৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

আলাপন সাহা: বিরক্ত বললে কম বলা হবে। ডার্বির প্রসঙ্গ উঠলেই অতীব বিরক্ত মোহনবাগান কোচ কিবু ভিকুনা। রবিবার ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে নামার আগে বুধবার শেষ লিগের ম্যাচ। তাই ডার্বি নিয়ে প্রশ্ন হবে, সেটা জানাই ছিল। ভিকুনা ভাবেননি বিএসএস ম্যাচে নামার আগে ইস্টবেঙ্গল নিয়ে তাঁকে একঝাঁক প্রশ্নের সামনে দাঁড়াতে হবে। শুরুতে দু’একবার বললেন ডার্বি নিয়ে তিনি এখনই কিছু ভাবছেন না। ভাবনা শুরু হবে বুধবারের ম্যাচ পর। কিন্তু ঘুরে-ফিরে বারবারই ডার্বি এল। আর তাতেই বিরক্ত ভিকুনা। বাধ্য হয়ে বললেন, “আমি এক কথা আপনাদের বলে যাচ্ছি। কেন বারবার একই প্রশ্ন করে যাচ্ছেন? এখন বিএসএস ম্যাচ নিয়ে ভাবছি। এর বাইরে কিছু নয়।”

[আরও পড়ুন: বিএসএসকে হারিয়ে ঘরোয়া লিগে প্রথম জয় ইস্টবেঙ্গলের]

ভিকুনা যাই বলুন, ডার্বি নিয়ে ভাবনা শুরু হয়ে গিয়েছে মোহনবাগানে। ইস্টবেঙ্গল ম্যাচের কথা ভেবে বুধবার বেইতিয়াকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে। শোনা গেল, ১৮ জনের টিমে হয়তো রাখা হবে। কিন্তু শুরুতে তিনি থাকছেন না। কারণটা পরিষ্কার, বড় ম্যাচের আগে তরতাজা রাখার চেষ্টা। ডুরান্ড-লিগ মিলিয়ে টানা খেলেছে মোহনবাগান। এখন শুধুই লিগ। এই মুহূর্তে মোহনবাগান মাঝমাঠের স্তম্ভ বেইতিয়া। ডার্বির আগে তাঁকে খেলিয়ে ঝুঁকি নিতে নারাজ টিম ম্যানেজমেন্ট।

[আরও পড়ুন: নিশ্চিত পেনাল্টি ছিল, ডুরান্ড ফাইনালে রেফারিং নিয়ে সরব সোনি]

শুধু বেইতিয়াই বিশ্রামে নয়, দলে বেশ কিছু বদল হবে। বুধবার খেলতে পারেন চুলোভা। ডার্বির আগে তাঁকে দেখতে চান কোচ। কাস্টমস ম্যাচে লাল কার্ড দেখায় খেলবেন না কিমকিমা। ডিফেন্সে ফ্রান মোরান্তের সঙ্গে গুরজিন্দর আসতে পারেন। সাইড ব্যাক-ধনচন্দ্র সিং আর চুলোভা। মাঝমাঠে ফ্রান। রোমারিও জেসুরাজের সঙ্গে ব্রিটোকে ভাবা হচ্ছে। ইস্টবেঙ্গল-বিএসএস ম্যাচ টিভিতে দেখেছেন ভিকুনা। প্রতিপক্ষ নিয়ে এটুকুই ধারণা। ভিকুনার মনে হয়েছে, বিএসএস ভাল দল। বিদেশিরাও ভাল। বলছিলেন, “ম্যাচটা দেখেছি। বিএসএস লড়াই করেছে। শেষ মুহূর্তে তো একটা গোলও করল।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং