BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আই লিগে গড়াপেটার ছায়া! মিনার্ভার ২ ফুটবলারকে ৩০ লক্ষ টাকার প্রস্তাব

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 18, 2018 5:37 am|    Updated: January 18, 2018 7:39 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্ব ফুটবলে গড়াপেটার অভিযোগ উঠেছে একাধিকবার। তবে এবার সেই বিষাক্ত ছায়া পড়ল আই লিগেও। ভারতীয় ফুটবলেও ঢুকে পড়ল গড়াপেটা কেলেঙ্কারি। মিনার্ভা পাঞ্জাবের দুই ফুটবলারকে অর্থের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এমনই বিস্ফোরক দাবি মিনার্ভার কর্ণধারের।

[হারের পর সাংবাদিক সম্মেলনে মেজাজ হারালেন বিরাট, দেখুন ভিডিও]

চলতি আই লিগে দুরন্ত ফর্মে রয়েছে পাঞ্জাবের এই দল। ২০১৫-১৬ মরশুমে আই লিগ দ্বিতীয় ডিভিশনে খেলেছিল দলটি। সেবার রানার্স-আপ হিসেবে অভিযান শেষ করে তারা। টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ডেম্পো। ডেম্পো কর্তারা ক্লাব বন্ধ করে দেওয়ায় পরের মরশুমে সরাসরি মূল আই লিগে সুযোগ পেয়ে যায় মিনার্ভা। আর এবার প্রথম থেকেই নজর কাড়ছে মালিক রণজিৎ বাজাজের দল। ন’ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে মিনার্ভা। আর এরই মধ্যে উঠে এল গড়াপেটার অভিযোগ। মিনার্ভার কর্ণধার টুইট করে জানিয়েছেন, দলের দুই ফুটবলারকে মোটা অঙ্কের অর্থের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সূত্রের খবর, প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা অর্থের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তাঁদের। ইতিমধ্যেই সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন এবং এএফসি-র কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। তবে কে বা কারা প্রস্তাব দিয়েছে, সে বিষয়ে প্রকাশ্যে কিছু বলেননি মিনার্ভা মালিক। এর পিছনে বড়সড় কোনও বুকির ব়্যাকেট জড়িয়ে কিনা, তাও তদন্ত সাপেক্ষ। কোনও ফুটবলার ও কর্মকর্তাকে এ ফাঁদে পা না দেওয়ার অনুরোধও জানিয়েছেন তিনি। তবে এমন অভিযোগ নিঃসন্দেহে আই লিগের ঐতিহ্যের লজ্জা।

[মোহনবাগানের এখনও অাই লিগ জয় সম্ভব, শহরে এসেই জানালেন অাক্রম]

এবার আইএসএল-এ খেলার জন্য আই লিগে অংশ নেয়নি বেঙ্গালুরু এফসি। তাদের অনুপস্থিতিতে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে ইস্টবেঙ্গল, নেরোকা এফসি-র মতো দলগুলি। পাশাপাশি নেরোকা দলটি প্রথমবার আই লিগে খেলছে। তাই মিনার্ভার ফুটবলারদের ম্যাচ গড়াপেটার প্রস্তাব দেওয়ার বিষয়টি অন্তত্য তাৎপর্যপূর্ণ। তাদের পরের প্রতিপক্ষ দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইস্টবেঙ্গল। মিনার্ভার অনায়াস চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে বাধা হতে চাইছে কে বা কারা, সেটাই এখন বড় প্রশ্ন। এবার দেখার এ নিয়ে ফেডারেশন কী ব্যবস্থা নেয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement