BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা রুখতে হাতিয়ার ‘ভারচুয়াল বাবল’, ক্রিকেটারদের জন্য কড়া বিধিনিষেধ আইপিএল কর্তৃপক্ষের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 27, 2020 2:27 pm|    Updated: July 27, 2020 5:34 pm

Strict rules to be followed by cricketers during IPL in UAE

রাজর্ষি গঙ্গোপাধ্যায়: করোনা অধ্যুষিত এই ক্রিকেট পৃথিবীতে ‘জৈব সুরক্ষা বলয়’ শব্দবন্ধ নতুন নয়। ইংল্যান্ড বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ যে টেস্ট সিরিজটা চলছে, সেটাও ‘জৈব সুরক্ষা বলয়ে’র মধ্যেই হচ্ছে। আরব আমিরশাহীতে (UAE) আগামী সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলা আইপিএলও যে ‘জৈব সুরক্ষা বলয়ে’ হবে, সেটা সর্বজনবিদিত। প্রশ্ন হল, সেখানে কোন কোন বিধিনিষেধের মধ্যে থাকতে হবে ক্রিকেটারদের?

বোর্ডের (BCCI) ওয়াকিবহাল মহলে খোঁজ নিয়ে জানা গেল, ইংল্যান্ড সিরিজের চেয়ে আইপিএলের জন্য জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি অনেক কঠিন কাজ। বলা হচ্ছে, ইংল্যান্ডের টেস্ট সিরিজে মাত্র দু’টো টিম খেলছে। ইংল্যান্ড আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু আইপিএলে (IPL) থাকবে আটটা টিম। সঙ্গে তাদের সাপোর্ট স্টাফ থেকে শুরু করে ম্যাচ অফিশিয়ালস, টিভি ক্রু, সবাই। অতএব, পুরো সেটটাকে নিশ্ছিদ্র জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকিয়ে ফেলা খুব সহজ হবে না। ইংল্যান্ডে যে মাঠে খেলা হচ্ছে তার পাশের হোটেলে রাখা হচ্ছে দু’টো টিমকে। পুরো সেট আপটাকেই ‘বায়ো সিকিওরড’ পরিবেশে অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু আইপিএলে সেই সুযোগই নেই। কারণ তিনটে মাঠে খেলা হবে টুর্নামেন্ট। আর দুবাই, শারজা কিংবা আবু ধাবি, কোনও মাঠেরই সংলগ্ন কোনও হোটেল নেই। প্লাস, টিম আটটা। অগত্যা, ‘বায়ো সিকিওরড কনসেপ্ট’ এখানে খাটবে না। এখানে ‘ভার্চুয়াল বাবল’ তৈরি করে নিতে হবে। শোনা গেল, আমিরশাহী বোর্ড একপ্রস্থ প্ল্যান-প্রোগ্রাম করেছে। চূড়ান্ত রূপরেখা এখনও হয়নি। কিন্তু একটা খসড়া পাওয়া গেল।

[আরও পড়ুন: দর্শক টানতে নয়া উদ্যোগ, টেস্টের ধাঁচে ওয়ানডে’তে বিশ্বকাপ সুপার লিগ চালু করছে ICC]

কী কী থাকতে পারে আইপিএল সুরক্ষাবিধিতে?
এক) আটটা টিমকে একটা কিংবা দু’টো হোটেলে ভাগাভাগি করে রাখার কথা প্রাথমিক ভাবে ভেবে রাখা হয়েছে। বলা হচ্ছে, আমিরশাহিতে প্রচুর বড় বড় হোটেল আছে। যেখানে সাতশো-আটশো করে ঘর আছে। অতএব, আটটা টিম-সহ ম্যাচ অফিশিয়াল, টিভি ক্রুদের একসঙ্গে রাখতে অসুবিধে হবে না। সে রকম হলে দু’টো হোটেলে ভাগাভাগি করে নেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: ‘কেরিয়ারের শেষে প্রাপ্য সম্মানটা পেলাম না’, বিসিসিআইকে তোপ যুবরাজের]

দুই) আন্তর্জাতিক ম্যাচের সময় যে ভাবে টিমগুলোকে যেমন ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়ের ঘেরাটোপে রেখে দেওয়া হয়, এখানেও অনেকটা তেমনই হবে। ক্রিকেটাররা মাঠে যাওয়া ছাড়া হোটেল ছেড়ে বেরোতে পারবেন না। অপরিচিত ভক্ত, স্বল্প পরিচিত, পরিচিত, কাউকেই হোটেলে ঢুকতে দেওয়া হবে না। কারণ ভেতরে যাঁরা থাকবেন তাঁরা করোনা নেগেটিভ হয়েই ঢুকবেন।

তিন) হোটেল। স্টেডিয়াম। টিম বাস। ক্রিকেটারদের ম্যাচ খেলার কারণে যা কিছুর সংস্পর্শে আসবেন, সব বারবার স্যানিটাইজ করা হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে