Advertisement
Advertisement
ICC ODI World Cup 2023

ICC ODI World Cup 2023: জলে গেল রাচীনের শতরান, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৫ রানে হারাল অস্ট্রেলিয়া

দারুণ লড়েও হারল নিউজিল্যান্ড।

ICC ODI World Cup 2023: Australia beat New Zealand by 5 runs। Sangbad Pratidin

ট্রাভিস হেড ও ডেভিড ওয়ার্নারের জুটি ম্যাচে তফাৎ গড়ে দেয়। ছবি: টুইটার

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:October 28, 2023 6:30 pm
  • Updated:October 28, 2023 6:38 pm

অস্ট্রেলিয়া: ৩৮৮ (হেড ১০৯, ওয়ার্নার ৮১, ম্যাক্সওয়েল ৪১, ইংলিশ ৩৮, কামিন্স ৩৭, গ্লেন ফিলিপস ৩/৩৭, ট্রেন্ট বোল্ট ৩/৭৭)
নিউজিল্যান্ড: ৩৮৩/৯ (রাচীন রবীন্দ্র ১১৬, ড্যারিল মিচেল ৫৪, জাম্পা ৩/৭৪, হ্যাজেলউড ২/৭০, কামিন্স ২/৬৬)
অস্ট্রেলিয়া ৫ রানে জয়ী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেই তাঁর ব্যাট থেকে এসেছিল শতরান। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৯৬ বলে ১২৩ রানে অপরাজিত ছিলেন রাচীন রবীন্দ্র। আর এবার তাঁর ব্যাট থেকে এল ৮৯ বলে ১১৬ রান। ১৩০.৩৩ স্ট্রাইক রেট বজায় রেখে মেরেছিলেন ৯টি চার ও ৫টি ছক্কা। তবুও শেষরক্ষা হল না। ৪০.২ ওভারে প্যাট কামিন্সের বলে মার্নাস লাবুশানে ক্যাচটা ধরতেই কিউইদের জয়ের অনেক আশা শেষ হয়ে যায়। এর পর রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৫ রানে হারিয়ে অবশেষে স্বস্তি পেল অস্ট্রেলিয়া। টিম ইন্ডিয়ার কাছে হেরে যাওয়ার পর এবার অজিদের কাছেও হার মানল নিউজিল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত জিমি নিশাম ৩৯ বলে ৫৮ রান করে লড়লেও লাভ হল না। ৯ উইকেটে ৩৮৩ রানে আটকে গেল কিউইরা। 

Advertisement

দুই ওপেনার ডেভন কনওয়ে ও উইল ইয়ং আগ্রাসী মেজাজেই শুরুটা করেছিলেন। তবে ওপেনিং বেশিদূর এগিয়ে যেতে পারেনি। ৬১ রানে প্রথম উইকেট হারায় কিউইরা। এর পর ৭২ রানের মাথায় বিপক্ষকে জোড়া ধাক্কা দেন জশ হ্যাজেলউড। তবুও ড্যারিল মিচেলকে সঙ্গে নিয়ে পালটা লড়াই শুরু করেন রাচীন। মারকুটে মেজাজে তৃতীয় উইকেটে উঠে যায় ৯৬ রান। দেখে মনে হচ্ছিল কিউইদের ম্যাচে ফেরা সময়ের অপেক্ষা। ঠিক সেই সময় ড্যারিল মিচেলকে ফিরিয়ে দেন অ্যাডাম জাম্পা। ৫৪ রানে আউট হন ড্যারিল মিচেল। ফলে ১৬৮ রানে ৩ উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। 

Advertisement

এর পর আউট হওয়ার আগে পর্যন্ত পুরোটাই রাচীন রবীন্দ্র শো। তাঁর নামা রাখা হয়েছিল বিশ্ব ক্রিকেটের দুই সুপারস্টারের নাম থেকে! রাহুল দ্রাবিড়ের ‘রা’ এবং শচীন-এর ‘চীন’। দুই মিলিয়ে। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ট্রফি নিয়ে মাঠে ঢোকেন শচীন তেন্ডুলকর। যাঁকে এতদিন টেলিভিশনে দেখেছেন, খুব কাছ থেকে দেখার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে রবীন্দ্রর। ব্যাটিংয়ের সময় হয়তো এটাও ভাবছিলেন, শচীন তো দেখছেন! ইংল্যান্ডের পর এবার অজিদের বিরুদ্ধে শতরানের পর হয়তো মনে মনে সেটাই ভাবছিলেন ২৩ বছরের বাঁহাতি ব্যাটার। 

Rachin Ravindra
শতরানের পর ব্যাট দেখাচ্ছেন রাচীন রবীন্দ্র। ছবি: টুইটার

[আরও পড়ুন: চেয়ারম্যান-অধিনায়কের মধ্যে ঝামেলা তুঙ্গে, বাবরের মেসেজের উত্তর দিচ্ছেন না জাকা আশরফ!]

এবার আসা যাক তাঁর ‘গ্যালারি থেকে খিলাড়ি’ হয়ে ওঠা প্রসঙ্গে। ২০১৯ সালের ১৪ জুলাই। লর্ডসে বিশ্বকাপ ফাইনালে আয়োজক ইংল্যান্ডের মুখোমুখি নিউজিল্যান্ড। রাচীন রবীন্দ্র তখন বেঙ্গালুরুতে। ভারতের সঙ্গে তাঁর ‘কানেকশন’ বাবার সৌজন্যেই। বাবার ক্রিকেট ক্লাব সংক্রান্ত কাজেই ভারতে এসেছিলেন। ১৪ জুলাই রাতে বেঙ্গালুরুর একটি পানশালায় ‘তাঁর দেশ’ নিউজিল্যান্ডের ফাইনাল দেখছিলেন। রুদ্ধশ্বাস একটা ম্যাচ উপভোগ করছিলেন। কিন্তু শেষটা যে সুখের হয়নি! নির্ধারিত সময়ে ম্যাচ টাই। সুপার ওভারও টাই! বাউন্ডারি নিয়মে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড। ট্রফির এত কাছ থেকে ফিরে আসা কারই বা হজম হয়! উঠতি ক্রিকেটার রাচীন রবীন্দ্রর তখন স্বপ্ন ছিল, দেশের হয়ে তিনিও বিশ্বকাপ খেলবেন। সেই স্বপ্ন ইতিমধ্যেই পূর্ণ হয়েছে। তবে এবার আর তাঁর লড়াই যোগ্য সম্মান পেল না। কারণ তাঁর সঙ্গে আর কেউ সহযোগিতা করতে পারল কোথায়! 

টিম ইন্ডিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে হার দিয়ে অভিযান শুরু করলেও, অজি শিবির ছন্দে ফিরেছে। সেটা শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জেতার পরেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে কিউই বোলারদের ক্লাবস্তরে নামিয়ে আনল অজি ব্যাটাররা। ফলে স্কোরবোর্ডে উঠে যায় ৩৮৮ রান।

ICC ODI World Cup 2023: Travis Head becomes 5th Australia batter to score World Cup hundred on debut
শতরান করে এভাবেই সেলিব্রেশন করলেন ট্রাভিস হেড। ছবি: টুইটার

চোটের জন্য দেড় মাস মাঠের বাইরে ছিলেন ট্রাভিস হেড। স্বভাবতই বিশ্বকাপের শুরুর দিকে তাঁর সার্ভিস পায়নি অস্ট্রেলিয়া। তবুও হেডকে দেশে ফেরত পাঠাতে চাননি দলের অধিনায়ক। কেন তাঁকে দলের সঙ্গে রেখে দেওয়া হয়েছিল সেটা বুঝিয়ে দিলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। চলতি কাপ যুদ্ধের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই নিউজিল্যান্ডের বোলারদের বুঝে নিয়ে মাত্র ২৫ বলে ৫০ রান করেন। এবারের বিশ্বকাপের দ্রুততম অর্ধশতরান এটি। থামলেন ৬৭ বলে ১০৯ রানে। ১৬২.৬৮ স্ট্রাইক রেট বজায় রেখে মারলেন ১০টি চার ও ৭টি ছক্কা। একইসঙ্গে অজিদের মধ্যে পঞ্চম ব্যাটার হিসাবে বিশ্বকাপের অভিষেক ম্যাচেই শতরান করে নজির গড়লেন তিনি।

তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দিয়ে ৬৫ বলে ৮১ রান করলেন ডেভিড ওয়ার্নার। মারকুটে ইনিংসে ছিল ৫টি চার ও ৬টি ছক্কা। হেড এবং ওয়ার্নার প্রথম উইকেটে ১৭৫ রান তুলে দেন। ওয়ার্নারও ছিলেন চেনা মেজাজেই। নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে গত ম্যাচে শতরান করেছিলেন ওয়ার্নার। আর এবার প্রথমে অর্ধশতরান পূরণ করেন তিনিই। অস্ট্রেলিয়া শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন পার্টটাইম স্পিনার গ্লেন ফিলিপস। ওয়ার্নার তাঁর বলে তাঁর হাতেই ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। ওয়ার্নার ফিরে যাওয়ার পর হেড আরও আগ্রাসী মেজাজে রান তুলতে থাকেন। শেষ পর্যন্ত ১০৯ রানে ফিলিপসের বলে আউট হন তিনিও।

Adam Zampa
অ্যাডাম জাম্পাকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন সতীর্থরা। ছবি: টুইটার

মিচেল মার্শ ৫১ বলে ৩৬ রান করেন। কিন্তু স্টিভ স্মিথ (১৮) ও মার্নাস লাবুশেন (১৮) কেউই এদিন বড় রান পাননি। দুজনেই ১৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। তবে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল গত ম্যাচে যে ফর্মে ছিলেন, এদিনও সেভাবেই ব্যাটিং শুরু করেছিলেন। তবে ২৪ বলে ৪১ রান করেই থামে তাঁর ইনিংস। পাঁচটি বাউন্ডারি ও ২টি ছক্কা হাঁকান তিনি। শেষ দিকে জস ইংলিশ ও প্যাট কামিন্স মিলে দলের স্কোর সাড়ে তিনশোর গণ্ডি পার করিয়ে দেন। অজি অধিনায়ক মাত্র ১৪ বলে ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন। ২টো বাউন্ডারি ও ৪টি ছক্কা হাঁকান তিনি। কিউয়ি বোলারদের মধ্যে গ্লেন ফিলিপস ৩৭ রানে ৩ ও ট্রেন্ট বোল্ট ৭৭ রানে ৩ উইকেট নেন। ৮০ রানে ২ উইকেট নেন স্য়ান্টনার। এর পর রান চেজ করতে গিয়ে রাচীন রবীন্দ্র লড়াকু শতরান করলেও, শেষরক্ষা হল না। বোলারদের দাপটে ২ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ল অজিরা। 

[আরও পড়ুন: দুঃস্বপ্নের একানা স্টেডিয়ামে ফিরে আসার লড়াইয়ে নামছেন লোকেশ রাহুল, দেখুন ভাইরাল ভিডিও]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ