৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo ফিরে দেখা ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২০৭/৫ (হেটমেয়ার-৫৬, পোলার্ড-৩৭)
ভারত: ২০৯/৪ (রাহুল-৬২, কোহলি-৯৪*)
ছয় উইকেটে জয়ী ভারত

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলিশের এনকাউন্টারে মৃত্যু হয়েছে ধর্ষণ ও খুনে অভিযুক্ত চারজনের। হায়দরাবাদের আকাশ থেকে কেটেছে গুমোট ভাব। যেন স্বস্তি ফিরেছে শহরবাসীর মনে। তরুণী পশু চিকিৎসকের গণধর্ষণ কাণ্ডে উচিত শিক্ষা পেয়েছে অভিযুক্তরা। এমন স্লোগান তুলেই পুলিশের জয়গান গাইছে আমজনতা। মাঠের বাইরের পরিস্থিতিটা যখন এমন, তখন মাঠে দিনের শেষে স্টেডিয়ামে হাজির দর্শকদের মুখেও ফুটল হাসি। শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজের শুভ সূচনা করল কোহলি অ্যান্ড কোং।

ভারতে এসে ভারতকে হারানোর মজাই আলাদা। পোলার্ডের এমন মন্তব্য দিয়েই তৈরি হয়েছিল টি-টোয়েস্টি সিরিজের টিজার। মনের সেই ইচ্ছাপূরণের আপ্রাণ চেষ্টাও করেছিলেন তিনি। ম্যাচের শেষ লগ্নে শ্রেয়াসকে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপে ধাক্কাও দিয়েছিলেন। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। বলা ভাল, ব্যাট হাতে একজন তা হতে দিলেন না। তিনি বিরাট কোহলি। যাঁর নামের সঙ্গে সমর্থক হয়ে গিয়েছে রেকর্ড। টি-টোয়েন্টিতে রান প্রাপকের তালিকায় শীর্ষস্থানটিতে অন্য কাউকে আর বসতে না দেওয়ার যেন পন করেছেন তিনি। একের পর এক ম্যাচে নতুন নতুন রেকর্ড গড়ে বুঝিয়ে দিচ্ছেন, তিনিই সেরা। তাঁকে ধরা কারও সাধ্য নয়। কী অসামান্য ব্যাটিং দক্ষতায় পাহাড় প্রমাণ রান তাড়া করে দলকে জয়ের স্বাদ উপভোগ করালেন। তাও আবার আট বল বাকি থাকতেই। হাফ-সেঞ্চুরি করেছিলেন ৩৬ বলে। আর বাকি ৪৪ রান করলেন মাত্র ১৪ বলে। মাত্র ছ’রানের জন্য সেঞ্চুরিটা অধরা থেকে গেল ক্যাপ্টেনের। 

[আরও পড়ুন: আইপিএলে নয়া চমক, এবার এই দলের মালিকানা স্বত্ত্ব কিনছেন গম্ভীর]

এদিন যদিও রোহিত শর্মাকে (৮) শুরুতেই আউট করে চমক দিয়েছিলেন ক্যারিবিয়ানরা। কিন্তু অন্য ওপেনার লোকেশ রাহুলের দাপুটে ইনিংস সহজে রোখা গেল না। টি-টোয়েন্টিতে সপ্তম ভারতীয় হিসেবে দশ হাজার রানের মালিক হয়ে গেলেন তিনি। তবে আরও একবার ব্যর্থ ঋষভ পন্থ (১৮)। এভাবে লাগাতার সুযোগ হাতছাড়া তাঁর কেরিয়ারের জন্য মাথা ব্যথার কারণ হতেই পারে।

এদিন প্রথমে ব্যাট করে ওপেনার হিসেবে এভিন লুইস ৪০ রান করে ভিতটা ভাল তৈরি করে দিয়েছিলেন। যার উপর দাঁড়িয়ে দুর্দান্ত পারফর্ম করেন হেটমেয়ার, পোলার্ডরা। হাত ঘুরিয়ে জোড়া উইকেট নিয়ে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের রেকর্ড ছুঁলেন যুজবেন্দ্র চাহাল। টি-টোয়েন্টি যুগ্মভাবে এখন ৫২টি উইকেটের মালিক তিনি। এত বড় রান তাড়া করে জয়টা মুখের কথা ছিল না। কিন্তু বিরাট রাজত্বে দাপুটে কিং কোহলির কাছে অসম্ভব কিছুই নয়। তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল টিম ইন্ডিয়া। 

[আরও পড়ুন: হায়দরাবাদ পুলিশের সাহসিকতাকে কুর্নিশ সাইনা-ভাজ্জির, ‘গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন’ তুললেন গুট্টা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং