট। ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানের হাতে ব্যাট থাকবে, আপাত দৃষ্টিতে এতে নতুনত্ব কিছু নেই। কিন্তু সেই ব্যাটসম্যানের নাম যদি বিরাট কোহলি হয়, আর তিনি যদি নতুন ব্যাট আমদানি করে বসেন বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগে-আগে, চর্চা না হওয়াটাই বোধহয় অস্বাভাবিক। লন্ডনে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ যখন চলছে, ভারত তখন তার থেকে বেশ দূরে। সাউদাম্পটনে। আগের রাতেই যেখানে লন্ডনে কাপ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে চলে এসেছেন ভারত অধিনায়ক। এ দিন টিমের প্র্যাকটিস সেশনও ছিল। এবং সেখানে অধিনায়ক কোহলিকে ঘিরে দু’টো ব্যাপার ঘটতে দেখা গেল।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই ইতিহাসে ইংল্যান্ড, বিরাট রানে হারল দক্ষিণ আফ্রিকা]

একটা আশাব্যঞ্জক। আগ্রহের বিষয়বস্তু। একটা খারাপ। দ্রুত স্মৃতির ডাস্টবিনে পাঠিয়ে দেওয়ার মতো। আগ্রহের বিষয়ের কথা আগেই লেখা হয়েছে-ওই নতুন তিন-চারটে ব্যাট। যা নিয়ে বৃহস্পতিবারের সাউদাম্পটন নেটে অবতীর্ণ হলেন কিং কোহলি। লোগো-টোগো ছাড়া একেবারে কড়কড়ে নতুন ব্যাট। প্র্যাকটিসে দেখা গেল, কোহলি সেই ব্যাট নিয়ে একবার টিমের অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে আলোচনায় বসে গেলেন। জাতীয় নির্বাচক দেবাঙ্গ গান্ধীও কিছুক্ষণের মধ্যে সেখানে হাজির হয়ে গেলেন। আর খারাপ ব্যাপারটা ঘটল তার পর পর। কোহলি মাঠের একটা নেটে ব্যাট করছিলেন। কখনও মহম্মদ সামি, কখনও খলিল আহমেদ, দীপক চাহারের বোলিংয়ের বিরুদ্ধে। হ্যাম্পশায়ার কাউন্টির বোলার জ্যাক বেস নেটে বল করছিলেন কোহলিকে। হঠাৎই তাঁর একটা ডেলিভারিতে বোল্ড হয়ে যান ভারত অধিনায়ক। লেগস্টাম্প নড়ে যায়। যার পর নিজের উপর প্রচণ্ড বিরক্ত হয়ে পড়েন কোহলি। সেটা দেখাও যায়।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনে ব্যাট হাতে হতাশ করলেন ভারতীয় প্রতিনিধিরা]

ভারতীয় নেট শেষে অভাবনীয় কাণ্ড ঘটানো জ্যাক বলছিলেন, “স্বপ্নের মতো লাগছে। ভাবতেই পারছি না কোহলিকে আমি আউট করে দিয়েছি! কিন্তু কী জানেন, কোহলির একাগ্রতাটা দেখার মতো। শেখার চেষ্টা করছিলাম, কী করে মনটাকে সব সময় ও ধরে রাখার চেষ্টা করে। এটা আমাদের কাছে শিক্ষা যে ও কী ভাবে নিজের ফোকাসটা ধরে রাখে। প্রতিটা বলের আগে কোহলির নড়াচড়া থেকে সব কিছু আমাদের কাছে শিক্ষার।” এ দিনের কোহলি ঘাতকের আরও একটা পরিচয় আছে। ইনি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক ঘটানো ইংরেজ ক্রিকেটার ডমিনিক বেসের ভাই।
কোহলি বাদে আরও কয়েকটা খবরাখবর আছে ভারতীয় শিবিরে। যেমন, টিমের দুই প্রধান অস্ত্র জসপ্রিত বুমরাহ এবং হার্দিক পান্ডিয়ার প্র্যাকটিস না করে এ দিন টিমের ট্রেনার শঙ্কর বাসুর কাছে দীর্ঘক্ষণ ধরে স্ট্রেংথ এবং কন্ডিশনিং ট্রেনিং করা। যেমন, কেএল রাহুল এবং কুলদীপ যাদবের এদিনকার প্র্যাকটিসে অনুপস্থিতি। কুলদীপ শোনা গেল, কিছুটা অসুস্থও। তাঁর জ্বর হয়েছে। আর তৃতীয় খবরটা হল, কেদার যাদবের ক্রমশ সুস্থ হয়ে ওঠা। এ দিন পুরোদমে নেট করলেন কেদার। আগের চেয়ে যিনি অনেক সুস্থ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং