Advertisement
Advertisement
INDW vs AUSW

অজিদের বিরুদ্ধে আগ্রাসী বোলিং, ঝুলনের কাছ থেকে কী পরামর্শ পেলেন তিতাস?

কম সময়েই নিজেকে প্রমাণ করলেন তিতাস।

INDW vs AUSW: Jhulan Goswami’s advice worked wonders for young Titas Sadhu। Sangbad Pratidin

তিতাসের আগুনে পেসে উড়ে গেল অস্ট্রেলিয়া। ছবি: এক্স হ্যান্ডেল

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:January 6, 2024 1:58 pm
  • Updated:January 6, 2024 1:58 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের মহিলা দলের (India Womens Cricket Team) জার্সি গায়ে চাপিয়ে মাত্র পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের অভিজ্ঞতা। তব এত কম সময়েই নিজের জাত চিনিয়ে দিলেন তিতাস সাধু (Titas Sadhu)। অস্ট্রেলিয়ার মহিলা দলের (Australia Womens Cricket Team) বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মাত্র ১৭ রানে ৪ উইকেট নিলেন বঙ্গ তরুণী। আগুনে বোলিংয়ের জন্য হয়েছেন ম্যাচের সেরা। আর এর পরেই ম্যাচের শেষে স্মৃতি মান্ধানার (Smriti Mandhana) সঙ্গে আড্ডা মেতেছিলেন ডানহাতি জোরে বোলার। তবে চমকের আরও বাকি ছিল। কারণ সেই আড্ডায় ভিডিও কলে যোগ দিয়েছিলেন ঝুলন গোস্বামী (Jhulan Goswami)। সেই আড্ডায় প্রিয় ঝুলু দি-র কাছ থেকে মূল্যবান পরামর্শ পেলেন ১৯ বছরের তিতাস।

তিতাস বলেন, “উইকেট পাটা ছিল। বল করা খুব সহজ ছিল না। কিন্তু ভালো ভাবে ম্যাচ শেষ করতে পেরেছি। এর আগের ৪টে ম্যাচ বেঞ্চে বসে কাটাতে হয়েছে। একটা টেস্ট ও ৩টে ওডিআই। সেটাই মনে হয় আমাকে তাতিয়েছে।” এর পরই স্মৃতি বাংলার মেয়ে তিতাসকে বলেন, ঝুলনকে ভিডিও কল করার জন্য। ঝুলনকে ভিডিও কলে তিতাসকে প্রশংসায় ভরিয়ে দেন। তাঁর কথায়, “আজ ওর বোলিং বেশ উপভোগ করেছি। কট অ্যান্ড বোল্ডটা বিশেষ উপভোগ করেছি।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: মৃত্যুর তিন বছর পর স্বস্তি পেলেন মারাদোনা, কিন্তু কীভাবে?]

 

Advertisement

এর পর স্মৃতি প্রশ্ন করেন ঝুলনকে যে তিনি তিতাসকে কোনও পরিকল্পনা দিয়েছিলেন কিনা। উত্তরে ঝুলন বলেন, “ওকে আমার প্ল্যান দেওয়ার দরকার। আশা করি এই ফর্ম ধরে রাখবে ও আগামী ম্যাচগুলিতে।” তিতাস জানান, তাঁর প্রিয় ঝুলুদির সঙ্গে আলাপ ১৩ বছর বয়সে। প্রথম থেকেই ঝুলন তাঁকে একটি পরামর্শ দিয়েছিলেন, যা আজও মেনে চলেন তিনি। ঝুলন তাঁকে বলেছিলেন, “তুমি যেহেতু জোরে বোলার, তাই সবসময় জোরে বল করবে।”

অজিদের ৯ উইকেটে হারিয়ে দিলেও, হরমনপ্রীত কৌর তাঁর দলের নবাগতা পেসারকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন। তিনি ম্যাচের শেষে বলেন, “এই জয়ের জন্য আমাদের হেড কোচকেও কৃতিত্ব দিতে হবে। আমরা প্রায় তৃতীয় স্পিনার নিয়ে খেলা ঠিক করে ফেলেছিলাম। একেবারে শেষ মুহূর্তে আমরা একজন অতিরিক্ত সিমার খেলানোর সিদ্ধান্ত নিই। আমরা তিতাসকে পূর্ণ সমর্থন দিয়েছি। এই সিদ্ধান্তের ফল হাতে পেলাম।”

ওয়ান অফ টেস্টে অজিদের হারালেও, একদিনের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হজম করেছে ভারত। যদিও প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৯ উইকেটে জয় পেয়েছেন শেফালি বার্মা-জেমাইমা রড্রিগেজরা। এমন প্রেক্ষাপটে রবিবার, ৭ ডিসেম্বর দ্বিতীয় ২০ ওভারের ম্যাচ খেলতে নামবে প্রমিলাবাহিনী। মঙ্গলবার, ৯ ডিসেম্বর সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টি আয়োজিত হবে।

[আরও পড়ুন: এমনটাও সম্ভব! মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে রনজি খেলতে বিহারের দুই দল! লেগে গেল হাতাহাতি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ