৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

OMG! ম্যাচ চলাকালীনই রাহুলের কাছে ক্ষমা চাইলেন ম্যাক্সওয়েল, কিন্তু কেন?

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 28, 2020 2:09 pm|    Updated: November 28, 2020 2:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাঁর থেকে প্রত্যাশা ছিল অনেকখানি। তাঁর কাঁধে ভর দিয়ে এগিয়ে যাবে দল। আইপিএলে এমনটাই আশা করেছিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। অধিনায়ক কেএল রাহুলও অনেকটা নির্ভরশীল ছিলেন তাঁর উপর। কিন্তু আমিরশাহীতে চূড়ান্ত নিরাশ করেছেন তিনি। কথা হচ্ছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। প্রীতির দলের সেই ব্যর্থ তারকাই দেশের জার্সি গায়ে জ্বলে উঠলেন। তাই তো দুরন্ত ব্যাটিংয়ের সময়ই ক্ষমা চেয়ে নেন রাহুলের (KL Rahul) কাছে।

শুক্রবার মাত্র ১৯ বলে দুর্দান্ত ৪৫ রানের ইনিংস খেললেন অজি অলরাউন্ডার। স্মিথ-ফিঞ্চের মতোই দলকে বিরাট রানে পৌঁছে দিতে অন্যতম ভূমিকা নেন তিনিও। ফলস্বরূপ, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডে-তে ৬৬ রানে হারায় সিরিজে ১-০ পিছিয়ে পড়ল টিম ইন্ডিয়া (Team India)। আর ম্যাচের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর চর্চা শুরু হয়ে যায় কেএল রাহুলকে নিয়ে। অনেকেই বলতে থাকেন, এদিন ম্যাক্সওয়েলের পারফরম্যান্স দেখে নিঃসন্দেহে সবচেয়ে দুঃখ ভারতীয় উইকেটকিপারেরই হয়েছে। কারণ পাঞ্জাবের জার্সিতে চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়েছিলেন অজি তারকা। ১১টি ইনিংসে করেন মোটে ১০৮ রান। তোলেন দুটি উইকেট। অথচ তাঁদের বিরুদ্ধে কী মারকাটারি পারফর্ম করলেন। নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে মজার মজার মিমও। যা শেয়ার না করে থাকতে পারেননি কিউয়ি তারকা জিমি নিসাম (Jimmy Neesham)। একটি মিম শেয়ার করে লিখেছেন, “সত্যিই এটা দারুণ, হা হা।” আর সেই পোস্টেই কমেন্ট করেছেন খোদ ম্যাক্সওয়েল। রাহুলের সঙ্গে তাঁর নামও ট্রেন্ডিং শীর্ষে দেখে ম্যাক্সওয়েল মজা করে লেখেন, “ম্যাচ চলাকালীনই আমি রাহুলের থেকে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি।”

[আরও পড়ুন: নিউজিল্যান্ডে করোনা আক্রান্ত আরও এক পাক ক্রিকেটার, সিরিজ ঘিরে ঘোর অনিশ্চয়তা]

রাহুলের পাঞ্জাবের হয়ে এবার ব্যর্থ হয়েছিলেন অলরাউন্ডার নিসামও। ৩টি ইনিংসে তাঁর সংগ্রহ মাত্র ১৯ রান। উইকেট নেন তিনটি। কিন্তু দেশের হয়ে মাঠে নেমেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টিতে দারুণ পারফর্ম করেন। ২৪ বলে ৪৮ রান করেন। জেতে নিউজিল্যান্ড।

তবে শুধু পাঞ্জাব নয়, রাজস্থানের হয়ে স্টিভ স্মিথ, আরসিবির হয়ে অ্যারন ফিঞ্চও এবারের আইপিএলে নজর কাড়তে ব্যর্থ হয়েছিলেন। কিন্তু জাতীয় দলের হয়ে দুজনই হাঁকালেন সেঞ্চুরি। জেতালেন দলকে। ‘এ ব্যথা কী যে ব্যথা’, পাঞ্জাব, রাজস্থান কিংবা ব্যাঙ্গালোরই বোঝে!

[আরও পড়ুন: আইএসএলের দু’ম্যাচে জোড়া রেকর্ড রয় কৃষ্ণর, ম্যাচ জিতেই সমর্থকদের জানালেন ধন্যবাদ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement