২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএলে বিশেষজ্ঞ হিসেবেই দেখা গিয়েছে তাঁকে। তবে এবার প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে আসন্ন ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) খেলতে দেখা যেতে পারে ইরফান পাঠানকে। চলতি বছর ৪ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে সিপিএল। সেখানেই প্লেয়ার্স ড্রাফ্টে নাম রয়েছে ইরফানের।

[আরও পড়ুন: বিজ্ঞাপনে ব়্যাপ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষের শিকার কোহলি-ঋষভ]

প্লেয়ার্স ড্রাফ্টে নাম থাকার অর্থ ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের যে কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনে নিতে পারে ভারতের এককালের অন্যতম সেরা পেসারকে। তেমনটা হলে ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে নজির গড়বেন পাঠান। কারণ এর আগে কোনও ভারতীয় তারকা বিদেশের কোনও টি-টোয়েন্টি লিগে খেলেননি। সিপিএলের সরকারি ওয়েবসাইট অনুযায়ী, আসন্ন মরশুমের জন্য বিশ্বের মোট ২০টি দেশের ৫৩৬ জন ক্রিকেটারের নাম ড্রাফ্টের তালিকাভুক্ত হয়েছে। আর এতেই স্পষ্ট, এই টুর্নামেন্টে খেলতে আগ্রহী প্রায় সমস্ত ক্রিকেট খেলীয় দেশগুলিই। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, বিগ ব্যাশের মতোই জনপ্রিয় এই টুর্নামেন্ট। তাই এখানে ভাল পারফর্ম করতে মুখিয়ে থাকেন তারকারা। সিপিএল টুর্নামেন্টের অপারেশনস ডিরেক্টর মাইকেল হল বলেন, “আশা করছি, এবার ক্যারিবিয়ান লিগ একটু অন্যরকম হবে।”

Irfan

ইরফানের পাশাপাশি এবারের ড্রাফ্টে নাম রয়েছে অ্যালেক্স হেলস, রশিদ খান, শাকিব আল হাসান, জেপি ডুমিনির মতো বিদেশি তারকাদেরও। আর ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারদের মধ্যে রয়েছেন আন্দ্রে রাসেল, সুনীল নারিন, শাই হোপ, সিমরন হেটমেয়াররা। লিগের নিয়ম অনুযায়ী, প্রতিটি দলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কমপক্ষে তিনজন এবং সর্বোচ্চ চারজন ক্রিকেটারকে রেখে দেওয়া যেতে পারে। চারজনকে রেখে দেওয়া হলে বিদেশি প্লেয়ার রাখা যাবে না। তিনজন থাকলে একজন বিদেশি তারকা রাখা যেতে পারে। একজন মার্কি প্লেয়ারকে কিনতে বা রেখে দিতে পারে ফ্র্যাঞ্চাইজি। গত সিপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। এবার দেখার ইরফানের গায়ে কোনও দলের জার্সি ওঠে কি না।

[আরও পড়ুন: শৃঙ্গজয়ের নেশা প্রাণ কাড়ল আরও এক পর্বতারোহীর, এখনও নিখোঁজ ১ বাঙালি]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং