Advertisement
Advertisement

Breaking News

রবিনের জোড়া গোলে চলতি ফেড কাপে প্রথম জয় ইস্টবেঙ্গলের

চেন্নাই সিটি-০               ইস্টবেঙ্গল- ২ (রবিন সিং-২) Advertisement সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্রিটিশ কোচ ট্রেভর জেমস মর্গ্যানের অধীনে থাকাকালীন আই লিগে বারবার মুখ থুবড়ে পড়েছিল ইস্টবেঙ্গল। শেষ দু’টি ম্যাচে কোচ পরিবর্তন করে সাফল্যের মুখ দেখলেও ফেডারেশন কাপের শুরুতে যে কে সেই। চার্চিল ব্রাদার্সের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই আটকে গিয়েছিল লাল-হলুদ ব্রিগেড। […]

Federation Cup: East Bengal beat Chennai City FC by 2-0
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:May 9, 2017 12:27 pm
  • Updated:May 9, 2017 2:17 pm

চেন্নাই সিটি-০               ইস্টবেঙ্গল- ২ (রবিন সিং-২)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্রিটিশ কোচ ট্রেভর জেমস মর্গ্যানের অধীনে থাকাকালীন আই লিগে বারবার মুখ থুবড়ে পড়েছিল ইস্টবেঙ্গল। শেষ দু’টি ম্যাচে কোচ পরিবর্তন করে সাফল্যের মুখ দেখলেও ফেডারেশন কাপের শুরুতে যে কে সেই। চার্চিল ব্রাদার্সের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই আটকে গিয়েছিল লাল-হলুদ ব্রিগেড। এগিয়ে গিয়েও রক্ষণের ভুলে ১-১ গোলে ড্র করে দু’পয়েন্ট মাঠেই ফেলে এসেছিলেন প্লাজা-ওয়েডসনরা। চেন্নাই সিটির বিরুদ্ধেও একই অবস্থা। যদিও প্রথমার্ধের শেষ দিকে এবং দ্বিতীয়ার্ধে পেনাল্টি থেকে বার্থডে বয় রবিন সিংয়ের জোড়া গোল তিন পয়েন্ট ঘরে তুলতে সাহায্য করল ইস্টবেঙ্গলকে। তবে সুযোগ নষ্ট না করলে চেন্নাই কিন্তু বিপদে ফেলতেই পারত ইস্টবেঙ্গলকে।

Advertisement

[গোরক্ষার নামে আইন হাতে নিলে কড়া ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি যোগীর]

মঙ্গলবার খেলার শুরু থেকেই চার্চিল ম্যাচের পরিস্থিতিই বারবার চোখে পড়ছিল। গোটা দলের মধ্যেই কেমন যেন ছন্নছাড়া ভাব। ঝুড়ি ঝুড়ি মিস পাস, বোঝাপড়ার অভাব বারবার চোখে পড়ছিল। সেই সঙ্গে ছিল দলের ফরোয়ার্ডদের সঙ্গে মাঝমাঠের খেলোয়াড়দের মধ্যে তৈরি হওয়া দূরত্ব। যার জন্য বল পজিশনে এগিয়ে থেকেও চেন্নাই রক্ষণের কাছে বারবার আটকে যাচ্ছিল ইস্টবেঙ্গল। এর পাশাপাশি বড়লোকের বাউন্ডুলে ছেলের মতোই ছিল উইলিস প্লাজার গোল মিস। বেশ কয়েকবার দুই-তিনজন খেলোয়াড়কে কাটিয়েও গোলে বল রাখতে পারেননি ত্রিনিদাদ এবং টোবাগোর খেলোয়াড়। একবার গোলকিপারকে কাটিয়েও ফাঁকা গোলে বল ঠেলতে ব্যর্থ হন তিনি। এরমধ্যে চেন্নাইও মাঝেমধ্যে ইস্টবেঙ্গল রক্ষণকে ব্যতিব্যস্ত করে তুলেছিল। তবে প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে চেন্নাই রক্ষণের ভুলে গোল পেয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল। চেন্নাই ডিফেন্ডার রাবণন এবং গোলকিপার করণজিতের ভুলে বল পান প্লাজা। তিনি সেটা রবিনকে পাস দিলে গোল করতে ভুল করেননি জাতীয় দলের খেলোয়াড়। প্রথমার্ধের খেলা শেষে ইস্টবেঙ্গল এগিয়ে ছিল ১-০ গোলেই।

Advertisement

[ফের বিনামূল্যের অফার এনে তাক লাগাল Jio]

দ্বিতীয়ার্ধেও ইস্টবেঙ্গলে খেলায় ছিল ছন্নছাড়া ভাব। এরমধ্যেই চেন্নাইও গোলশোধে মরিয়া হয়ে ওঠে। চার্লসদের আটকাতে একের পর এক ফাউল করতে থাকে লাল-হলুদ ব্রিগেড। যার ফলে বেশ কয়েকবার হলুদ কার্ড বের করতে দেখা যায় রেফারিকে। যদিও খেলার বিপরীতেই বলতে গেলে গোল পেয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল। ৭৭ মিনিটে বক্সের ভিতর চেন্নাইয়ের রাবণন হ্যান্ডবল করায় পেনাল্টি পায় ইস্টবেঙ্গল। যা থেকে দলের এবং নিজের দ্বিতীয় গোল করতে ভুল করেননি রবিন সিং। শেষপর্যন্ত ২-০ ব্যবধানেই ম্যাচটি জিতে যায় লাল-হলুদ ব্রিগেড। তবে ভাগ্য সুপ্রসন্ন থাকলে গোল শোধ করতেই পারত চেন্নাই সিটি। কারণ তাঁদের একটি ফ্রি-কিকও বারে লেগে ফিরে আসে।

[১০ জুলাইয়ের মধ্যে মালিয়াকে হাজিরার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের]

ম্যাচ জিতলেও লাল-হলুদের ফেডারেশন কাপ জয়ের ব্যাপারে সন্দিহান খোদ তাঁদের সমর্থকরাও। কারণ রোজ রোজ ভাগ্য সুপ্রসন্ন না-ই থাকতে পারে। এদিকে, এর পরের ম্যাচেই আই লিগ চ্যাম্পিয়ন আইজলের সঙ্গে খেলতে নামবে রঞ্জন চৌধুরির ছেলেরা। কিন্তু এরকমভাবে খেললে হয়তো খালিদ জামিলের ছেলেদের বিরুদ্ধে আরও সমস্যায় পড়তে হবে মেহতাবদের। এখন দেখার মনোরঞ্জন-রঞ্জন চৌধুরীরা ইস্টবেঙ্গলের এই ভুলগুলি কীভাবে সামাল দেন?

[১০ জুলাইয়ের মধ্যে মালিয়াকে হাজিরার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ