BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৭  শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

গোয়ার বুকে আজ বাঙালির মর্যাদার যুদ্ধ, টিমগেমেই বাজিমাত করবে সবুজ-মেরুন

Published by: Biswadip Dey |    Posted: February 19, 2021 12:48 pm|    Updated: February 19, 2021 12:48 pm

An Images

প্রসূন বন্দ‌্যোপাধ‌্যায়: সকালে কাগজে চোখ বোলাতে গিয়ে দেখলাম, কেউ কেউ বলছেন আজ নাকি বাংলার ডার্বি হচ্ছে। সত্যিই কি তাই? বাংলা কেন, এ তো ভারতের ডার্বি (Derby)। ইংল্যান্ডে বহু ডার্বি হয়। আমাদের দেশে এতদিন পর্যন্ত মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল মুখোমুখি হওয়াটাকেই ডার্বি বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। এখন মোহনবাগানের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এটিকে। ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে এসসি (SC East Bengal)। মনের গভীরে কিন্তু থেকে গিয়েছে সেই সবুজ-মেরুন আর লাল-হলুদের লড়াই। ভারতীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ মঞ্চে দু’দল মুখোমুখি হওয়া মানেই তার রোমাঞ্চ আলাদা। তবে নির্দ্বিধায় বলতে পারি আজ এটিকে মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan) অনেকটা এগিয়ে।

কেন এগিয়ে সেই ব্যাখ্যায় যাওয়ার আগে একটা কথা বলব, সাম্প্রতিককালে এত ভাল খেলতে কখনও এটিকে মোহনবাগানকে দেখিনি। ৩০-৪০টা ডার্বি খেলেছি। তাই জানি ডার্বির মাহাত্ম্য কতটা। প্রকৃতপক্ষে টিম গেম খেলছে সবুজ-মেরুন শিবির। ১৯৭৭ সালে ত্রিমুকুট পেয়েছিলাম। সেবার একে অপরকে চোখ বন্ধ করে বুঝে যেতাম। এবার তার প্রতিফলন দেখছি। ফুটবলে চারটে অংশ। গোলকিপার, ডিফেন্স, মাঝমাঠ, ফরোয়ার্ড। প্রতিটি জায়গায় দুরন্ত সব ফুটবলার রয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘প্লে অফের সুযোগ নেই, চাপে থাকবে লাল-হলুদই’, ডার্বির আগে আত্মবিশ্বাসী অরিন্দমরা]

গোলে অরিন্দম ভট্টাচার্য। গত ম্যাচে জামশেদপুরের বিপক্ষে শেষ মুহূর্তে রয় কৃষ্ণ গোল দিয়ে দলকে জিতিয়ে হল ম্যাচের নায়ক। আমি বলব, ম্যাচের নায়ক আসলে অরিন্দম। ভালসকিসের নিশ্চিত গোল সেদিন বঙ্গসন্তান না বাঁচালে ম্যাচের শেষ পরিণতি কী হত কে জানে। মাঝমাঠে কার্ল ম্যাকিউ ও লেনি যেন যোগসূত্রের বন্ধনে দলকে ধরে রেখেছে। ফরোয়ার্ডে রয় কৃষ্ণ, ডেভিড উইলিয়ামস, মনবীর ও মার্সেলিনহো যে সব আক্রমণ সাজাচ্ছে তাকে এককথায় বলা উচিত অসাধারণ। বিশেষ করে রয় কৃষ্ণের পারফরম্যান্সকে সাধুবাদ জানানোর মতো ভাষা আমার জানা নেই। প্রকৃত টিমম্যান হল রয় কৃষ্ণ। তাই এদেশে আসা বিদেশিদের মধ্যে এই জায়গায় ফিজির স্ট্রাইকার সকলকে টেক্কা দিয়ে যাচ্ছে।

এটিকে মোহনবাগান সবদিক দিয়ে এগিয়ে ঠিকই, তবে বিপক্ষ দলটার নাম এসসি ইস্টবেঙ্গল। ওদের ডিফেন্স বেশ ভাল খেলছে। গোলে সুব্রত পাল এসে যাওয়ায় নিশ্চিন্ত হওয়ার একটা দিক যেমন ফুটে উঠছে। অন্যদিকে রাজু, ড্যানি ফক্স, সার্থকরা প্রতিপক্ষের আক্রমণ ভালমতো রুখে দিতে পারছে। যার ফলে সহজে গোল খাচ্ছে না। তাই খেলার শেষ বাঁশি বাজা পর্যন্ত ওদের নিয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে না।

[আরও পড়ুন: লিগ টেবিলে শীর্ষে ওঠার পর ডার্বি জয়ের ব্যাপারেও প্রত্যয়ী সবুজ-মেরুন কোচ হাবাস]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement