BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘পাকিস্তান বিশ্বকাপ জিতলে বাবর আজম প্রধানমন্ত্রী হবেন’, কেন এমন বললেন গাভাসকার?

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 12, 2022 5:47 pm|    Updated: November 12, 2022 5:47 pm

Sunil Gavaskar says, if Pakistan win 2022 T20 World Cup Babar Azam will become Pakistan PM। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামিকাল, রবিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (T20 World Cup 2022) ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড ও পাকিস্তান (Pakistan)। যা সকলকে মনে করিয়ে দিচ্ছে ১৯৯২ বিশ্বকাপের কথা। সেবারও একেবারে ‘আন্ডারডগ’ অবস্থা থেকে ফাইনালে উঠেছিলেন পাক ক্রিকেটাররা। স্বাভাবিক ভাবেই এই ‘মিল’ আশা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে সমর্থকদের। তাঁদের মতে, বাবরদের কাপজয় কেবলই সময়ের অপেক্ষা। এহেন অবস্থায় সুনীল গাভাসকর যা বলেছেন, তা নিয়ে শোরগোল চরমে।

ঠিক কী বলেছেন তিনি? কিংবদন্তি ওপেনারের কথায়, ”পাকিস্তান যদি এবারের বিশ্বকাপ জিতে যায়, তাহলে ২০৪৮ সালে বাবর আজম পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হবেন।” তাঁর এহেন সরস মন্তব্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। একথা বলাই বাহুল্য, ১৯৯২ সালের বিশ্বজয়ী পাকিস্তানের অধিনায়ক ছিলেন ইমরান খান। ঠিক ২৬ বছর পরে ২০১৮ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। সেই ‘হিসেব’ মিলিয়েই এই মজার ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন সানি। এক বেসরকারি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে গাভাসকারের মুখে এমন কথা শুনে হাসতে থাকেন মাইকেল আর্থারটন ও শেন ওয়াটসন।

[আরও পড়ুন: চাকরিপ্রার্থীকে কামড়ের ঘটনায় শুরু বিভাগীয় তদন্ত, লেডি কনস্টেবলকে তলব লালবাজারের]

এদিকে এই ‘মিল’ অনুপ্রাণিত করছে বাবরদেরও (Babar Azam)। রবিবাসরীয় ফাইনালের আগে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ”অবশ্যই মিল রয়েছে। আর আমরাও ট্রফিটা জিততে চেষ্টা করব। এমন দলকে নেতৃত্ব দেওয়াটা আমার কাছে বিরাট সম্মানের। এবং তাও এত বড় মাঠে। আমরা আমাদের ১০০ শতাংশ দেব। আমাদের শুরুটা ভাল হয়নি। কিন্তু দলটা বাঘের মতো প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছে। এই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ফাইনালে নিজেদের সেরাটা দেব আমরা।”

কী কী মিল রয়েছে ইমরান বাহিনীর সঙ্গে বাবর বাহিনীর বিশ্বকাপ অভিযানের? দুই বিশ্বকাপেই মেলবোর্নে খেলা ম্যাচে হেরেছিল পাকিস্তান। হারতে হয়েছিল ভারতের কাছেও। এবার যেমন কোহলির ব্যাটে ঝড় উঠেছিল, সেবার কৈশোরের গণ্ডি না পেরনো শচীন ব্য়াটে-বলে টেক্কা দিয়েছিলেন প্রতিপক্ষকে। দুই বিশ্বকাপেই একেবারে শেষদিনে এক পয়েন্টের ব্যবধানে সেমিতে খেলার ছাড়পত্র পেয়েছিল পাকিস্তান। এত মিলের পরে এবার শেষ মিলটিও বজায় রাখতে মরিয়া বাবররা। শেষ পর্যন্ত সেটাও মিলে যায় কিনা তা দেখতে মুখিয়ে গোটা ক্রিকেট বিশ্ব।

[আরও পড়ুন: ডাকসাইটে পুরুষ নেতারাই গুজরাটে বিজেপির তারকা প্রচারক, ব্রাত্য মেয়েরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে