১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লকডাউনে ফের ত্রাতার ভূমিকায় লক্ষ্মীরতন, ১০০ শ্রমিক পরিবারকে ঘরে ফেরালেন মন্ত্রী

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 19, 2020 1:41 pm|    Updated: May 19, 2020 1:41 pm

Laxmi Ratan Shukla sent 100 migrant family home

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমে ময়দানের মালিদের খাদ্যসামগ্রীর বন্দোবস্ত করা। তারপর দেশজুড়ে লকডাউনে অর্থাভাবে পড়া ক্রিকেটারদের যাবতীয় সাহায্য। করোনা সময় বেশ কয়েক বার পরিত্রাতার ভূমিকায় দেখা গিয়েছে প্রাক্তন বাংলা অধিনায়ক তথা রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লাকে। এবার তিনি ফের এগিয়ে এলেন। লকডাউনে আটকে পড়া ভিনরাজ্যের একশো শ্রমিক পরিবারকে নিজ রাজ্যে ফেরত পাঠালেন লক্ষ্মী। আর সেটাও নিজের খরচে।

সোমবার দু’টো বড় লরি ভাড়া করে প্রায় একশো শ্রমিক পরিবারের বাড়ি ফেরার বন্দোবস্ত করে দেন প্রাক্তন বাংলা অধিনায়ক। পরে যোগাযোগ করায় লক্ষ্মী বলছিলেন, “পায়ে হেঁটে শ্রমিকরা বাড়ি ফিরছেন, এটা মেনে নেওয়া যায় না। বাংলা চিরকালের আবেগের জায়গা। আমি জানতে পেরেছিলাম, এঁরা সবাই আটকে আছেন। তাই ফেরার বন্দোবস্ত করে দিলাম। এটা আমার কর্তব্য ছিল।”

[আরও পড়ুন: লকডাউনে সমস্যায় ‘ডায়পার কিড’-এর পরিবার, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন লক্ষ্মীরতন]

ইতিমধ্যেই তিন মাসের বেতন এবং বিসিসিআই থেকে পাওয়া পেনশন রাজ্য সরকারের খাতে অনুদান হিসেবে দিয়েছেন বাংলার প্রাক্তন ক্রিকেটার লক্ষ্মীরতন। কিছুদিন আগে কলকাতার বিস্ময় বালক ‘ডায়পার কিড’ শেখ শাহিদ ও তার পরিবারকেও প্রাণ খুলে সাহায্য করেন তিনি। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে লক্ষ্মীরতনের থেকে দ্রুত সাহায্য পেয়ে আপ্লুত ও ধন্য শেখ শাহিদের বাবা সামশের। বললেন, “আমাদের এই পরিস্থিতিতে তিনি যেভাবে এগিয়ে এলেন, তাতে আমরা কৃতজ্ঞ।”

ভ্যান রিকশায় করে সমস্ত খাদ্যসামগ্রী, সবজি ইত্যাদি পৌঁছে দেওয়া হয় শাহিদের বেহালার বাড়িতে। লক্ষ্মীরতন জানান, শাহিদের পরিবারের মতোই যদি আরও কেউ এধরনের সমস্যায় পড়েন, তবে তাঁরা যেন অবশ্যই স্থানীয় থানায় খবর দেন। রাজ্য সরকার সেসব বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়ার যথাসাধ্য চেষ্টা করবে।

[আরও পড়ুন: দুস্থদের পাশে দাঁড়াতে মানবিক উদ্যোগ, শখের ব্রেসলেট ৪২ লক্ষ টাকায় নিলাম মাশরাফির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে