BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সুপার লিগ: ক্ষমা চেয়েই ছাড় পেল ৯টি ক্লাব, শাস্তির মুখে পড়তে পারে রিয়াল-বার্সা-জুভেন্তাস

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 8, 2021 7:01 pm|    Updated: May 8, 2021 7:24 pm

European Super League: Nine rebel clubs accept sanctions and commit their future to UEFA | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শৃঙ্খলা ভেঙে ইউরোপিয়ান সুপার লিগে যোগ দিয়েও কোনও শাস্তির মুখে পড়তে হল না ইউরোপের ৯টি ক্লাবকে। উয়েফার কাছে স্রেফ ক্ষমা চেয়েই নিস্তার পেয়ে গেল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, ম্যাঞ্চেস্টার সিটি, চেলসি (Chelsea), আর্সেনাল, টটেনহ্যাম হটস্পার্স, এসি মিলান, ইন্টার মিলান এবং অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এই ৯টি ক্লাবই জানিয়েছে, বিদ্রোহী ওই সুপার লিগে নাম লেখানো তাঁদের ভুল ছিল। সেজন্য উয়েফা যদি কোনও আর্থিক জরিমানাও করে, সেটাও তাঁরা দিতে রাজি। কিন্তু ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ামক সংস্থা ওই ক্লাবগুলিকে বড় কোনও শাস্তির নিদান দেয়নি। তবে, যে তিনটি ক্লাব এখনও ক্ষমা চায়নি, তাঁদের বিরুদ্ধে যথাসময়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ইঙ্গিত করেছে। এই তিনটি ক্লাব হল রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা এবং রোনাল্ডোর জুভেন্তাস।

প্রসঙ্গত, মাসখানেক আগে রিয়াল (Real Madrid), বার্সেলোনা, অ্যাটলেটিকো, দুই ম্যাঞ্চেস্টার, চেলসি, লিভারপুল, আর্সেনাল, টটেনহ্যাম, দুই মিলান এবং জুভেন্তাসের মতো বারোটা মহাশক্তিধর ইউরোপীয় ক্লাবকে নিয়ে গঠন হয়েছিল বিদ্রোহী লিগ। সুপার লিগ যার পোশাকি নাম। যারা ঠিক করে ফেলেছিল, আগামী মরশুম থেকে উয়েফার ‘আশ্রয়ে’ তারা আর থাকবে না, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ (Champions Legue) না খেলে, খেলবে সুপার লিগ। যে টুর্নামেন্টে কোনও ওঠা-নামা থাকবে না। কিন্তু ঘনঘন খেলা হবে মহাশক্তিদের। তাতে মুনাফা বাড়বে, কাটবে আর্থিক সংকটে পড়া ক্লাবগুলো, বাঁচবে ফুটবল। কিন্তু সেই সুপার লিগ ভূমিষ্ঠ হওয়ার আটচল্লিশ ঘণ্টার মধ্যেই সব ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। ফিফা হুমকি দিতে থাকে। উয়েফা শাসাতে থাকে। সবচেয়ে বড় কথা, ক্লাবগুলোর সমর্থককুল বিদ্রোহের পথে নেমে পড়ে। যার পর নতিস্বীকারে বাধ্য হয় বারোটার মধ্যে দশটা ক্লাব। রিয়াল আর বার্সেলোনা বাদে সবাই ঘোষণা করে দেয় যে, তারা আর সুপার লিগ প্রোজেক্টে নেই। তারা ভুল করেছিল। দশটি ক্লাবের মধ্যে ৯টি ক্লাব সরকারিভাবে উয়েফার কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেয়।

[আরও পড়ুন: কোভিডবিধি ভেঙে বাড়িতেই পার্টি, মেসির বিরুদ্ধে শুরু তদন্ত]

ক্ষমা চাওয়ার জেরে তাঁরা ছাড়ও পেয়ে গেল। মাঝখানে শোনা গিয়েছিল এই বিদ্রোহী ক্লাবগুলিকে ৩ বছরের জন্য নির্বাসনে পাঠাতে পারে উয়েফা। নিদেনপক্ষে বড় অঙ্কের জরিমানা করা হতে পারে। ক্লাবগুলি অবশ্য এসবের পরিবর্তে নিজেদের ইউরোপিয়ান রেভেনিউ থেকে ৫ শতাংশ পর্যন্ত দিতে জরিমানা হিসেবে দিতে রাজি ছিল। ওই সামান্য অঙ্কের জরিমানাতেই ছাড় পেয়ে গেল তারা। তবে, সেই সঙ্গে প্রতিশ্রুতি দিতে হল, ভবিষ্যতে এই ধরনের আর কোনও লিগে এই ক্লাবগুলি নাম লেখাবে না। সেটা হলে বড় অঙ্কের জরিমানা করা হবে। উয়েফার প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ক্লাবগুলি নিজেদের ভুল দ্রুত বুঝতে পেরেছে। ইউরোপিয়ান ফুটবলের ভবিষ্যতের কথা ভেবে তারা আবার ফিরে এসেছে।’ তাই ফুটবলের উন্নতির কথা ভেবেই ৯ বড় ক্লাবকে ছাড় দিল উয়েফা। তবে, যে তিনটি ক্লাব এখনও ক্ষমা চায়নি তাঁদের যে বড় শাস্তি দেওয়া হবে, সেটাও জানিয়ে দিয়েছে উয়েফা। যদিও রিয়াল মাদ্রিদ তথা সুপার লিগ প্রেসিডেন্ট ফ্লেরেন্তিনো পেরেজ (Florentino Pérez) হুমকি দিয়ে রেখেছেন, যদি তাঁদের শাস্তি পেতে হয়, তাহলে কাউকে তাঁরা ছেড়ে কথা বলবেন না। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement