৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ভারত: ৩৩৬-৫ (রোহিত ১৪০, কোহলি ৭৭)

পাকিস্তান: ২১২/৬ (ফখর জামান ৬২, বাবর আজম ৪৮)

ভারত ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়ম অনুসারে ৮৯ রানে জয়ী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাপ বাপ হোতা হ্যায়.. ফাদার্স ডে তে আরও একবার প্রমাণ করে দিল ভারত। বিশ্বকাপে ভারতকে হারানোর আরও একটি ‘মওকা’ হারাল পাকিস্তান। বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তানকে হারাবে এ যেন রুটিনে পরিণত হয়েছে। এবারেও সেই রুটিনের ব্যতিক্রম হল না। পাকিস্তানকে বড় রানের ব্যবধানে হারিয়ে দিল বিরাট-ব্রিগেড। ব্যাট-বল-ফিল্ডিং, সব বিভাগেই সরফরাজ আহমেদদের বলে বলে গোল দিল বিরাটরা। এই নিয়ে সাতবার। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে ভারত জিতল ৮৯ রানে। একই সঙ্গে অনবদ্য একাধিক রেকর্ডের মালিক হলেন রোহিত শর্মা। বিরাট কোহলি এবং বিজয় শংকরও করেছেন অনবদ্য রেকর্ড।

[আরও পড়ুন: আউট না হয়েই প্যাভিলিয়নে ফিরলেন বিরাট! জোর আলোচনা নেটদুনিয়ায়]

এদিন সকাল থেকে ম্যাঞ্চেস্টারের আকাশ অন্যদিনের তুলনায় পরিষ্কার থাকলেও, দ্বিতীয়ার্ধে বৃষ্টি হতে পারে, এই আশঙ্কাতেই এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। কিন্তু, সরফরাজের সেই সিদ্ধান্ত বুমেরাং হয়ে দাঁড়াল। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করল ভারত। প্রথম উইকেটের জুটিতেই ১৩৬ রান তুলে ফেলে মেন ইন ব্লু। লোকেশ রাহুল ৫৭ রানে আউট হলও রোহিত অনবদ্য শতরান করেন।বিরাট কোহলির পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে শতরান করলেন রোহিত। এটি তার কেরিয়ারের ২৪তম এবং বিশ্বকাপে তৃতীয় শতরান। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এটি কোনও ভারতীয় ব্যাটসম্যানের তৃতীয় দ্রুততম শতরান (৮৫ বলে)। এদিনের ১৪০ রানের ইনিংস খেলে এবারের বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান স্কোরারের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এলেন টিম ইন্ডিয়ার ‘হিটম্যান’। রোহিতের দখলে ৩১৯ রান। শীর্ষে অস্ট্রেলিয়ার অ্যারন ফিঞ্চ। তিনি পাঁচ ম্যাচে করেছেন ৩৪৩ রান। এদিনের ১৪০ রানের ইনিংসে আরও একটি রেকর্ড গড়েছেন রোহিত। বিশ্বকাপে ভারত-পাক ম্যাচে এটিই দু’দলের তরফে সর্বোচ্চ স্কোর। রোহিতের উইকেটের পরও রানের গতি কমতে দেননি কোহলি। তিনিও নিজের অর্ধশতরান করেছেন। ৬৫ বলে ৭৭ রানের ইনিংস খেলেন বিরাট। তিনিও এদিন অনবদ্য রেকর্ড করলেন। দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে এগারো হাজার রানের গণ্ডি পেরিয়ে গেলেন কিং কোহলি। এর আগে এই রেকর্ড ছিল শচীন তেণ্ডুলকরের দখলে। বিরাট-রোহিতদের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পাকিস্তানের সামনে ৩৩৬ রানের পাহাড় তৈরি করে ভারত। 

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পরামর্শও শুনলেন না সরফরাজ! কী করলেন জানেন?]

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই স্লো-ব্যাটিং ভোগানো শুরু করে পাকিস্তানকে। একসময় ফখর জামান এবং বাবর আজম জুটি বেঁধে কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা করলেও কুলদীপের জাদুতে ভেঙে যায় তাদের জুটি। এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি ভারতকে। একের পর উইকেট খুইয়ে পাকিস্তান যখন প্রবল চাপে, তখনই বৃষ্টির জন্য বেশ কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ রাখতে হয়। ডাকওয়ার্স লুইস নিয়ম অনুযায়ী পাকিস্তানকে নতুন টার্গেট দেওয়া হয় ৪০ ওভারে ৩০২ রান। কিন্তু নির্ধারিত ৪০ ওভারে ৬ উইকেটে মাত্র ২১২ রানেই শেষ হয় পাক ইনিংস। প্রত্যাশিত জয়ের দিনে বিরল রেকর্ডের মালিক হন বিজয় শংকর। নবম বোলার হিসেবে বিশ্বকাপ কেরিয়ারের প্রথম বলেই উইকেট পান তিনি। তবে, জয়ের মধ্যেও ভারতের চিন্তা থাকবে ভুবনেশ্বর কুমারের চোট নিয়ে। এদিন হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন ভুবি। ভারতীয় সমর্থকদের আশা পরের ম্যাচের আগেই সুস্থ হয়ে উঠবেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং