BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

২০ বছর আগে ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ, কুখ্যাত জুয়াড়িকে দেশে ফেরাল ভারত

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 13, 2020 3:34 pm|    Updated: May 2, 2020 12:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০০০-র কুখ্যাত ম্যাচ গড়াপেটা কাণ্ডে বড় সাফল্য তদন্তকারীদের। ২০ বছর পর সেই গড়াপেটা কাণ্ডের অন্যতম পাণ্ডা সঞ্জীব চাওলাকে (Sanjeev Chawla) দেশে ফেরাল ভারত। কুখ্যাত জুয়াড়িকে প্রত্যর্পণের অনুমতি দিল ব্রিটেন সরকার। ফলে, দীর্ঘদিন ধরে ওয়ান্টেড এই বুকিকে নিজেদের হেফাজতে নিল পুলিশ। আপাতত তাঁকে তিহার জেলে রাখা হবে।

Hansi cronje
হ্যানসি ক্রোনিয়ে

২০০০ ম্যাচ গড়াপেটা কাণ্ডের কথা এখনও অনেক ক্রিকেটপ্রেমীর মনে পড়বে হয়তো। দক্ষিণ আফ্রিকা তথা বিশ্বক্রিকেটকে রীতিমতো আলোড়িত করেছিল তৎকালীন প্রোটিয়া অধিনায়ক হ্যানসি ক্রোনিয়ের (Hansie Cronje) একটি স্বীকারোক্তি। ক্রোনিয়ে স্বীকার করেছিলেন, তিনি বুকিদের পাল্লায় পড়ে ম্যাচ ফিক্স করেছেন। ক্রোনিয়ের সঙ্গে বুকিদের যোগাযোগ করিয়ে দিয়েছিলেন এই সঞ্জীব চাওলা। এছাড়াও চাওলার বিরুদ্ধে একাধিক গড়াপেটার অভিযোগ আছে।

[আরও পড়ুন: প্রথমবার দ্বিপাক্ষিক সিরিজে উইকেটহীন বুমরাহ, ব়্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান খোয়ালেন ভারতীয় পেসার]

২০০০ সালের ৭ এপ্রিল হ্যানসি ক্রোনিয়ের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ দায়ের করে দিল্লি পুলিশ। মাসখানেক পরেই জিজ্ঞাসাবাদে ফিক্সিংয়ের কথা স্বীকার করেন ক্রোনিয়ে। তিনি জানিয়ে দেন, সঞ্জীব চাওলা নামের ওই বুকিই তাঁকে ফিক্সারদের সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দিয়েছেন। ক্রোনিয়ের স্বীকারোক্তির পর ম্যাচ গড়াপেটার তদন্ত গতি পায়। কিন্তু, বছর দুই পরে এক ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনায় মারা যান ঘটনার মূল অভিযুক্ত এবং সাক্ষী ক্রোনিয়ে। ঝিমিয়ে পড়ে ম্যাচ গড়াপেটা তদন্তের গতি।

[আরও পড়ুন: ‘নিউজিল্যান্ডের কাছে সিরিজ হার এমন কিছু বড় ব্যাপার নয়’, চাহালের মন্তব্যে বিতর্কের ঝড়]

এদিকে, সঞ্জীব চাওলা ভারত ছেড়ে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন ব্রিটেনে। সেখানেই নাগরিকত্ব নিয়ে এতদিন থাকছিলেন কুখ্যাত এই বুকি। তাঁর বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে চার্জশিট পেশ করে দিল্লি পুলিশ। এতদিন লন্ডনের আদালতে তাঁর প্রত্যর্পণের মামলা চলছিল। অবশেষে সাফল্য পেল ভারত। বৃহস্পতিবারই দেশে ফেরানো হয়েছে সঞ্জীব চাওলাকে। ব্রিটেন সরকারের সঙ্গে হওয়া প্রত্যর্পণ চুক্তিতে এটাই প্রথম হাই প্রোফাইল প্রত্যর্পণ করল ভারত সরকার। চাওলার প্রত্যর্পণের ফলে বিজয় মালিয়া, নীরব মোদিদের জন্যও রাস্তা খুলে যাবে বলে ধারণা তদন্তকারীদের।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement