BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কাতারে বাবা জর্জের স্মৃতি উসকে দিলেন ছেলে টিমোথি, বেল লিখলেন নতুন রূপকথা

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: November 22, 2022 9:54 am|    Updated: November 22, 2022 9:58 am

Father George's memory was evoked by his son Timothy, Bell wrote a new fairy tale | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ওয়েলসের বিরুদ্ধে টিমোথি উইয়ার (Timothy Weah) গোলের পর মনে হয়েছিল পিতা-পুত্রের রূপকথার ফুটবল কাহিনীর সাক্ষী হয়ে থাকবে কাতার। কে জানত, খেলার একেবারে শেষ দিকে মহানাটকীয় ভাবে নতুন রূপকথা লিখবেন ‘ওয়েলস উইজার্ড’ গ্যারেথ বেল (Gareth Bale)। যিনি না থাকলে ৬৪ বছর পর বিশ্বকাপ খেলাই হয়তো হত না ওয়েলসের।
বেল পেনাল্টি থেকে গোল শোধ করলেন। কিন্তু পেনাল্টিটা তাঁর নিজেরই আদায় করা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বক্সে তাঁকে ফাউল করা হয়। পরিষ্কার পেনাল্টি। যা থেকে অনায়াসে গোল করে যান বেল।

অথচ একটা সময় পর্যন্ত মনে হচ্ছিল, জর্জ উইয়ার (George Weah) ছেলেকে নিয়েই ম্যাচ রিপোর্ট লিখতে হবে। তিনি যে গোলটা করলেন, সেটাও তাঁর জীবনকাহিনীর মতোই চোখজুড়ানো। আর কী আশ্চর্য, টিমোথির গোল উৎসবটাও হুবহু পিতা জর্জের মতো, যিনিও গোল করে দু’হাত ছড়িয়ে কর্নার ফ্ল্যাগের দিকে ছুটে যেতেন। সেই জর্জ উইয়া, যিনি আফ্রিকাকে তুলে ধরেছিলেন ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের মঞ্চে। 

[আরও পড়ুন: ‘লিও, দিয়েগোর জন্য এবার বিশ্বকাপ জেতো’, মেসির কাছে অনুরোধ বুরুচাগার]

 

সেই জর্জ উইয়া, যিনি প্রথম নন-ইউরোপিয়ান হিসাবে ব্যালন ডি’অর জিতেছিলেন ১৯৯৫ সালে। সেই জর্জ উইয়া, যিনি বর্তমানে লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্ট। যদিও সোমবার রাতে তাঁর একমাত্র পরিচয় ছিল ইউএসএ-র ফুটবলার টিম উইয়ার বাবা। ছেলে গোল করতেই লাফিয়ে উঠলেন গ্যালারিতে বসা জর্জ। আসলে ক্লাব ফুটবলে দাপট দেখালেও দেশের জার্সিতে যে বিশ্বকাপটা খেলা হয়নি নিজের সময়ের অন্যতম সেরা এই স্ট্রাইকারের। আর সেখানে ছেলে টিম শুধু বিশ্বকাপ খেললেন না, বিশ্বকাপে গোলও করে ফেললেন এদিন।

মজার বিষয়, টিমের উত্থানের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে ভারতের নামও। পাঁচ বছর আগে ইউএসএ-র জার্সিতে অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ খেলে গিয়েছেন এদেশ থেকেই। আসলে জর্জ বুঝতে পেরেছিলেন, লাইবেরিয়ার হয়ে খেললে টিমের বিশ্বকাপ খেলার সম্ভবনা কম। তাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হয়েই খেলিয়েছেন ছেলেকে। কিশোর টিমের প্রতিভা দেখা গিয়েছিল ভারতে। গ্রুপ লিগে নিস্প্রভ থাকলেও দিল্লিতে নকআউটের প্রথম ম্যাচেই প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে দুরন্ত হ্যাটট্রিক।

আর স্টেডিয়ামজুড়ে ‘উইয়া, উইয়া’ চিৎকারে আপ্লুত টিম পরে বলেছিলেন, “মনেই হচ্ছিল না যে আমরা ভারতে খেলছি। এত সমর্থন!” এদিন তাঁর গোলের পর আট বছরের ব্যবধানে বিশ্বকাপে আসা ইউএসএ-র সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভেসে গেল গ্যালারি। শুধু সেটা চিরস্থায়ী হল না। কী করা যাবে, বিপক্ষে একটা গ‌্যারেথ বেল ছিলেন যে! 

[আরও পড়ুন: চোট নিয়ে গুজব ছড়াবেন না, অভিযান শুরুর আগে বললেন মেসি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে