০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘নিজেকে টিমের অংশ বলেই মনে হত না’, শাস্ত্রী জমানা নিয়ে বিস্ফোরক অশ্বিন

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 22, 2021 10:40 am|    Updated: December 22, 2021 10:40 am

R Ashwin opens up on Ravi Shastri's remarks that made him feel 'absolutely crushed' | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রকাশ্যে তাঁর সঙ্গে অবিচার দিনের পর দিন ঘটে গেলেও, সরকারি বা সরাসরি মন্তব‌্য তাঁর থেকে কখনও এতটা আসেনি। লোকে জানত, ক্রিকেট মহল বুঝত যে, ভারতীয় ক্রিকেটে শাস্ত্রী-কোহলি জমানায় সবচেয়ে ‘নির্যাতিত’ ক্রিকেটারের নাম রবিচন্দ্রন অশ্বিন (R Ashwin)।

R Ashwin opens up on Ravi Shastri's remarks that made him feel 'absolutely crushed'

দেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা স্পিনার হওয়া সত্ত্বেও যাঁকে সাদা বলের ক্রিকেট থেকে ‘বলি’ দিয়ে দেওয়া হয়েছিল অক্লেশে, পৃথিবীকাঁপানো ‘রিস্টস্পিনার’দের আগমনকে অজুহাত বানিয়ে। রবিচন্দ্রন অশ্বিন গত কয়েক বছর ধরে খেলতেন শুধু একটা মাত্র ফরম্যাটে। টেস্ট। তা, সেখান থেকেও তাঁকে ছেঁটে ফেলার ক্রিয়াকলাপ শুরু হয়ে গিয়েছিল। ভারতীয় ক্রিকেটে (Indian Cricket Team) শাস্ত্রী-কোহলি জমানা আজ অতীত। এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিনও গর্জে উঠলেন! খুলে আম বলে দিলেন, তাঁর সঙ্গে কী পরিমাণ অবিচার হয়েছিল। কী ভাবে দিনের পর দিন নির্যাতিত হয়েছিলেন তিনি! এক এক সময় মনে হত, তিনি ভারতীয় টিমের অংশই নন। কেউ তাঁকে যেন বাস চাপা দিয়ে দিয়েছে!

[আরও পড়ুন: India vs South Africa: দ্রাবিড়কে ছাপিয়ে যাওয়া সময়ের অপেক্ষা, দক্ষিণ আফ্রিকায় নয়া কীর্তি গড়তে চলেছেন বিরাট]

এক ক্রিকেট ওয়েবসাইটকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে অশ্বিন টেনে এনেছেন ২০১৯ অস্ট্রেলিয়া সফরের কথা। যে সফরের সিডনি টেস্টে কুলদীপ যাদব (Kuldeep Yadav) পাঁচ উইকেট পাওয়ার পর শাস্ত্রী বলে দিয়েছিলেন, এরপর থেকে বিদেশে ভারতের এক নম্বর স্পিনার কুলদীপই হবেন। যা শোনার পর স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন অশ্বিন। “আমাদের শেখানো হয়, সতীর্থের সাফল্যে আনন্দ করতে। কুলদীপের জন্য আমার ভাল লাগছিল। কুলদীপের জন্য, টিমের জন্য অসম্ভব ভাল লাগছিল। কারণ, তার আগে কখনও অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ জিতিনি আমরা। কিন্তু টিমের সাফল্যে আনন্দ পেতে আগে নিজেকে বোঝাতে হয় যে, আমিও টিমের অংশ। যদি আমার মনে হয়, কেউ আমাকে বাস চাপা দিয়ে দিয়েছে, কী করে টিমের সাফল্যে আনন্দ পাব?” বলে দিয়েছেন বিস্ফোরক অশ্বিন। “রবি (Ravi Shastri) ভাইকে আমি শ্রদ্ধা করি। সম্মান করি। কিন্তু সে দিন এই কথাটা শুনে মনে হয়েছিল, আমাকে কেউ থেঁতলে দিয়েছে।”

R Ashwin opens up on Ravi Shastri's remarks that made him feel 'absolutely crushed'

টেস্টে ৪২৭ উইকেটের মালিকের আজও মনে আছে সেই ‘অভিশপ্ত’ সফর। অশ্বিন টানা বলে যান, দু’বছর আগের অস্ট্রেলিয়া সফরে কী পরিমাণ ‘নির্যাতন’ তাঁকে সহ্য করতে হয়েছিল। সেই সিরিজের প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে কুঁচকির চোট নিয়ে পঞ্চাশ ওভার বল করেছিলেন অশ্বিন। তিন উইকেট নিয়েছিলেন। সবে যখন তাঁর মনে হচ্ছিল যে, টিমের (Team India) জন্য করেছেন কিছু, তখনই শোনেন টিম তাঁর পারফরম্যান্স নিয়ে ঠাট্টা-ইয়ার্কি চালাচ্ছে! “নিজের মনে হয়েছিল, যাক চোট নিয়েও টিমের জন্য কিছু করতে পেরেছি। কিন্তু ফিরে এসে শুনলাম বলা হচ্ছে, নাথন লায়ন ছ’উইকেট নিয়েছে। আর অশ্বিন নিল তিনটে। এমনিই যন্ত্রণায় কাবু হয়ে ছিলাম। মন মেজাজ ভাল ছিল না। সেই সময় ও রকম তুলনা আর অপমান। সিডনি টেস্টের আগে পর্যন্ত আমার মনেই হয়নি যে আমিও টিমের অংশ।”

[আরও পড়ুন: কিশোরীকে অপহরণ ও ধর্ষণ! অভিযুক্তকে সাহায্যের অভিযোগে বিদ্ধ পাক ক্রিকেটার ইয়াসির শাহ]

অভিযোগ হিসেবে যা বিস্ফোরক নয়, মারাত্মক। যিনি সাফ বলে দিয়েছেন যে, ২০১৮ থেকে ২০২০– এই সময়বৃত্তে ভেবেছিলেন, ক্রিকেটটাই ছেড়ে দেবেন! “অনেক বার ভেবেছি যে ছেড়ে দিই। শুধু চোটের কারণে নয়। আসলে আমার চোট নিয়ে কারও মধ্যে কোনও সহমর্মিতা দেখিনি। আমার সব সময় মনে হত, সবাই তো কাউকে না কাউকে পাশে পায়। আমার পাশে কেউ কেন দাঁড়ায় না?” বলে দিয়েছেন ক্রুদ্ধ অশ্বিন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে