৪ আশ্বিন  ১৪২৬  রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়: বিরাট কোহলি আর ওর ছেলেরা মিলে নতুন ভাবে সব কিছু শুরু করতে যাচ্ছে। টি-টোয়েন্টি আর ওয়ানডে সিরিজের পর এটা নতুন করে শুরু করা শুধু নয়, একই সঙ্গে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতের অভিযান শুরু হয়ে যাওয়াও। যা কি না আইসিসি করছে টেস্ট ক্রিকেটে নতুন প্রতিদ্বন্দ্বিতা, উত্তেজনা যোগ করতে। টেস্ট ক্রিকেটকে কেন শ্রেষ্ঠ ফর্ম্যাট বলা হয়? অ্যাসেজকেই উদাহরণ হিসেবে দেখে নিন। সব ধোঁয়াশা পরিষ্কার হয়ে যাবে।

[আরও পড়ুন: টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে নতুন রূপে টিম ইন্ডিয়া, দল বাছাই নিয়ে ধন্দে বিরাট]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ এক সময় যে ক্রিকেটীয় শক্তি ছিল, বর্তমানে তা আর নেই। গত বিশ্বকাপ আর চলতি ভারত সিরিজ থেকেই সেটা পরিষ্কার। ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটে এখন পুনর্গঠন পর্ব চলছে। আর প্রচুর প্রতিভাও আছে টিমটায়। কিন্তু ব্রায়ান লারার সঙ্গে আমি সম্পূর্ণ একমত যে, প্রতিভা থাকলেই হবে না। পরিশ্রম করলেই হবে না। আসল হল একটা নির্দিষ্ট লক্ষ্য পূরণ করার মানসিকতা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ টিমটার প্রতিভা দেখলে উত্তেজনা হতে পারে। কিন্তু ঘরের মাঠে ভারতের বিরুদ্ধে ওরা কী ভাবে এগোয়, সেটা দেখতে হবে। ইংল্যান্ডকে ওরা টেস্টে চমকে দিয়েছিল। কিন্তু ওদের এবার প্রমাণ করতে হবে যে, সেটা ফ্লুক ছিল না।

ভারতের দিক থেকে ভাবলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল টিম কম্পোজিশন। অস্ট্রেলিয়া আর ইংল্যান্ডে গিয়ে টেস্টে যে খেলাটা খেলেছে ঋষভ পন্থ তাতে ঋদ্ধিমান সাহার নয়, পন্থেরই নামা উচিত। হার্দিক পান্ডিয়া না থাকায় রবীন্দ্র জাদেজার কাছে একটা সুযোগ। সেই ফাঁকা স্লটটা ভরতি করার সুযোগ। জাদেজা ব্যাট করতে পারে, দ্বিতীয় স্পিনারের কাজটাও করে দিতে পারবে। টিম ম্যানেজমেন্টও চাইবে, ওকে সেই ভূমিকায় দেখতে। ইশান্ত শর্মা আর জসপ্রীত বুমরার খেলা নিশ্চিত। তৃতীয় পেসার হিসেবে ভুবনেশ্বর কুমারের বদলে দেখতে চাইব মহম্মদ শামিকে। কারণ একটাই-টেস্ট ক্রিকেটে শামি ভুবনেশ্বরের চেয়ে অনেক ভাল। স্পেশ্যালিস্ট স্পিনার হিসেবে নেওয়া উচিত রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে। যা কি না জাদেজা-অশ্বিন পুরনো স্পিন জুটিকেও ফিরিয়ে আনবে।

[আরও পড়ুন: শাস্তি কমল শ্রীসন্থের, আগামী বছরই বাইশ গজে ফিরছেন পেসার]

তবে এ সব নয়। ভারতকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে সিদ্ধান্তটা নিতে হবে তা হল, রোহিত শর্মা না অজিঙ্ক রাহানে, কাকে খেলাবে? দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও একই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে দুর্ধর্ষ ফর্মে ছিল রোহিত। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া আর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট সিরিজে ওর পারফরম্যান্স ভাল-খারাপ মেশানো ছিল। রাহানে সেখানে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের শেষ টেস্টে ভাল একটা ইনিংস খেলেছিল। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ায় চেনা রাহানেকে পাওয়া যায়নি। আমার পরামর্শ, রোহিতকে ওপেনিংয়ে পাঠাও। বিশ্বকাপের আগুনে ব্যাটিং ফর্মকে এগিয়ে নিয়ে যাক ও। আর রাহানেকে রাখো মিডল অর্ডারে। যে পারবে স্থিরতা দিতে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং