×

৪ চৈত্র  ১৪২৫  বুধবার ২০ মার্চ ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

চার্চিল ব্রাদার্স: ৩ (প্লাজা-২, রেমি)

চেন্নাই এফসি: ২ (রগরিগেজ, মাঞ্জি-পেনাল্টি)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুক্রবারই কি আই লিগের চূড়ান্ত ফলাফল নির্ধারিত হয়ে যাবে? নাকি ভাগ্যের শিকে ছিঁড়বে ইস্টবেঙ্গলের? এই প্রশ্নেই সরগরম ছিল ময়দান। আর ৯০ মিনিট শেষে লাল-হলুদের এক প্রাক্তনীই হাসি ফোটালেন ইস্টবেঙ্গল ফুটবলার ও সমর্থকদের মুখে। চার্চিলকে জিতিয়ে চেন্নাইয়ের লিগ জয়ের স্বপ্নে জোর ধাক্কা দিলেন উইলিস প্লাজা।

[ভারত-পাক সীমান্তে উত্তেজনা চরমে, অনিশ্চিত মোহালি ম্যাচ]

তিলক ময়দানে তিন পয়েন্ট পকেটে পুরতে পারলেই প্রথমবার আই লিগ জয়ের স্বাদ পেত চেন্নাই। তখন ইস্টবেঙ্গলের বাকি ম্যাচগুলো হয়ে যেত নেহাতই নিয়মরক্ষার। এমন পরিস্থিতিতে এদিন চার্চিল ব্রাদার্সের জয়ের জন্যই প্রার্থনা করছিলেন লাল-হলুদ সমর্থকরা। তাঁদের প্রার্থনা শেষমেশ কাজে আসে। চেন্নাই পয়েন্ট না পাওয়ায় ফের উজ্জ্বল হল ইস্টবেঙ্গলের লিগ জয়ের আশা। আর আলেজান্দ্রো অ্যান্ড কোম্পানির মুখের হাসি যিনি চওড়া করলেন, তিনি এককালে লাল-হলুদ জার্সি গায়েই মাঠে নামতেন। জোড়া গোল করে লিগ তালিকার শীর্ষে থাকা চেন্নাইকে এদিন বেকায়দায় ফেলে দেন প্লাজা। চার্চিলের হয়ে আরেকটি গোল ক্রিস্ট রেমির।

ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগানের মতো দলকে অনায়াসে হারিয়েছিল চেন্নাই। ফলে ফেভারিট হিসেবেই এদিন মাঠে নেমেছিলেন আকবর নাওয়াসের ছেলেরা। কিন্তু অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসই কি কাল হল? চার্চিলের বিরুদ্ধে যে জিততেই চলেছেন, এমনটাই কি ধরে নিয়েছিলেন পেদ্রোরা? গোয়ার দলের কাছে ধরাশায়ী হওয়ার পর সে প্রশ্ন উঠেই গেল। প্রত্যাশা মতোই এদিন দুরন্ত ছন্দে খেলা শুরু করেছিল চেন্নাই। মিনিট তিরিশের মধ্যেই রডরিগেজের গোলে এগিয়ে যায় দল। কিন্তু সমতায় ফিরতে বেশি দেরি করেনি চার্চিল। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আবার রেমির গোলে এগিয়ে যায় গোয়ার দল। তবে পেনাল্টি থেকে গোল শোধ করেন পেদ্রো। কিন্তু এদিন প্লাজাকে কোনওভাবেই আটকে রাখতে পারেননি চেন্নাইয়ের ডিফেন্ডাররা। প্রতিপক্ষের কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দেন তিনি। শুধু তাই নয়, জোড়া গোল করে চলতি লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকার শীর্ষে থাকা পেদ্রোকে ছুঁয়ে ফেললেন প্লাজা (২০)। চেন্নাইয়ের এদিনের হারকে পুরোদমে কাজে লাগাতে চায় ইস্টবেঙ্গল। চেন্নাই যদি পরের ম্যাচ ড্র করে এবং ইস্টবেঙ্গল যদি বাকি দুটো ম্যাচ জেতে তাহলে দীর্ঘদিনের খরা কাটিয়ে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হবে টিম লাল-হলুদ। আর চেন্নাই সেলিব্রেশনে মাততে চাইলে পরের ম্যাচ জিততেই হবে তাদের। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং