২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইংল্যান্ড প্রথমবারের জন্য বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার কারিগর বেন স্টোকস। কার্যত একার হাতে প্রায় হেরে যাওয়া ফাইনাল ম্যাচ বাঁচিয়ে এনেছেন স্টোকস। তাঁর শীতল মস্তিষ্কের ইনিংসই রবিবারের লড়াইটাকে সুপার ওভার পর্যন্ত টেনে দিয়েছিল। শুধু ফাইনাল নয়, গোটা টুর্নামেন্টেই ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন ইংল্যান্ডের অল-রাউন্ডার। স্বাভাবিকভাবেই সমর্থকদের প্রশংসা কুড়োচ্ছেন ইংরেজ তারকা। স্টোকসের প্রশংসা করেছে আইসিসিও। কিন্তু, এখানেই হয়ে গিয়েছে মারাত্মক ভুল। স্টোকসের প্রশংসা করতে গিয়ে খোদ মাস্টার ব্লাস্টার শচীন তেণ্ডুলকরকে অপমান করে বসল ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। স্টোকস এবং শচীনকে জড়িয়ে বিশ্বকাপের সরকারি টুইটার হ্যান্ডেল এমন একটি টুইট করল যা শচীনের জন্য অপমানজনক বলেই মনে করছেন সমর্থকরা।

[আরও পড়ুন: ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাদ! ধোনিকে অবসরের পথ দেখাচ্ছে বিসিসিআই]

কী করল আইসিসি? রবিবার ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন শচীন তেণ্ডুলকরও। একসময় শচীন এবং ফাইনালের ম্যান অব দ্য ম্যাচ বেন স্টোকসকে দেখা যায় এক ফ্রেমে। সেই ছবিটিই তুলে নিয়ে টুইট করে আইসিসি। কিন্তু, বিতর্ক বাধে আইসিসির দেওয়া ক্যাপশন ঘিরে। যাতে লেখা ছিল,”সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার এবং শচীন তেণ্ডুলকর।” এখানেই আপত্তি সমর্থকদের। তাদের দাবি, স্টোকসকে সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার বলে শচীনকে অপমান করেছে আইসিসি। যদিও, আইসিসি টুইটটি রসিকতার ছলেই করেছিল। কারণ, ক্যাপশানের শেষে একটি ইমোজিও দেওয়া হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: হাস্যকর নিয়ম, নিউজিল্যান্ডের হারের পর আইসিসিকে একহাত নিলেন গম্ভীর]

সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থকরা এ নিয়ে আইসিসিকে তুলোধোনাও করেছে। তাদের দাবি, শচীনের মতো কিংবদন্তীর সঙ্গে স্টোকসের তুলনা করে গর্হিত কাজ করেছে আইসিসি। তাছাড়া শচীন যেখানে প্রায় ২৪ বছর বিশ্বক্রিকেটকে শাসন করেছে, সেখানে স্টোকসের সাফল্য নেহাতই নগণ্য। কোন যুক্তিতে তাঁকে সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার বলা হল তাও বুঝে উঠতে পারছেন না সমর্থকরা।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং