৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একসময় বল বয় হিসাবে এই মাঠেই স্বপ্নের তারকাদের খেলা দেখতেন। তাঁদের দেখে স্বপ্ন বুনত দুই চোখ। সেই গদ্দাফি স্টেডিয়ামেই দেশকে নেতৃত্ব দিতে নামছেন বাবর আজম। ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ খেলতে নামছে পাকিস্তান। দলের নয়া অধিনায়ক বাবর আজমের প্রিয় লাহোরের গদ্দাফি স্টেডিয়ামেই প্রথম ম্যাচ। দেশের নেতৃত্ব দেওয়ার আগে তিনি বলছেন, এই গদ্দাফি স্টেডিয়ামই জানে তাঁর প্রথম সবকিছু।

২০০৭ সালে পাকিস্তান-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট ম্যাচ হয়েছিল গদ্দাফিতেই। বারো বছরের কিশোর বাবর তখন বল বয়। তিনি জানিয়েছেন, ইনজামাম, ইউনিস খান, মিসবাহ উল হক, গ্রেম স্মিথ, জ্যাক কালিসদের মতো স্বপ্নের নায়কদের কাছ থেকে দেখার জন্য তিন মাইল পথ হেঁটে স্টেডিয়ামে পৌঁছতেন। যেন এই সেদিনের কথা। অনেক স্মৃতি রয়েছে তাঁর এখানে। বাবরের ভাষায়, ‘পাকিস্তান হোম অফ ক্রিকেট। এখানে খেলার মজাই আলাদা। তাও আবার জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসাবে।’ কৈশোরের হিরো মিসবাহ এখন দলের কোচ। সেটাও একটা বাড়তি পাওনা বলছেন বাবর।

[আরও পড়ুন: পাঁচ বছরেই ২২ গজে কামাল, কভার ড্রাইভে চমকে দিচ্ছে ‘বিস্ময় বালক’ শুভজিৎ]

২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক। তারপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে। দেশের জার্সি গায়ে বাইশ গজে একের পর এক দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন বাবর। অনেকে তাঁকে পাকিস্তানের বিরাট কোহলি বলেও ডাকেন। তবে এই তুলনায় আপত্তি রয়েছে বাবরের। তিনি কোহলিকে অনুসরণ করেন মাত্র, একথাই সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন পাক ক্রিকেটার।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং