BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আইএসএলের অপেশাদারিত্ব নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ গোয়ার কোচের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 4, 2018 1:31 pm|    Updated: January 4, 2018 1:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুরু হওয়ার কথা ছিল রাত ৮ টায়। আর ম্যাচ শুরু হল তার দু’ঘণ্টারও বেশি সময় পরে। ভারত ছাড়া পৃথিবীর কোথাওই হয়তো এমন কীর্তি চোখে পড়বে না। বিমান বিভ্রাটের কারণে অ্যাওয়ে টিম কলকাতায় পা রাখল কিক-অফেরও এক ঘণ্টা পরে। ফল যা হওয়ার তাই হল। ম্যাচ শেষ হতে হতে বেজে গেল রাত ১২টা অর্থাৎ একটি ম্যাচ খেলা হল দু’দিন ধরে। আর এই ঘটনার পরই নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন এফসি গোয়ার কোচ সার্জিও রডরিগেজ।

[কেপ টাউনে খরা, রাশ টানা হল ভারতীয় ক্রিকেটারদের জল খরচে]

ম্যাচ ততক্ষণে শেষ হয়ে গিয়েছে। এটিকের বিরুদ্ধে ম্যাচটা ড্র করে মাঠ ছাড়ছেন গোয়া ফুটবলাররা। রাগে গজগজ করতে করতে এফসি গোয়ার কোচের স্বগোক্তি, “এটা আর কোথাও সম্ভব? এত দেশে কোচিং করিয়েছি, কিন্তু এরকম কোথাও দেখিনি। এখানে আসার আগে আইএসএল সম্পর্কে আমার বেশ একটা ভাল ধারণা ছিল। এরকম কিছুর সামনে পড়তে হবে ভাবতে পারিনি। প্রথমে বলা হল, আমাদের ৩১ ডিসেম্বরের ম্যাচ পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে। অথচ আমাদের সঙ্গে এই বিষয়ে কোনও কথাই বলা হল না। একতরফা একটা সিদ্ধান্ত হয়ে গেল। তারপর আবার বিমান-বিভ্রাট। একটা টিমের ফুটবলাররা ম্যাচ শুরুর আগে জিনস আর স্নিকার পরে ওয়ার্ম আপ করছে। ফুটবল বিশ্বের কাছে এটা কি আদৌ ভাল বিজ্ঞাপন হয়ে রইল? ফুটবলের মান বাড়া তো দূরের কথা। এভাবে চলতে থাকলে মান আরও অনেক কমে যাবে।” তবে এত ঝামেলা কাটিয়েও ফুটবলাররা যেভাবে পারফর্ম করেছেন, তাতে তিনি টিমকে বাহবা না দিয়ে পারলেন না।

[মোহনবাগান মাঠে খেলার কারণেই রেজাল্ট খারাপ হল: সঞ্জয়]

উলটোদিকে এটিকে শিবিরে হতাশা। চূড়ান্ত হতাশা। গোয়াকে এভাবে পেয়েও নিজেদের ঘরের মাঠে হারানো গেল না। অথচ এটিকে যেভাবে শুরু করেছিল, তাতে মনে হচ্ছিল বুধবার গোয়াকে বুঝি উড়িয়ে দেবে। কিন্তু ম্যাচ যত এগোল সেই ঝাঁঝ তত উড়ে গেল। কোচ শেরিংহ্যাম স্বীকার করে নিলেন, “আমরা সুযোগটা কাজে লাগাতে পারলাম না। অথচ এই ম্যাচটা আমাদের জেতা উচিত ছিল। তবে এটাও ঠিক, একটা সময় আমার টিমের ফুটবলারদের মনঃসংযোগেও ব্যাঘাত ঘটছিল। মাঠে অনেকক্ষণ অপেক্ষা করছি। অথচ বুঝতে পারছি না ম্যাচটা আদৌ হবে কি না। এই অবস্থায় কাজটা সত্যিই খুব কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। যাই হোক, অজুহাত দিতে চাই না। পরের ম্যাচ জন্য এখন প্রস্তুত হতে হবে।”

[নতুন ইনিংসের শুরুতেই ঘুরে দাঁড়ানোর প্রতিজ্ঞা শংকরলালের গলায়]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement