BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রোহিত কি ফিট নন? হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট নিয়ে লাগাতার বিতর্কের মাঝে মুখ খুললেন খোদ হিটম্যান

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 21, 2020 4:32 pm|    Updated: November 21, 2020 4:32 pm

An Images

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি কি ভালরকম চোটগ্রস্থ? নাকি ম্যাচে নামার জন্য ফিটই আছেন! অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য ভারতের দল ঘোষণার পর থেকেই শুরু হয় এই আলোচনা। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটের জন্য তাঁকে প্রাথমিকভাবে বাদ দিয়েছিলেন নির্বাচকরা। তবে পরবর্তীতে নতুন করে ঘোষিত স্কোয়াডে দেখা যায়, অজিদের বিরুদ্ধে টেস্ট দলে রাখা হয়েছে টিম ইন্ডিয়ার হিটম্যানকে। তবে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলে নেই তিনি। সিরিজ শুরুর আগে এখনও রোহিত ইস্যু নিয়ে তর্ক-বিতর্ক চলছে। আর এরই মধ্যে নিজের চোট নিয়ে মুখ খুললেন খোদ রোহিত শর্মা (Rohit Sharma)।

ভারতীয় ওপেনার আপাতত বেঙ্গালুরুর জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে (NCA) রিহ্যাবে। টেস্টে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তার মধ্যেই বললেন, “আমি সত্যিই জানি না, লোকজন কী বলছে। তবে আমি স্পষ্ট করে দিতে চাই যে আমি প্রতি মুহূর্তে বিসিসিআই ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছিলাম। মুম্বই ফ্র্যাঞ্চাইজিকে জানিয়েছিলাম, ছোট ফরম্যাটে খেলা ঠিক ম্যানেজ করে নেব। সেই মুহূর্তে সেটাই করতে চাইছিলাম। তাই সেখানেই ফোকাসটা ছিল।” এখন কেমন আছেন তিনি?

[আরও পড়ুন: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের নয়া নিয়ম আনল আইসিসি, জানেন কী?]

“হ্যামস্ট্রিংয়ে এখন কোনও সমস্যা নেই। একেবারে ফিট হওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছি। টেস্ট খেলতে নামার আগে এ বিষয়ে কোনও খামতি রাখতে চাই না। সেই জন্যই NCA-তে এসেছি।” বলে দেন রোহিত। তিনি আরও জানান, হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট লাগার পর ঠান্ডা মাথায় প্রথমে ভেবেছেন যে আগামী দশদিন ঠিক কী করা উচিত। খেলতে পারবেন কি না। কিন্তু ব্যথার ধরনটা প্রায় প্রতিদিনই বদলাচ্ছিল। আর ধীরে ধীরে তাঁর মনে হয়, মাঠে নামলে সমস্যা হবে না। তবে এর জন্য মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের সঙ্গে আলোচনাও করে নিয়েছিলেন। একইসঙ্গে তিনি মেনে নেন, হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট সারিয়ে সম্পূর্ণ ফিট হতে আরও কয়েকটা দিন সময় লাগবে। আর সেই কারণেই তিনি সীমিত ওভারের সিরিজের জন্য অস্ট্রেলিয়া যাননি। তাই তাঁর সফরে না যাওয়া নিয়ে অন্যরা কী বলছে, এ নিয়ে ভাবতে নারাজ রোহিত।

বলছেন, “১১ দিনে ছ’টা ম্যাচ খেলতে হত। সেটা বেশ কঠিন। তাই ভাবলাম ২৫ দিন মতো সময় পেলে টেস্টটা খেলতে পারব। সিদ্ধান্তটা আমার জন্য খুব সহজ ছিল। জানি না, এটা নিয়ে এত জলঘোলা কেন হল।” অর্থাৎ রোহিত বুঝিয়ে দিলেন, তাঁর পক্ষেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্বাচকরা। তাই এ নিয়ে বিতর্কের কোনও জায়গা নেই।

[আরও পড়ুন: প্রথম ম্যাচ জিতেই ডার্বির ভাবনা শুরু হাবাসের, ঐক্যের বার্তা দিল ইস্টবেঙ্গল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement