১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিখর ধাওয়ানের চোট কতটা গুরুতর তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত হতে পারছে না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। প্রথমে জানা গিয়েছিল অন্তত ৩ সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে শিখরকে। বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার বলে গেলেন, অতদিন নয় হয়তো ১০-১২ দিনেই সুস্থ হয়ে উঠবেন বাঁহাতি ওই ওপেনার।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে রেকর্ড ম্যাচ বাতিল, তোপের মুখে আইসিসি]

৯ জুন তাঁর আঙুলে চোট লেগেছে। দু’সপ্তাহ বাইরে থাকবেন, নাকি তিন সপ্তাহ-ছিল প্রশ্ন। কিছুটা সেই রহস্যের সমাধান করে দিয়ে ভারতীয় দলের ব্যাটিং কোচ বাঙ্গার বললেন, “আমরা শিখরের পরিস্থিতির উপর নজর রাখছি। আশা করি ওর সুস্থ হতে ১০-১২ দিন সময় লাগবে। আমরা ওঁকে সাহায্য করছি। বিকল্প হিসেবে বিজয় শংকর আমাদের হাতে রয়েছে। যখনই প্রয়োজন হবে ওঁকে আমরা ব্যবহার করতে পারি।”

সঞ্জয় বাঙ্গার এদিন সরকারিভাবে জানিয়ে দিলেন, ঋষভ পন্থকে ইংল্যান্ডে ডেকে নেওয়া হয়েছে। তবে, তিনি সরাসরি দলে ঢুকছেন না। ঋষভ গেলেও তাঁকে সরকারিভাবে বিশ্বকাপ দলের অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে না। খলিল আহমেদ যেরকম দলে না থেকেও দলের সঙ্গে আছেন। প্র‌্যাকটিস করছেন, প্র‌্যাকটিস দিচ্ছেন, সেভাবেই ঋষভও দলের সঙ্গে থাকবেন। এমনিতে তিনি রায়াডুর মতোই রিজার্ভ তালিকায় রয়েছেন। তাঁর সেই স্টেটাস বদলাচ্ছে না। শুধু বাড়িতে বসে টিভিতে বিশ্বকাপ দেখার বদলে ঋষভ দলের সঙ্গে থেকে বিশ্বকাপের আঁচ নেবেন। আসলে ঋষভকে ইংল্যান্ডের উড়ানে তুলে দেওয়ার পিছনে তুমুল পেশাদারিত্ব কাজ করেছে। আর এতে আর একটা জিনিস স্পষ্ট, এই ভারতীয় দল বিশ্বকাপের মধ্যে কোনও ঝুঁকি নেবে না।

[আরও পড়ুন: ‘মওকা মওকা’র পালটা, অভিনন্দনকে কটাক্ষ করে বিশ্বকাপের বিজ্ঞাপন পাকিস্তানের]

এরপর যেটা হতে পারে, শিখর যদি ফিট হয়ে মাঠে নেমে পড়েন, তাহলে ঋষভ রিজার্ভ প্লেয়ারই থেকে যাবেন। আর শিখরকে যদি বিশ্বকাপের বাইরে চলে যেতে হয়, তাহলে ঋষভ পরিবর্ত ক্রিকেটার হিসাবে ভারতীয় দলে যুক্ত হবেন। প্রশ্ন উঠছে, সেক্ষেত্রে ঋষভকে এত তাড়াতাড়ি দলের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হল কেন? উত্তর এটাই যে, যাতে তিনি ইংল্যান্ডের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার সুযোগ পান।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং