BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ওয়ানডে’র পর টেস্ট সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ, লজ্জার হার থেকে শিক্ষা নিতে চান বিরাট

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 2, 2020 9:02 am|    Updated: March 2, 2020 9:12 am

New Zealand beats India by 7 wickets in 2nd match to clinch test series

ভারত: ২৪২/১০ ও ১২৪/১০ (পূজারা-২৪, জাদেজা-১৬*)
নিউজিল্যান্ড: ২৩৫/১০ ও ১৩২/৩ (লাথাম-৫২, ব্লান্ডেল-৫৫)
৭ উইকেটে জয়ী নিউজিল্যান্ড

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টেস্টে তিনশো রানের রেকর্ড গড়া মায়াঙ্ক আগরওয়াল। ঘরোয়া ক্রিকেটে তাক লাগানো পৃথ্বী শ। অভিজ্ঞ চেতেশ্বর পূজারা, অজিঙ্ক রাহানে। সেরার সেরা বিরাট কোহলি। ব্যাটিং অর্ডারে যখন এসব নাম থাকে, তখন সমর্থকদের প্রত্যাশাটাও যেমন বেড়ে যায়, তেমনই বিপক্ষের বোলারদের রাতের ঘুম ওড়ে। কিন্তু ওয়েলিংটন কিংবা ক্রাইস্টচার্চে তেমন কিছুই হল না। বরং কিউয়ি পেসার ও স্পিনারদের মারণকামড়ে একেবারে শয্যাশায়ী ভারতীয় ব্যাটিং। আর সেটাই হয়ে দাঁড়াল টিম ইন্ডিয়ার লজ্জার হারের কারণ। ক্রাইস্টচার্চকে মুখে আঙুল দিয়ে চুপ করিয়েছিলেন কোহলি। বিদেশের মাটিতে হারের রেকর্ড গড়ে আজ তাঁরই মুখ বন্ধ হয়ে গেল। 

ওয়ানডে সিরিজের পর নিউজিল্যান্ডের কাছে টেস্ট সিরিজেও হোয়াইওয়াশ হতে হল বিরাট কোহলিদের। কিন্তু কেন? বিরাটের ব্যাখ্যা, “ওয়ানডে-তে তাও আমরা লড়াই করেছিলাম। রান করতে পেরেছিলাম। কিন্তু এখানে ব্যাটসম্যানরা পুরোপুরি ব্যর্থ। বোলাররা এত ভাল পারফর্ম করার পরও তাই কোনও লাভ হল না। ফিরে গিয়ে দেখতে হবে কোথায় কী ভুল ত্রুটি হল। তারপর সেসব ভুল শুধরে নিতে হবে। নিউজিল্যান্ড এই আবহাওয়ায় নিঃসন্দেহে দারুণ খেলেছে। যোগ্য দল হিসেবেই সিরিজ জিতেছে ওরা।”

[আরও পড়ুন: সেমিফাইনালের প্রথম পর্বে হার, ফাইনালে ওঠার অঙ্ক জটিল হল এটিকের]

গোটা নিউজিল্যান্ড সফরে নিজের চেনা ছন্দে ধরা দিতে পারেননি কোহলি। তাঁর ধুকতে থাকা পারফরম্যান্স নিয়ে সমালোচনা হয়েছে। কিন্তু প্রথম টেস্ট হারের পর ভাঙলেও মচকাননি কোহলি। বলেছিলেন, তিনি ভালই খেলছেন। তবে সোমবার ভারত ধুয়ে মুছে সাফ হয়ে যাওয়ার পর অনেকটাই সুর নরম অধিনায়কের। তাই আর টস হারের দোহাই না দিয়ে নিজেদের ভুলগুলোকেই তুলে ধরলেন।

New-Zealand

ক্রাইস্টচার্চে টিম ইন্ডিয়ার যে জয়ের কোনও আশা নেই তা একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল দ্বিতীয় দিনের শেষেই। যেখানে ছয় উইকেট খুইয়ে মাত্র ৯০ রান করে ভারত। তৃতীয় দিন ম্যাচ শুরু হতে ৩৪ রানের মধ্যেই বাকি চারটি উইকেট পড়ে যায়। টিম সাউদি (৩) ও ট্রেন্ট বোল্টের (৪) আগুনে পেসে ছাড়খার টেলএন্ডাররা। জবাবে দুই কিউয়ি ওপেনার লাথাম ও ব্লান্ডেলই প্রয়োজনীয় রান তুলে ফেললেন। যদি নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে জোড়া উইকেট তুলে নেন বুমরাহ।

[আরও পড়ুন: ‘দশকের সেরা ক্যাচ’, নেটদুনিয়ায় ভাইরাল জাদেজার অনবদ্য ফিল্ডিংয়ের ভিডিও]

বিদেশের মাটিতে বর্তমান তরুণ ব্যাটিং লাইন-আপ এখনও কতটা দুর্বল, তা ভালই টের পেল টিম ইন্ডিয়া। দ্রুত ফর্মে ফেরার প্রয়োজনীয়তা নিশ্চয়ই বুঝতে পারলেন অধিনায়ক কোহলিও। তবে আরও একবার ব্যর্থ ঋষভ পন্থ (৪) নিয়ে এবার নির্বাচকরা কী সিদ্ধান্ত নেন, সেটাও দেখার বিষয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে