২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। দেশের ক্যাপ্টেন হওয়ার আগে তিনি ছিলেন পাক ক্রিকেট দলের ক্যাপ্টেন। শুধু ক্যাপ্টেন বলা ভুল, বলতে হবে বিশ্বজয়ী ক্যাপ্টেন। ৯২-তে পাকিস্তান বিশ্বকাপ জিতেছিল তাঁর হাত ধরেই। এ হেন ব্যক্তির ক্রিকেট বুদ্ধি নিয়ে প্রশ্ন তোলাটা যে নির্বোধের কাজ তা দুধের শিশুও হয়তো বুঝবে। কিন্তু, বুঝলেন না শুধু পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ইমরান খান ম্যাচ শুরুর আগে একগুচ্ছ টুইটে পাকিস্তান দলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। এবং দিয়েছিলেন কিছু পরামর্শও। কিন্তু, সেসব না মেনে এক্কেবারে উলটোপথে হাঁটলেন সরফরাজ। যার ফল প্রথম ইনিংসে ভারতের স্কোর ৫ উইকেটে ৩৩৬ রান।

[আরও পড়ুন: অনবদ্য রেকর্ড রোহিত-কোহলির, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রানের পাহাড়ে ভারত]

কিন্তু, কী উপদেশ দিয়েছিলেন ইমরান? পাক প্রধানমন্ত্রী নিজের ক্রিকেট মস্তিষ্ককে কাজে লাগিয়ে সরফারজকে উপদেশ দিয়েছিলেন টস জিতলে প্রথমে ব্যাটিং করার। তিনি টুইটে বলেন, “পাকিস্তানকে জিততে গলে আগ্রাসী কৌশল নিতে হবে। আর সেজন্য যদি পিচ খুব খারাপ না হয় তাহলে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং নেওয়া উচিত সরফরাজের।” কিন্তু পাক অধিনায়ক করলেন ঠিক তাঁর উলটোটি। টসে জিতে প্রথমে নিলেন ফিল্ডিং। হয়তো, তিনি ভেবেছিলেন বৃষ্টির জন্য পেস বোলাররা অতিরিক্ত সুবিধা পাবেন। কিন্তু, সরফরাজের সেই সিদ্ধান্ত বুমেরাং হয়ে দাঁড়াল। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করল ভারত। প্রথম উইকেটের জুটিতেই ১৩৬ রান তুলে ফেলে ভারত। লোকেশ রাহুল ৫৭ রানে আউট হলও রোহিত অনবদ্য শতরান করেন। এরপর আবার কোহলি এসে পাক বোলারদের বেধড়ক পেটাতে থাকেন। যার ফলে নির্ধারিত পঞ্চাশ ওভারে ৩৩৬ রানের বিশাল স্কোর খাড়া করে ভারত। এ হেন চাপের ম্যাচে এই রান তোলাটা যে সহজ হবে না সেকথা বলাই যায়।

[আরও পড়ুন: ভারত-পাক ম্যাচে বিরল রেকর্ড গড়লেন ধোনি, বল হাতে শুরুতেই বিপাকে আমির]

এ তো গেল প্রথম উপদেশের কথা। আরও একটি পরামর্শ সরফরাজকে দিয়েছিলেন ইমরান খান। তিনি বলেছিলেন, চাপের মুখে ভাল খেলতে হলে বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান এবং বিশেষজ্ঞ বোলার বেশি নিতে হবে পাকিস্তানকে। কারণ, চাপের মুখে যে সব ক্রিকেটার কোনওটিরই বিশেষজ্ঞ নন, তাঁরা ভাল খেলতে পারেন না। প্রধানমন্ত্রীর সেই উপদেশও এদিন মানেননি সরফরাজ। বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান এবং বোলার খেলানোর পরিবর্তে দলে একগুচ্ছ অলরাউন্ডার নিয়ে নেন তিনি। বোলিংয়ে যারা চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়। সরফরাজের এই কাণ্ড দেখে এখন নেটিজেনরা হেসে লুটোপুটি খাচ্ছেন। তাঁরা চিন্তিত, এই ম্যাচ যদি পাকিস্তান হারে, তাহলে সরফরাজের কী গতি হতে পারে তা নিয়ে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং