২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আশঙ্কা ছিলই। আর সেই আশঙ্কাকে সত্যি করেই বাতিল হয়ে গেল ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম টি-টোয়েন্টি। ধরমশালায় লাগাতার বৃষ্টির জেরে মাঠে বল গড়ানোর আগেই ভেস্তে গেল ম্যাচ।

রবিবার প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি শুরু হওয়ার কথা ছিল সন্ধে সাতটায়। তার আগে এদিন দুপুর থেকেই বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি শুরু হয় ধরমশালায়। হাওয়া অফিস জানিয়েছিল, দিনভরই চলবে বৃষ্টি। সেই সম্ভাবনাই সত্যি হয়। বৃষ্টির কারণে প্রথমে পিছিয়ে যায় টসের সময়। কিন্তু বৃষ্টি থামার নামই নিচ্ছিল না। অবশেষে সন্ধে পৌনে আটটা নাগাদ আম্পায়াররা মাঠ পর্যবেক্ষণের পর জানিয়ে দেন, এদিন আর খেলা সম্ভব নয়। ফলে তিন ম্যাচের সিরিজে প্রথমেই পয়েন্ট ভাগ করে নিতে হল ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

[আরও পড়ুন: দুর্বল রেনবোর বিরুদ্ধে কষ্টার্জিত জয় মোহনবাগানের, জমজমাট লিগের লড়াই]

শনিবারও টানা বৃষ্টি হয় ধরমশালায়। যার জেরে সর্বক্ষণই পিচ ঢাকা ছিল। বৃষ্টির জন্য মাঠে প্র্যাকটিসও করতে পারেননি কোহলিরা। ইন্ডোরেই চলে অনুশীলন। যদিও বৃষ্টি শুরুর আগেই প্র্যাকটিস সেরে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা দল। তবে পাহাড়ের কোলে ধরমশালা স্টেডিয়ামে রয়েছে উন্নত জলনিকাশী ব্যবস্থা। ফলে বৃষ্টি থেমে গেলে মাঠ শুকনো করে ম্যাচ শুরু করতে বিশেষ সময় লাগত না। সর্বশেষ পাঁচ ওভার করেও হতে পারত ম্যাচ। কিন্তু এমন ভারী বর্ষণ যে সহজে থামার নয়, তা ভালই বুঝতে পারেন আম্পায়াররা। লাগাতার বৃষ্টির কারণে ম্যাচ বাতিল ঘোষণার আগেই গ্যালারি ছেড়ে বেরতে শুরু করে দিয়েছিলেন দর্শকরাও। ভারতের পরের ম্যাচ ১৮ সেপ্টেম্বর চণ্ডীগড়ে। সেখান থেকেই নতুন করে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় আয়োজিত হতে চলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করবে কোহলির টিম ইন্ডিয়া।

[আরও পড়ুন: কেন ধোনিকে নিয়ে আবেগঘন পোস্ট করেছিলেন? অবশেষে মুখ খুললেন কোহলি]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং