BREAKING NEWS

২৩ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শনিবার ৬ জুন ২০২০ 

Advertisement

গড়াপেটার প্রস্তাব গোপন করার অভিযোগ, দেড় বছরের নির্বাসনের মুখে শাকিব!

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 29, 2019 1:00 pm|    Updated: October 29, 2019 1:09 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: মূল ঘটনা বছর দুই আগের। এক জুয়াড়ির কাছ থেকে ম্যাচ গড়াপেটার প্রস্তাব পেয়েছিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে দলের বর্তমান অধিনায়ক শাকিব আল হাসান। কিন্তু, সেই প্রস্তাবের কথা তিনি আইসিসিকে জানাননি। যার জেরে বড়সড় শাস্তির মুখে পড়তে পারেন বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অল-রাউন্ডার। ঢাকার ক্রিকেট মহলে জল্পনা, শাকিব আল হাসান ১৮ মাসের জন্য সমস্তরকম ক্রিকেট তথা ক্রিকেট সম্পর্কিত কার্যকলাপ থেকে নির্বাসিত হতে পারেন। আসন্ন ভারত সফরের আগে যা বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য বড়সড় ধাক্কা হতে পারে।


সোমবার রাত থেকেই ঢাকায় জোর জল্পনা, ১৮ মাসের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার শাকিব। ২ বছর আগে জুয়াড়ির প্রস্তাব পেয়ে আইসিসিকে না জানানোর কারণে এমন নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে যাচ্ছেন তিনি। জুয়াড়িদের কল রেকর্ড ট্র্যাকিং করে বিষয়টি পরে জানতে পারে আইসিসি। আর শাকিবের ব্যপারে বেশ কড়া আইসিসি। কারণ, তিনি ইতিমধ্যেই আইসিসির দুর্নীতি দমন সংক্রান্ত প্রায় ২৫টি প্রশিক্ষণ শিবিরে যোগ দিয়েছেন। তা সত্ত্বেও এত বড় ভুল কী করে হল, জানতে চায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা।  আইসিসির আইন অনুযায়ী, কোনও ক্রিকেটার কোনও জুয়াড়ির কাছ থেকে কোনও প্রস্তাব পেলে সেটি ক্রিকেটের দুর্নীতি বিরোধী সংস্থা আকসুকে জানাতে হয়। এটি করতে ব্যর্থ হলে সর্বনিম্ন ৬ মাস থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের নির্বাসন হতে পারে। অভিযোগ, শাকিবের কাছে আসা প্রস্তাব তিনি প্রত্যাখ্যান করেন এবং বিষয়টিকে গুরুত্ব দেননি। এই প্রস্তাবের কথা তিনি আকসুকেও জানাননি। এ বিষয়ে শাকিবের কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: ‘সৌরভ একদিন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবেন, অপেক্ষায় আছি’, দাবি শেহওয়াগের]


শাকিব চাইলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাঁকে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত আছে। গত ২১ অক্টোবর ১১ দফা দাবি নিয়ে শাকিবের নেতৃত্বে আন্দোলনে নামে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। কিন্তু এই ইস্যুটি ব্যক্তিগতভাবে না নিয়ে শাকিবের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সামনেই ভারত সফর। এছাড়া রয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এই সময়ে যদি শাকিব নিষিদ্ধ হন, তাহলে বাংলাদেশের ক্রিকেট বড়সড় ধাক্কা খাবে, তা বলাই বাহুল্য।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement