১০ মাঘ  ১৪২৭  রবিবার ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ডার্বির আগে বড় ধাক্কা সবুজ-মেরুন শিবিরে! লাল-হলুদকে তাতাচ্ছে ইতিহাস

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 23, 2020 4:40 pm|    Updated: November 23, 2020 4:40 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: প্রথম ডার্বি হয়েছিল সেই ১৯২৫ সালে। সেই ডার্বিতে নেপাল চক্রবর্তীর করা একমাত্র গোলে জিতেছিল ইস্টবেঙ্গল। সেই ম্যাচের কাহিনি রবিবার তুলে ধরা হয় এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal) শিবিরে। সেই সঙ্গে বলা হয়, সেই দিনটি কিংবা ম্যাচটার কথা যেন সকলে স্মরণ করে। আসলে ১৯২৫ সালের সঙ্গে ২০২০-র আইএসএলের (ISL 2020) ডার্বির কোনও পার্থক্য নেই। সেবার যেমন ডার্বির ইতিহাসের শুভ সূচনা হয়েছিল। আগামী শুক্রবারও এককথায় তাই হতে চলেছে। কারণ সেইদিন ভারতীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ লিগে প্রথম কলকাতার দুই প্রধান খেলতে নামবে। সেই কারণে এই ছবি দিয়েই লাল-হলুদ শিবিরের পক্ষ থেকে বোঝানো হয়েছে, সেদিন যদি ইস্টবেঙ্গল পারে চিরশত্রু দলকে হারাতে, তাহলে এবার পারবে না কেন? তবে দলের প্রত্যেককে বোঝানো হচ্ছে, ডার্বি শব্দটা যেন মনে গেঁথে না যায়। তাতে দলের উপর বাড়তি চাপ পড়তে পারে। সেটা ভেবেই নাকি কোচ রবি ফাউলার এমন নির্দেশ দিয়েছেন সকলকে।

লাল-হলুদ শিবিরে যখন আইএসএল শুরুর প্রস্তুতি, তখন ডার্বির আগে খানিকটা চিন্তায় সবুজ-মেরুন (ATK Mohun Bagan)। কারণ একটা ব্যাপার স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, সুসাইরাজ শুক্রবারের ডার্বিতে নেই। তাঁকে পাওয়া যাবে না ধরে নিয়েই এগোতে শুরু করেছেন হাবাস। অনুশীলনে তাঁর জায়গায় মূলত খেলতে দেখা যায় শুভাশিস বসুকে। আজই মিলতে পারে সুসাইরাজের এমআরআই রিপোর্ট। তবে চোটের বহর যা, তাতে তাঁকে শুধু ডার্বি নয়, আগামী একমাস মাঠে দেখা যাবে কি না সন্দেহ।

[আরও পড়ুন: OMG! করোনা কালে আইপিএল আয়োজন করে এত টাকা আয় করল বিসিসিআই!]

মহাযুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু হয়ে দিয়েছে ইতিমধ্যেই। রবিবার সন্ধেয় দলকে নিয়ে প্র্যাকটিসে নেমেছিলেন কোচ হাবাস। প্রায় দু’ঘণ্টা চলে প্র্যাকটিস। এই দু’ঘণ্টার অনুশীলনে স্প্যানিশ কোচ মূলত জোর দিয়েছেন সেট পিস ও পজেশনাল প্লের উপর। আসলে প্রথম ম্যাচের পর এদিন প্রথম দল নামল মাঠে। তাই হাবাস মূলত জোর দিয়েছেন গতম্যাচের ভুল-ভ্রান্তির উপর। প্রত্যেককে বুঝিয়েছেন কেরালা ব্লাস্টার্স দলের বিরুদ্ধে কে কোথায় ভুল করেছেন।

প্র্যাকটিসের মাঝে প্রবীর দাসের সঙ্গে কথা বলেন কোচ। গত ম্যাচে তেমন নজর কাড়তে পারেননি প্রবীর। তাই আলাদা করে ডেকে সম্পূর্ণ বুঝিয়ে দিয়েছেন কোচ। আসলে হাবাস মনে করছেন প্রথম ম্যাচে দল জিতলেও তেমন আশানুরূপ খেলা দেখা যায়নি। তাই তিনি প্রত্যেককে সতর্ক থাকতে বলেছেন। টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য গোয়া থেকে বলছিলেন, “ডার্বির প্রস্তুতি শুরু হয়েছে ঠিকই। তবে কী পদ্ধতিতে হাবাস শুক্রবারের ম্যাচ খেলবেন তা এখনও ঠিক করেননি। এটুকু বলতে পারি, দ্বিতীয় ম্যাচ নিয়ে প্রচণ্ড সিরিয়াস হাবাস। তিনি হয়তো দ্রুতই একটা দল সেট করে ফেলবেন। তবে উইনিং কম্বিনেশন ভাঙবেন বলে মনে হয় না।”

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জোড়া ডার্বি, সিএবির T-20 লিগে মুখোমুখি মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement