Advertisement
Advertisement
East Bengal

কলকাতা লিগের প্রথম ম্যাচে হোঁচট ইস্টবেঙ্গলের, গোলশূন্য ড্র করল লাল হলুদের রিজার্ভ টিম

নিশ্চিত গোল বাঁচিয়ে মন জয় করে নেন খিদিরপুরের গোলকিপার প্রিয়ন্ত সিং।

East Bengal vs Khidirpur match in Calcutta Football League ended in draw | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:September 25, 2022 4:28 pm
  • Updated:September 25, 2022 4:31 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ড্র দিয়ে কলকাতা লিগে যাত্রা শুরু করল ইস্টবেঙ্গল (East Bengal)। খিদিরপুরের বিরুদ্ধে 0-0 ফলে ম্যাচ ড্র করল স্টিভন কনস্ট্যান্টাইনের দল। তবে খিদিরপুরের (Khidirpur FC) বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিল লাল হলুদের রিজার্ভ বেঞ্চ। সকালেই ভারতীয় অনূর্ধ্ব-২০ দলের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলায় বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল প্রথম একাদশের খেলোয়াড়দের। সহকারী কোচ বিনো জর্জ জানিয়েছিলেন, রিজার্ভ দলের উপরেও যথেষ্ট ভরসা করা হচ্ছে। তারাই বাজিমাত করতে পারবে। 

তবে রিজার্ভ বেঞ্চের দল নিয়ে মাঠে নামলেও প্রথম থেকেই দাপট দেখিয়েছে লাল হলুদ। তাদের মুহুর্মুহু আক্রমণে কার্যত দিশেহারা হয়ে পড়েছিল খিদিরপুরের ডিফেন্স। অন্তত তিনবার গোলের সুযোগ এসেছিল ইস্টবেঙ্গলের সামনে। কিন্তু বারবার গোল নষ্ট করেছে লাল হলুদ ফরোয়ার্ডরা। নৈহাটি স্টেডিয়ামে কলকাতা লিগের সুপার সিক্স পর্যায়ের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। বল পজেশনে বেশ খানিকটা এগিয়ে থাকলেও লাভ হয়নি। গোলকিপারকে টপকে যেতে পারেননি ফরোয়ার্ডরা। ৩৬ মিনিটে একটি ফ্রি-কিক পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি ইস্টবেঙ্গল। গোল শূণ্য ভাবে ম্যাচের প্রথমার্ধ শেষ হয়।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ঋতুপর্ণা-অম্বরীশের সঙ্গে ঝরঝরে বাংলায় কথা বললেন ধোনি, দেখুন ভিডিও]

তবে দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়িয়ে মাঠে নামে খিদিরপুর। বেশ কয়েকবার গোলের সুযোগও পায় তারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারাও গোল করতে পারেনি। তবে ইস্টবেঙ্গল রক্ষণকে বেশ সমস্যায় ফেলে দেয় তারা। গোল লক্ষ্য করে দশটি শট মারে খিদিরপুর অন্যদিকে, ইস্টবেঙ্গলের গোলমুখী শটের সংখ্যা ১৪। কিন্তু বেশ কয়েকটি নিশ্চিত গোল বাঁচিয়ে দেন খিদিরপুরের গোলকিপার প্রিয়ান্ত সিং। 

Advertisement

রবিবারই কলকাতা লিগে (Calcutta Football League) খেলতে নেমেছিল মহমেডানও। এরিয়ানের বিরুদ্ধে ম্যাচের প্রথমার্ধেই এক গোলে এগিয়ে যায় ডুরান্ড কাপের সেমিফাইনালিস্টরা। গোল করে দলকে এগিয়ে দেন জোসেফ এম। দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমেও ব্যবধান বাড়াতে সফল হয় তারা। শেষ পর্যন্ত ৩-০ ফলে ম্যাচ জিতে যায় মহমেডান।  

[আরও পড়ুন: সিরিজ নির্ধারক যুদ্ধে ভারত, রোহিতের কাঁটা হর্ষল-চাহালের ফর্ম]

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ