৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ভারত: ৫০২-৭ (মায়াঙ্ক ২১৫, রোহিত ১৭৬)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৩৯-৩ (এলগার ২৭, অশ্বিন ২-৯)

ভারত ৪৬৩ রানে এগিয়ে

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিনের শুরুটা দুর্দান্ত করেছিলেন ব্যাটসম্যানরা। শেষটা অনবদ্য করলেন দুই স্পিনার। সব মিলিয়ে বিশাখাপত্তনম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শেষে চালকের আসনে ভারত। দিনের শেষে প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর ৩ উইকেটে ৩৯ রান।

[আরও পড়ুন: টেস্টে প্রথম সেঞ্চুরি মায়াঙ্কের, রানের গড়ে ব্র্যাডম্যানকে টপকে গেলেন রোহিত]

দিনের শুরুটা এদিন দুর্দান্ত করেন গতকালের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা এবং ময়ঙ্ক আগরওয়াল। গতকাল ম্যাচের শেষের দিকে প্রায় ৩০ ওভার বৃষ্টিতে পণ্ড হয়ে যায়। তাই এদিন শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলেন রোহিত শর্মা। তৃতীয় ভারতীয় ওপেনিং জুটি হিসেবে ৩০০ রানের গণ্ডি পেরিয়ে যান তাঁরা। দলের মোট রান যখন ৩১৭, তখন আউট হন রোহিত। ততক্ষণে রোহিতের ব্যক্তিগত স্কোর ১৭৬। হিটম্যান দ্বিশতরানে না পৌঁছাতে পারলেও কেরিয়ারের প্রথম দ্বিশতরানটি করে ফেললেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। এদিন প্রথমে শতরান এবং পরে দ্বিশতরানের গণ্ডি পেরিয়ে যান মায়াঙ্ক। প্রথমবার একশো রানের গণ্ডি পেরিয়েই দ্বিশতরান করাটা অনবদ্য সাফল্য মায়াঙ্কের।
একই সঙ্গে আগরওয়াল ও রোহিত শর্মার জুটি ১১ বছর আগের শেহওয়াগ এবং দ্রাবিড়ের জুটির রেকর্ড ভেঙে দিল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ওই জুটিতে ২৬৮ রান করেছিল। রোহিত এবং আগরওয়ালের ৩১৭ রানের এই জুটিই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেরা জুটি। রোহিত-মায়াঙ্কের এই জুটি তৃতীয় ভারতীয় ওপেনিং জুটি হিসেবে ৩০০ রানের গণ্ডি পেরলো। এদিন আরও একটি রেকর্ড গড়ে ফেলেন দুই ব্যাটসম্যান। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম ওপেনিং জুটি হিসেবে দুই ব্যাটসম্যানই শতরানের মালিক হন।

[আরও পড়ুন: ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি থেকে ইস্তফা দিলেন কপিল, সমস্যা বাড়ল শাস্ত্রীর! ]

রোহিত এবং মায়াঙ্ক আউট হওয়ার পর অবশ্য সেভাবে দাগ কাটতে পারেননি আর কোনও ব্যাটসম্যান। শেষদিকে জাদেজা ৪৬ বলে ৩০ রানের ইনিংস খেলেন। ৭ উইকেটে ৫০২ রানের স্কোরে ইনিংস ঘোষণা করেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা জঘন্য হয় প্রোটিয়াদের। দিনের শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর ৩ উইকেটে ৩৯ রান। ভারতের হয়ে দুটি উইকেট পান অশ্বিন, একটি উইকেট দখল করেন জাদেজা। দুই স্পিনারের যুগলবন্দিতে আপাতত সংঘর্ষের মুখে পড়তে হয় প্রোটিয়াদের।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং