BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এটিকে-মোহনবাগান সংযুক্তিকরণ নিয়ে মুখ খুললেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

Published by: Sulaya Singha |    Posted: January 17, 2020 2:25 pm|    Updated: January 17, 2020 2:56 pm

BCCI President Sourav Ganguly reacts to Mohun Bagan-ATK merger

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোহনবাগান এবং এটিকে। দুটি দলই তাঁর খুব কাছের। প্রথম দলটির খেলা দেখে বড় হয়েছেন। গত বছর আবার এই ক্লাব তাঁর হাতে তুলে দিয়েছে আজীবন সদস্য পদের সম্মান। দ্বিতীয় দল আবার তাঁর সন্তানতুল্য। দলের অন্যতম কর্ণধার হিসেবে সাদা-লাল জার্সি গায়ে বহুবার ধরা দিয়েছেন আইএসএলের মঞ্চে। আর এই দুই দল যখন মিলেমিশে গেল, তখন আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছেন তিনি। কথা হচ্ছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। মোহনবাগান এবং এটিকের সংযুক্তিকরণ নিয়ে মুখ খুললেন মহারাজ।

মোহনবাগান-এটিকে (ATK) সংযুক্তিকরণ নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত সমর্থকরা। কেউ কেউ শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানালেও অনেকেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন। মোহনবাগানের সঙ্গে এটিকের নাম জুড়ে যাওয়া একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না সবুজ-মেরুন ভক্তদের একাংশ। যদিও ক্লাবকর্তাদের তরফে সমর্থকদের আশ্বস্ত করে জানানো হয়েছে, এই সংযুক্তিকরণে ক্লাবের গৌরবময় ইতিহাস এবং ঐতিহ্যে কোনও আঁচ আসবে না। এতে ক্লাবের পরিকাঠামো এবং ফুটবলের স্তর- দুটোই আমূল বদলে যাবে। সমর্থকদের মনে দ্বিধা থাকলেও ময়দানের এই মিশেলে উচ্ছ্বসিত সৌরভ। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট টুইট করেন, “বাংলা ফুটবলের এক চিরস্মরণীয় পার্টনারশিপ। আমি নিশ্চিত, এটিকে আর মোহনবাগান ভারতীয় ফুটবলকে একসঙ্গে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পথ দেখাবে।” অর্থাৎ সৌরভের বিশ্বাস, কলকাতার দুই দল জুড়ে যাওয়ায় ফুটবলের উন্নতি নিশ্চিত।

[আরও পড়ুন: জল্পনার অবসান, মে মাসের পরই বন্ধ হচ্ছে ‘কোয়েস ইস্টবেঙ্গল এফসি’]

বৃহস্পতিবার এটিকের তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, আরপি-সঞ্জীব গোয়েঙ্কা-গ্রুপ মোহনবাগান ফুটবল ক্লাবের ৮০ শতাংশ শেয়ার অধিগ্রহণ করছে। তবে ক্লাবের বাকি সব খেলা অর্থাৎ ক্রিকেট, অ্যাথলেটিক্স সবই থাকবে বর্তমান কমিটির হাতেই। এই নতুন চুক্তিতে মোহনবাগানের অস্তিত্ব সংকটের কোনও প্রশ্নই ওঠে না। কারণ, যে এটিকে-মোহনবাগান এফসি তৈরি হচ্ছে, তাঁর লোগো এবং জার্সি মোহনবাগানেরই থাকবে।

এটিকের কর্ণধার সঞ্জীব গোয়েঙ্কা বলেন, “মোহনবাগান শুধুই একটা ক্লাব নয়, একটা ঐতিহ্য-আবেগ। আমি ছোট থেকে এই ক্লাবের খেলা দেখে বড় হয়েছি। আমার বাবা মোহনবাগানের সদস্য ছিলেন। ঠাকুরদাও এই ক্লাবের সমর্থক ছিলেন। সবদিক বিচার করে মোহনবাগান সিদ্ধান্তটা নিতে অনেক সময় লাগায়। এখানে কর্তাদের মধ্যে কোনও অহং বা ইগোর ব্যাপার নেই। শুধু আবেগ আছে।” চলতি বছর জুন থেকেই নয়া চুক্তি কার্যকর হবে। তবে এটিকের সঙ্গে জুড়ে গেলেও কলকাতা লিগ, আইএফএ শিল্ড-সহ সব টুর্নামেন্টই খেলবে মোহনবাগান।

[আরও পড়ুন: পেটের টান, উবের চালাচ্ছেন একসময়ের বিশ্বকাপ কাঁপানো ফুটবলার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে