০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ISL: মাথায় গুরুতর চোট এটিকে মোহনবাগানের তারকা ম্যাকহিউয়ের, অ্যাম্বুল্যান্সে ছাড়লেন মাঠ

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: January 5, 2022 8:41 pm|    Updated: January 5, 2022 10:37 pm

Carl Mchugh got injured on the field and transferred to hospital

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খেলা চলাকালীন মাথায় চোট পেলেন এটিকে-মোহনবাগানের (ATK Mohun Bagan) বিদেশি তারকা কার্ল ম্যাকহিউ। কিছুক্ষণের জন্য মাঠেই সংজ্ঞা হারান তিনি। পরে অবশ্য কিছুটা সুস্থ হয়ে অ্যাম্বুল্যান্সে ছাড়লেন মাঠ। তাঁকে নিয়ে যাওয়া হল হাসপাতালে। খেলা বন্ধ থাকে প্রায় আট মিনিট। বুধবার আইএসএলে (ISL) এটিকে মোহনবাগান বনাম হায়দরাবাদ ম্যাচে কিছুক্ষণের জন্য হলেও ফিরে এল জুনিয়রের স্মৃতি। 

এদিন খেলার শুরুতেই ছিল চমক। ১২ সেকেন্ডে বাঁ পায়ের জোরালো শটে গোল করে সবুজ মেরুন শিবিরকে এগিয়ে দেন ডেভিড উইলিয়ামস (David Williams)। আইএসএলের ইতিহাসে এটাই দ্রুততম গোল। হায়দরাবাদ সমতা ফেরায় ১৮ মিনিটে। গোলকিপার অমরিন্দরের ক্ষমাহীন ভুলে গোল হজম করে এটিকে মোহনবাগান।

[আরও পড়ুন: India vs South Africa: জমে গেল দ্বিতীয় টেস্ট, প্রোটিয়াদের ২৪০ রানের টার্গেট দিল ভারত]

দু’ দলের মধ্যে যখন তীব্র লড়াই চলছে, ঠিক তখনই ছন্দপতন। হায়দরাবাদের বিদেশি খেলোয়াড় ওগবেচের সঙ্গে সংঘর্ষে মাথায় চোট পান এটিকে মোহনবাগানের কার্ল ম্যাকহিউ। ওগবেচে উঠে পড়লেও ম্যাকহিউকে কিন্তু মাঠে পড়ে থাকতেই দেখা যায়। সবুজ-মেরুনের বিদেশি তারকার চোটের পর মাঠে দেখা যায় ভীত, সন্ত্রস্ত কয়েকটা মুখ। রয় কৃষ্ণকে উদ্বিগ্ন হয়ে তাকিয়ে থাকতে দেখা যায় ম্যাকহিউয়ের দিকে। এটিকে মোহনবাগান কোচ ফেরান্দোরও চোখেমুখে ভয়ের ছাপ তখন স্পষ্ট।

এ দেশের ফুটবল মাঠে আতঙ্কের দৃশ্য তো আগেও দেখা গিয়েছিল। বেঙ্গালুরুর মাঠে জুনিয়রের স্মৃতি এখনও টাটকা। আশিয়ান কাপে শূন্যে বল দখলের লড়াইয়ের সময়ে পড়়ে গিয়ে সংজ্ঞা হারিয়েছিলেন ইস্টবেঙ্গলের দেবজিৎ ঘোষ। সন্তোষ ট্রফিতে মাঠের ভিতরেই চোট পেয়ে অকালে ঝরে গিয়েছিলেন সঞ্জীব দত্ত। এই সব স্মৃতি ফুটবল প্রেমীদের মনে এখনও জীবন্ত। 

 

ম্যাকহিউও এদিন কিছুক্ষণের জন্য সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেন।  চিকিৎসার জন্য মাঠে ঢুকে পড়ে মেডিক্যাল টিম। ম্যাকহিউকে মাঠ থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য মাঠে চলে আসে অ্যাম্বুল্যান্সও। মাথায় চোট পেয়ে কনকাশন হওয়া ম্যাকহিউয়ের চিকিৎসা শুরু হয় মাঠের ভিতরেই। কিছুক্ষণ বাদে অবশ্য চিকিৎসায় সাড়া দেন এই বিদেশি ফুটবলার। উঠে বসেন তিনি। মেডিক্যাল টিমের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় তাঁকে। দু’ দলের ফুটবলারদের চোখে মুখে তখন স্বস্তির ছাপ। কিছুটা সুস্থ হয়ে  ম্যাকহিউ উঠে পড়েন অ্যাম্বুল্যান্সে। অ্যাম্বুল্যান্স ছাড়ার আগে ম্যাকহিউকে কিছু বলতেও দেখা যায়। ম্যাকহিউয়ের জায়গায় নামানো হয় জনি কাউকোকে। 

[আরও পড়ুন: তাঁর নামের আগে ‘লর্ড’ কেন? মুখ খুললেন ভারতীয় পেসার শার্দূল ঠাকুর]

 

 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে