BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাটল নির্বাসন, মাঠে ফিরতে আর বাধা রইল না শ্রীসন্থের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 13, 2020 3:54 pm|    Updated: September 13, 2020 3:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। অবশেষে শেষ হল শান্তাকুমারন শ্রীসন্থের (Sreesanth) সাত বছরের নির্বাসন। এর আগে IPL-এ স্পট ফিক্সিং (Spot Fixing) করে, ২০১৩ সালে ক্রিকেট থেকে নির্বাসনের মুখে পড়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার শ্রীসন্থ। রবিবার শেষ হল তারই মেয়াদ। ফলে বাইশ গজে ফিরতে আর কোনও বাধা রইল না তাঁর।
এই প্রসঙ্গে শ্রীসন্থ জানান, ‘‌‘‌এই দিনটির জন্যেই দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করেছি। আমার পুরো পরিবারের কাছেই আজ স্বস্তির দিন। শাস্তি থেকে মুক্তি পেলাম। নিজেকে আজ স্বাধীন মনে হচ্ছে। ক্রিকেট মাঠে ফিরতে পারা নিয়ে কোনও বাধা রইল না, এটা ভেবেই দারুণ স্বস্তি ও উচ্ছ্বসিত।’‌’‌

[আরও পড়ুন:‌ ‘অনেক দিন দেখা নেই, ‌মেয়েকে খুব মিস করছি’, আইপিএল শুরুর আগে মন খারাপ শামির]

এর আগে ২০১৩ সালে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে রাজস্থান রয়্যালস (Rajasthan Royals) দলে শ্রীসন্থ এবং আরও দুই সতীর্থকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। এই ঘটনার জেরে শ্রীসন্থকে আজীবন ক্রিকেট থেকে নির্বাসন করেছিল বিসিসিআই। এরপর এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শ্রীসন্থে আইনি লড়াই শুরু করেন। ২০১৫ সালে দিল্লি আদালত এরপর তাঁকে ‘‌নির্দোষ’‌ ঘোষণা করে। এরপর ২০১৮ সালে কেরল হাই কোর্ট বিসিসিআইকে আজীবন নির্বাসনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেয়। পরের বছর একই মামলায় সুপ্রিম কোর্ট শ্রীসন্থকে ‘‌দোষী’‌ চিহ্নিত করলেও BCCI-কে  শাস্তি কমানোর জন্য নির্দেশ দেয়। আর শীর্ষ আদালতের নির্দেশেই শ্রীসন্থের শাস্তির মেয়াদ কমে সাত বছরে নেমে আসে।

[আরও পড়ুন:‌ ইউএস ওপেনে জাপানি ঝড়! আজারেঙ্কাকে হারিয়ে দ্বিতীয়বার খেতাব জয় নাওমি ওসাকার]

ইতিমধ্যে ৩৭ বছরের ক্রিকেটার ট্রেনিংও শুরু করে দিয়েছেন। তাঁকে দলে নিতে চাইছে কেরল (Kerala) রঞ্জি দলও। তবে করোনার কারণে চলতি মরশুমে আর হয়তো মাঠে নামতে পারবেন না তিনি। কারণ বর্তমান পরিস্থিতিতে বোর্ড ঘরোয়া মরশুম শুরু করে ক্রিকেটারদের নিয়ে কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement