১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শামি-বুমরাহর জ্বলে ওঠার দিনে চূড়ান্ত ব্যর্থ ব্যাটসম্যানরা, ৬ উইকেট খুইয়ে চাপে ভারত

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 1, 2020 12:14 pm|    Updated: March 1, 2020 12:28 pm

An Images

ভারত: ২৪২/১০ ও ৯০/৬ (পূজারা-২৪)
নিউজিল্যান্ড: ২৩৫/১০ (লাথাম-৫২, জেমিসন-৪৯)
দ্বিতীয় দিনের শেষে ৯৭ রানে এগিয়ে ভারত

দেবাশিস সেন, ক্রাইস্টচার্চ: টেস্ট ম্যাচই চলছে তো? নাকি সীমিত ওভারের খেলা! ক্রাইস্টচার্চের বাইশ গজে চোখ রাখলে ব্যাপারটা বোঝাই দায়। বোলাররা যেভাবে দাপট দেখাচ্ছেন, তাতে নাজেহাল পরিস্থিতি দুই পক্ষেই ব্যাটসম্যানদের। এককথায় ক্রাইস্টচার্চ শোয়ের নায়ক পেসার ও স্পিনাররাই।

নাহলে ভাবুন তো, একটি উইকেটও না খুইয়ে যেখানে ৬৩ রানে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছিল নিউজিল্যান্ড, সেখানে মাত্র ২৩৫ রানেই গুটিয়ে গেল তারা। লাথাম ও জেমিসন ছাড়া সেভাবে আর কাউকে ক্রিজে টিকতে দিল না ভারতীয় পেস ঝড়। নিন্দুকদের মুখে ছাই দিয়ে ফর্মে ফিরলেন বুমরাহ। তিনটি উইকেট নেন ভারতীয় পেসার। সফল মহম্মদ শামিও। তাঁর ঝুলিতে এল চারটি উইকেট। জাদেজা আবার যেমন জোড়া উইকেট নিলেন, তেমনই চিলের মতো ছোঁ মেরে ক্যাচ নিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন। অনবদ্য ক্যাচ নিয়ে ওয়াগনারকে প্যাভিলিয়নে ফেরা ভারতীয় স্পিনার। বোলিং ও ফিল্ডিংয়ের উন্নতির দিন ভারতীয় ব্যাটিং সেই অথৈ জলে।

[আরও পড়ুন: ফের বিতর্কে জড়ালেন পাণ্ডিয়া, বোর্ডের নিয়মভঙ্গ করে বিপাকে ভারতীয় অলরাউন্ডার]

বিপক্ষ ব্যাটিং লাইন আপে ধস নামিয়ে ভারতীয় পেসাররা বাজিমাত করলেন। ভারতের প্রথম ইনিংসের থেকে সাত রান কম থাকতেই রুখে দেওয়া গেল নিউজিল্যান্ডকে। এমন পরিস্থিতিতে বিরাট কোহলিদের ব্যাট ঝলসে উঠলে, সিরিজে সমতা ফিরে আসার আশা করাই যেত। কিন্তু দিনের শেষে তেমন আশা অনেকটাই ক্ষীণ। কারণ দ্বিতীয় ইনিংসে বাইশ গজে দাঁত ফোঁটাতে পারলেন না ব্যাটসম্যানটা। ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদিদের কাছে একপ্রকার আত্মসমর্পণই করে দিলেন কোহলিরা। আর যাই হোক, এক নম্বর টেস্ট দলের এমন ব্যাটিং দেখলে হতাশ হতেই হয়।

ঘণ্টা তিনেকের মধ্যেই ছ-ছ’টা উইকেট খুইয়ে বেশ চাপে ভারত। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান ২৪। এল পূজারার ব্যাটে। প্রথম ইনিংসে রান পেলেও এদিন ১৪ রানেই আউট পৃথ্বী শ। আরেক ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে তো গোটা সিরিজে সেই আগের ফর্মে পাওয়াই গেল না। আর বিরাট কোহলি কোথায় যেন হারিয়ে যাচ্ছেন। রানের খরা ক্রমেই দীর্ঘায়িত হচ্ছে তাঁর। আপাতত ক্রিজে হনুমা বিহারী এবং ঋষভ পন্থ। তাঁরা ঘুরে দাঁড়াতে না পারলে সে শামি-বুমরাহকেই পড়তে হবে অগ্নিপরীক্ষার সামনে। 

[আরও পড়ুন: আর কত সুযোগ চাই? টেস্টে লাগাতার ব্যর্থ পন্থকে তুলোধোনা নেটিজেনদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement