২ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মানবিকতার নজির, পাকিস্তানের হিন্দু শরণার্থীদের জন্য এই কাজটিই করলেন শিখর ধাওয়ান

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 5, 2020 12:25 pm|    Updated: July 5, 2020 12:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্রেফ ধর্মের জন্য অত্যাচারিত হয়ে দেশ ছাড়তে হয়েছে। সংখ্যাগুরুরা অত্যাচার করেছে। সরকারও পাশে দাঁড়ায়নি। পাকিস্তানে হিন্দুদের দুর্দশার কথা কারও অজানা নয়। এদের মধ্যেই অনেকে পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছেন ভারতে। কিন্তু এই মহামারি আর লকডাউনে সমস্যা বেড়েছে বই কমেনি। পাকিস্তানের হিন্দু শরণার্থীদের এখন চরম সংকটে দিন কাটাতে হচ্ছে। আর এই সংকটের দিনে তাঁদের পাশে দাঁড়ালেন টিম ইন্ডিয়ার ওপেনার শিখর ধাওয়ান (Shikhar Dhawan)। দিল্লির মজলিশ পার্ক মেট্রো স্টেশন এলাকার পাক শরণার্থীদের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন গব্বর।

শনিবার হঠাতই দিল্লির মজলিশ পার্ক (Majlis Park ) মেট্রো স্টেশনের কাছের শরণার্থী হিন্দুদের মহল্লায় যান ধাওয়ান। সেখানে শরণার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। যারা বসতিতে বসবাস করছেন, তাঁদের জন্য বিছানা, মডিউলার টয়লেট প্রভৃতি দান করেন। সেখানকার কয়েকজন শিশুর সঙ্গেও কথা বলতে দেখা যায় ‘গব্বর’কে। তাদের সঙ্গে বেশ খানিকটা সময় কাটান শিখর। ফেরার আগে ওই শিশুদের ‘মহার্ঘ’ উপহার দিয়ে আসেন ধাওয়ান। নিজের হাতে ক্রিকেট কিট বিলিয়ে দেন ওই শিশুদের মধ্যে।

[আরও পড়ুন: মোহালিতে ভুয়ো টি-২০ ক্রিকেট লিগের পর্দাফাঁস! পুলিশের জালে ২ কুখ্যাত বুকি]

দিল্লির মজলিশ পার্ক এলাকার ওই মহল্লায় অনেক দিন ধরেই শরণার্থী হিন্দুদের বাস। দিল্লির একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তাঁদের দেখাশোনা করে। সেই সংগঠনের সঙ্গে ধাওয়ানের এক বন্ধুও যুক্ত। সেই বন্ধুর থেকেই অনুপ্রেরণা নিয়েছেন ধাওয়ান। তিনি বলছিলেন,”আমার বন্ধু ওই শরণার্থী শিবিরে বহুদিন ধরে কাজ করছে। ওরা ওখানে টয়লেট তৈরি করেছে। তাই আমিও ভাবলাম যদি ওদের জন্য কিছু করা যায়।” শিখর বললেন,”আমি নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে করছি, যে আমি ওদের জন্য কিছু অন্তত করতে পারছি।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement