২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও ধোনির পাশে ফ্লেমিং, দিল্লির বিরুদ্ধে আজ চেন্নাইয়ের শক্তি ডুপ্লেসিস

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 25, 2020 2:11 pm|    Updated: September 25, 2020 2:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে নিজেকে ব্যাটিং অর্ডারে অনেক নিচে নামিয়ে আনার কারণে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন চেন্নাই সুপার কিংস (CSK) অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির (MS Dhoni)। শুধু তাই নয়, ২১৬ রান তাড়া করতে নেমে কেন তিনি অত মন্থর ব্যাটিং করছিলেন, সেটাও অনেকের বোধগম্য হয়নি। কিন্তু তাতে কী? টিমের অধিনায়কের পাশে সর্বাত্মকভাবে দাঁড়িয়ে গেলেন সিএসকে কোচ স্টিফেন ফ্লেমিং। পরিষ্কার বলে দেন, আইপিএল যত এগোবে, তত ভয়ংকর হবেন ধোনি।

“একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে। গত দেড় বছরে এমএস খুব বেশি ক্রিকেট খেলেনি। মুশকিলটা হল, সবাই ভাবে এমএস মাঠে নেমে ঠিক সেই সেই কাজগুলো করতে থাকবে, যা এতদিন ওকে করতে দেখা যেত। কিন্তু ওভাবে তো হয় না। সব কিছুর জন্যই সময় লাগে,” দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে নামার ২৪ ঘণ্টা আগে বলে দিয়েছেন ফ্লেমিং। রাজস্থানের বিরুদ্ধে ধোনি নামেন যখন, সিএসকের জেতার জন্য ৩৮ বলে প্রয়োজন ছিল ১০৩ রান। যার পরপরই বলাবলি শুরু হয়ে যায়, কোন যুক্তিতে নিজেকে ব্যাটিং অর্ডারে এত পিছিয়ে আনলেন ধোনি? শুধু তাই নয়, ধোনি নেমে চেষ্টা করছিলেন সিঙ্গল নিয়ে উলটোদিকে চলে যেতে। যা আরও সমালোচনার জন্ম দেয়। “বললাম তো, রাতারাতি পুরনো এমএসকে দেখতে পাওয়া সম্ভব নয়। সবকিছুর জন্য একটা সময় প্রয়োজন। আইপিএল ম্যাচ যে গতিতে চলে, তার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া একটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। সেখানে রাজস্থানের বিরুদ্ধে ম্যাচে প্রথম বার নেমেছিল এমএস। এত সহজ নাকি নেমেই আইপিএলের গেমটাইমের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া?” পালটা প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন ফ্লেমিং।

[আরও পড়ুন: জঘন্য ফিল্ডিংয়ের খেসারত দিল আরসিবি, কোহলিদের বিরুদ্ধে বিরাট জয় পাঞ্জাবের]

সঙ্গে জুড়ে দেন, “মিলিয়ে নেবেন আপনারা। যত সময় যাবে, ধোনি টুর্নামেন্টে তত ভয়ংকর হবে। তবে এখন ওর কাছে ৩০ বলে ৭০ রান কেউ যদি আশা করেন, সেটা ভুল হবে। সেটার জন্য আমাদের প্লেয়ার তো আছে। তারা করবে। কোন ক্রিকেটার কী করতে পারবে, সেটা সবার আগে বোঝা উচিত,” বলে দিয়েছেন ফ্লেমিং।

চেন্নাই কোচকে জিজ্ঞাসা করা হয়, টিমের পেসার লুঙ্গি এনগিডির মানসিক অবস্থা এখন ঠিক কীরকম? কারণ রাজস্থান ম্যাচে তাঁকে শেষ ওভারে চারটে ছয় মেরে দেন রাজস্থানের ইংরেজ পেসার হোফ্রা আর্চার। জবাবে ফ্লেমিং বলেন, “নিঃসন্দেহে এনগিডির আত্মবিশ্বাসের উপর এটা একটা বড় আঘাত। কিন্তু সেই নিয়ে পড়ে থাকলে চলবে না। ওকে বিশ্বাস জোগাতে হবে। বলতে হবে, কোথায় ভুলটা হয়েছিল? এবং ঠিক কী কী করলে এনগিডি আরও ভাল ভাবে ফিরতে পারবে।”

[আরও পড়ুন: KKR-এর এই তারকাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ পোস্ট শচীনকন্যা সারার, ব্যাপারটা কী!]

এদিকে, জয়ের স্বাদ পেয়ে এবারের আইপিএল শুরু করেছে দিল্লি (DC)। তবে আজ লড়াইটা কঠিন। কারণ আইপিএল ইতিহাসে চেন্নাইয়ের সঙ্গে ২১বারের সাক্ষাতে ১৫বারই জয়ী ধোনিরা। ৬বার জিতেছে দিল্লি। তার উপর চোট লাগা অশ্বিনের খেলা নিয়ে এখনও অনিশ্চয়তা কাটেনি। শেষমেশ তিনি একান্তেই না পারলে দলে জায়গা পেতে পারেন অমিত মিশ্র। শ্রেয়সের দলের শক্তি বলতে গত ম্যাচের সেরা মার্কাস স্টয়নিস। কিন্তু চেন্নাইয়ের জার্সিতে দুরন্ত ফর্মে থাকা ফ্যাফ ডুপ্লেসিসকে নিয়ে চিন্তায় থাকছে মহম্মদ কাইফদের শিবির।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement