২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‌ইস্টবেঙ্গলের নাম বদলের আবেদন এবার এএফসি’র কাছে পাঠাল ফেডারেশন

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 21, 2020 2:29 pm|    Updated: September 21, 2020 2:29 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: আগে IFA‌–কে দেওয়া হয়েছিল। এবার নাম বদলের জন্য ফেডারেশনকেও চিঠি দিল ইস্টবেঙ্গল। অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন সেই চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছে AFC‌–‌র কাছে। এখন অপেক্ষা এএফসির উত্তরের। তবে তার আগেও ইস্টবেঙ্গলের নাম আইএসএলের জন্য ঘোষণা করে দিতে পারে এফএসডিএল। সেক্ষেত্রে হয়তো বলা হবে, ইস্টবেঙ্গলকে আইএসএলে নেওয়া হল, তবে এএফসির লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া সম্পূর্ন করতে হবে।

কোচ থেকে ফুটবলার নির্বাচন, শ্রী সিমেন্ট কর্তৃপক্ষর যাবতীয় কাজকর্ম আটকে রয়েছে এফএসডিএলের ঘোষনার জন্য। বেশ কয়েকজন কোচের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। কিন্তু যতক্ষন না শ্রী সিমেন্ট ইস্টবেঙ্গল (East Bengal) ফাউন্ডেশনের নাম ISL-এ চূড়ান্ত ভাবে ঘোষণা হচ্ছে, ততক্ষন পর্যন্ত কোনও কোচকেই চূড়ান্ত করা যাচ্ছে না। আর আপাতত ঠিক হয়েছে, কোচের মতামত না নিয়ে কোনও বিদেশি ফুটবলারই চূড়ান্ত করা হবে না। শ্রী সিমেন্ট কর্তৃপক্ষ অবশ্য চূড়ান্ত ঘোষণার আগেই নিজেদের মতো করে তৈরি হচ্ছে. আইএসএলে ফুটবল দলের ম্যানেজার করা হচ্ছে সম্ভবত প্রথম বসুকে। যিনি আগে চেন্নাই এবং দিল্লি ডায়নামোসেও ছিলেন। তবে কোচ এবং ফুটবলারদের চুক্তিপত্রে কে সই করবেন, তা এখনও ঠিক না হওয়ায় কারও সঙ্গেই চূড়ান্ত হচ্ছে না।

[আরও পড়ুন:‌ ‌আরও একটি সাফল্য, চতুর্থবার এই অনন্য সম্মান পেলেন রোনাল্ডো]

এদিকে, ইস্টবেঙ্গলের নাম বদলের আবেদনপত্র ফেডারেশন যেহেতু এফসির কাছে পাঠিয়েছে, আশা করা হচ্ছে, শ্রী সিমেন্ট ইস্টবেঙ্গল ফাউন্ডেশনের নামে লাইসেন্স পেতে খুব একটা সমস্যা হবে না। ক্লাব এনটিটি নিয়ে আইএসএলের লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে গেলেও ফেডারেশন কর্তারা এএফসির সঙ্গে আলোচনা করে দেখেছেন, নিয়মের ফাঁক গলে এখনও ইস্টবেঙ্গল ক্লাব প্রাইভেট লিমিটেড থেকে শ্রী সিমেন্ট ইস্টবেঙ্গল ফাউন্ডেশনের নামে এএফসির লাইসেন্স হওয়ার সুযোগ রয়েছে। ফলে এই ব্যাপারটা নিয়ে কোনও পক্ষই আর বিশেষ চিন্তিত নয়। তবে ক্রীড়াসূচী তৈরি করা নিয়ে সত্যিই চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন FSDL-এর কর্তারা। এফসি গোয়া, এটিকে মোহনবাগান এবং বেঙ্গালুরু এফসির এএফসি কাপের ম্যাচের মধ্যে কী ভাবে আইএসএলের ক্রীড়াসূচী তৈরি করা হবে, তা নিয়েই চিন্তা।

[আরও পড়ুন:‌ ফুটবল ম্যাচে সামাজিক দূরত্ব রাখতে গিয়ে এ কী বিপত্তি! এক ম্যাচে ৩৭ গোল খেল জার্মান ক্লাব‌]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement