১০ শ্রাবণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘সবসময় জৈব বলয়ে থাকা যায় না’, বিতর্কের মধ্যে পন্থের পাশে Sourav

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 16, 2021 3:00 pm|    Updated: July 16, 2021 4:03 pm

Rishabh Pant faces heat for not wearing mask at Euro 2020 match, Sourav Ganguly comes to his defence | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্রিটেনে ঋষভ পন্থের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই নেটদুনিয়ার একাংশ তাঁকে কাঠগড়ায় তোলা শুরু করেছে। আসলে corona’র প্রকোপে পড়ার আগে আগেই ইউরো কাপের খেলা দেখতে স্টেডিয়ামে গিয়েছিলেন টিম ইন্ডিয়ার উইকেটরক্ষক। বন্ধুদের সঙ্গে তোলা একটি সেলফিও শেয়ার করেন পন্থ (Rishav Pant)। যে ছবিতে তাঁকে দেখা গিয়েছে মাস্কহীন অবস্থায়। বৃহস্পতিবার পন্থের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর ঠাহর হতেই নেটদুনিয়ায় প্রশ্ন উঠতে থাকে তাঁর মাস্কহীন ছবি ঘিরে। কারও কারও দাবি, ভরা স্টেডিয়ামে এভাবে মাস্ক না পরে খেলা দেখার জেরেই মারণ ভাইরাসের কবলে পড়তে হয়েছে ঋষভকে। যদিও, এই বিতর্কে পন্থের কোনও দোষ দেখছেন না BCCI প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর সাফ কথা, সবসময় জৈব বলয়ে থাকা যায় না।

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট বলছেন, “আমরা দেখেছি ইংল্যান্ডে ইউরো কাপ (Euro Cup 2020) এবং উইম্বলডনের খেলা দেখতে গিয়েছে প্রচুর দর্শক। আসলে ওখানে নিয়ম পালটে গিয়েছে। তাছাড়া সেসময় ভারতীয় দল ছুটিতে ছিল। সব সময় জৈব বলয়ে থাকা শারীরিকভাবেও অসম্ভব।” প্রসঙ্গত, গত ১৯ জুন থেকেই ইংল্যান্ডের সব নিয়ম পালটে গিয়েছে। সেদেশের সরকার আর সাধারণ মানুষকে করোনা বিধি মানতে বাধ্য করছে না। কার্যত সমস্ত নিয়মই শিথিল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, “নিজের সুরক্ষার দায়িত্ব এ বার নিজেকেই নিতে হবে। সরকারি ভাবে নিয়ম মানতে বাধ্য করা হবে না।” সেই সুযোগেই পন্থ-সহ ভারতীয় দলের বাকি সদস্যরা ২০ দিনের ছুটি কাটিয়ে নিয়েছেন জৈব বলয়ে ঢোকার আগে। আর তখনই দেখা যাচ্ছে বিপত্তি। পন্থ-সহ দলের থ্রো ডাউন বিশেষজ্ঞ দয়ানন্দ গরানীর করোনা (Coronavirus) রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আইসোলেশনে যেতে হয়েছে ঋদ্ধিমান সাহা, অভিমন্যু ঈশ্বরণ-সহ আরও কয়েকজনকে।

[আরও পড়ুন: ICC’র টুর্নামেন্টে বারবার ব্যর্থতা, বিরাটের দলগঠন নিয়েই এবার সমালোচনায় মুখর মহম্মদ কাইফ]

যদিও, পন্থের করোনা সংক্রমণের পিছনে ওয়েম্বলির সেই মাস্কহীন সফরকে দায়ী করা ঠিক হবে না। ভারতীয় দল সূত্রের খবর,পন্থ গত ৫ এবং ৬ জুলাই স্থানীয় এক দন্ত চিকিৎসকের ক্লিনিকে গিয়েছিলেন চিকিৎসার জন্য। সেখান থেকেও তাঁর করোনা হতে পারে। আসলে টিম ইন্ডিয়ার উইকেটরক্ষকের টিকাকরণ প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে ৭ জুলাই। আর তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে ৮ জুলাই। তাই মনে করা হচ্ছে ৬ তারিখ দাঁতের চিকিৎসকের ক্লিনিকে যাওয়াটাই তাঁর সংক্রমণের কারণ। এদিকে বিসিসিআই স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, পন্থের করোনা হলেও ইংল্যান্ডে এখনই পরিবর্ত ক্রিকেটার হিসেবে কাউকে পাঠানো হবে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement