BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আপাতত নির্বাচন নয়, AIFF-এর সভাপতি থাকছেন প্রফুল প্যাটেলই! বার্ষিক সভায় পাশ প্রস্তাব

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 22, 2020 2:23 pm|    Updated: December 22, 2020 2:23 pm

AIFF passed a resolution that present executive committee should continue functioning till supreme court directive on election |Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার বিসিসিআইয়ের (BCCI) দেখানো পথেই হাঁটল এআইএফএফ। বলা ভাল, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দেখানো পথেই হাঁটলেন ফেডারেশনের সভাপতি প্রফুল প্যাটেল (Praful Patel)। করোনা এবং সুপ্রিম কোর্টে মামলা ঝুলছে, এই অজুহাতে AIFF প্রেসিডেন্ট পদে নিজের মেয়াদ অনির্দিষ্টকালের জন্য বাড়িয়ে নিলেন প্রফুল। তাঁর সঙ্গে ক্ষমতায় থেকে গেল ফেডারেশনের বর্তমান কমিটিই। যতদিন না সুপ্রিম কোর্ট ফেডারেশনের নির্বাচন নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নিচ্ছে, ততদিন ভারতীয় ফুটবল নিয়ামক সংস্থার শীর্ষপদ থেকে সরতে হচ্ছে না এনসিপির নেতাকে।

 

AIFF passed a resolution that present executive committee should continue functioning till supreme court directive on election

বিষয়টি নতুন নয়। ২০১৬ সালে ফেডারেশনের শেষ নির্বাচনের সময় থেকেই সমস্যার সূত্রপাত। প্রফুল প্যাটেল তখন নির্বাচিত হয়ে ফের ফেডারেশনের সভাপতির আসনে বসেছেন। ২০০৮ সালে প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি অসুস্থ হওয়ার পর থেকেই ফেডারেশনের সভাপতি প্রফুল। ২০১২ এবং ২০১৬ সালে ভোটে জিতে আসেন তিনি। সেই সময়েই স্পোর্টস কোড না মেনে নির্বাচনের বিধিভঙ্গ হয়েছে দাবি করে দিল্লি হাই কোর্টে মামলা ঠুকে দেন রাহুল মেহেরা। পালটা সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) গিয়ে স্থগিতাদেশ নিয়ে আসে ফেডারেশন (AIFF)। আসলে, স্পোর্টস কোড অনুযায়ী, ফেডারেশনের বর্তমান সভাপতি প্রফুল প্যাটেল এরপর আর নির্বাচনে দাঁড়াতে পারবেন না। কারণ, ইতিমধ্যেই ৩ বার এই পদ তিনি সামলেছেন। আর শুধু প্রফুল কেন? ফেডারেশনের ৯০ শতাংশ কর্তাই এই নিয়মের গেরোয় ফেঁসে গিয়েছেন। সেকারণেই, ফেডারেশন নির্বাচনে খুব একটা আগ্রহ দেখাচ্ছে না।

[আরও পড়ুন: উইলিয়ামসের অনবদ্য গোলের সৌজন্যে সুনীল ছেত্রীদের হারাল এটিকে মোহনবাগান]

সোমবার ফেডারেশনের বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। হিসেব মতো নির্বাচন নিয়ে গতকালই আলোচনা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সোমবার ফিফা (Fifa), এএফসি এবং এশিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের কর্তাদের উপস্থিতিতে হওয়া বৈঠকে নির্বাচন নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি। উলটে, সর্বসম্মতিক্রমে বর্তমান কর্তাদের মেয়াদ অনির্দিষ্টকাল বাড়ানোর জন্য একটি প্রস্তাব পাশ করানো হয়েছে। নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী সুপ্রিম কোর্ট যতদিন হস্তক্ষেপ না করছে, ততদিন ফেডারেশনের বর্তমান কমিটি বহাল থাকবে। তবে। এই সময়কালে ফেডারেশনের বড় কোনও আর্থিক সিদ্ধান্ত বা নীতি নির্ধারণ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত বর্তমান কমিটি নেবে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে