১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অদম্য লড়াই, দু’গোলে পিছিয়ে পড়েও কেরালার বিরুদ্ধে জিতেই মাঠ ছাড়ল এটিকে মোহনবাগান

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: January 31, 2021 9:32 pm|    Updated: January 31, 2021 9:40 pm

ISL 2020: ATK Mohun Bagan vs Kerala Blasters Match report | Sangbad Pratidin

এটিকে মোহনবাগান: ৩ (মার্সিলিনহো, রয় কৃষ্ণ-২)
কেরালা ব্লাস্টার্স: ২ (হুপার, কোস্তা)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নর্থইস্টের বিরুদ্ধে হারের পর ফের জয়ের সরণিতে ফিরল এটিকে মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan)। দু’গোলে পিছিয়ে থেকেও দুরন্ত লড়াই করে কিবু ভিকুনার কেরালা ব্লাস্টার্সকে (Kerala Blasters) ৩-২ গোলে হারাল সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। বাগানের হয়ে জোড়া গোল করলেন রয় কৃষ্ণ। এছাড়া অপর গোলটি এই ম্যাচেই এটিকে মোহনবাগানে অভিষেক হওয়া মার্সিলিনহোর। কেরালার হয়ে গোল দুটি করেন হুপার এবং কোস্তা।

নর্থইস্ট ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে হারের পর কেরালার বিরুদ্ধে ম্যাচ থেকে তিন পয়েন্ট পেতে মরিয়া ছিলেন এটিকে মোহনবাগান কোচ অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস। সেজন্য শুরু থেকেই মার্সিলিনহোকেও মাঠে নামিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ম্যাচের ১৪ মিনিটেই তাঁর পরিকল্পনা ধাক্কা খায়। সৌজন্য কেরালার হুপার। প্রায় ৩৫ গজ দূর থেকে দুরন্ত শটে দর্শনীয় একটি গোল করেন তিনি। গোল লাইনে ছিলেন না অরিন্দম। সেই কারণে বলের নাগাল পাননি তিনি। প্রথমার্ধে ব্যবধান বাড়ানোর আরও বেশ কয়েকটি সুযোগ পেয়েছিলেন কিবু ভিকুনার ছেলেরা। তবে তা থেকে গোল আসেনি। উলটোদিকে রয় কৃষ্ণা-মার্সিলিনহোরাও বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করেছিলেন। কিন্তু প্রথমার্ধে গোলটি শোধ করতে পারেনি এটিকে মোহনবাগান। ফলে প্রথমার্ধের শেষে খেলার ফল ছিল কেরালার পক্ষে ১-০।

[আরও পড়ুন: চলতি বছরের এই দিনটি থেকেই দেশের মাটিতে শুরু হতে পারে আইপিএল’১৪!]

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দু’টি গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন করেন হাবাস। শেখ সাহিলের পরিবর্তে নামান প্রণয় হালদারকে। অন্যদিকে, সুমিত রাঠির জায়গায় নামিয়ে দেন মনবীরকে। আর মনবীর মাঠে নামতেই আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। কিন্তু এর মধ্যেই আরও একটি গোল করে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় কেরালা। কর্নার থেকে ভেসে আসা বল জটলার মধ্যে থেকেই গোলে ঠেলে দেন কিবুর দলের ডিফেন্ডার কোস্তা। যদিও বাগান খেলোয়াড়রা দাবি করছিলেন, গোল করার আগে ফাউল করা হয়েছে অরিন্দমকে। তবে রেফারি অবশ্য গোলের বাঁশিই বাজান।

এই গোলের সাত মিনিট পরেই একটি গোল শোধ করে দেন মার্সিলিনহো। সদ্য মাঠে নামা মনবীরের দুরন্ত পাস থেকে একক দক্ষতায় গোলটি করেন। এরপর ৬৪ মিনিটে দ্বিতীয় গোলটিও শোধ করে দেয় এটিকে মোহনবাগান। বক্সের মধ্যে কেরালার এক ডিফেন্ডার হ্যান্ডবল করায় পেনাল্টি পায় হাবাসের দল। তা থেকে গোল করতে কোনও ভুল করেননি বাগান জনতার নয়নের মণি রয় কৃষ্ণ। ২-২ হওয়ার পর আক্রমণের ঝাঁঝ আরও বাড়ায় এটিকে মোহনবাগান। আর তার ফলও মেলে হাতেনাতে। ৮৬ মিনিটে বাগানের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন সেই কৃষ্ণই। ফিজির তারকার শট রুখতে ব্যর্থ হন কেরালার গোলরক্ষক আলবিনো। এরপর কেরালা গোলশোধের মরিয়া চেষ্টা করলেও তাতে সফল হয়নি। ফলে ISL-এর প্রথম লেগের পর দ্বিতীয় লেগেও এটিকে মোহনবাগানের কাছে হেরেই মাঠ ছাড়তে হল কিবুর কেরালাকে।

[আরও পড়ুন: হাসপাতাল থেকে ছুটি পেলেন সৌরভ, আপাতত বিশ্রামে থাকার পরামর্শ চিকিৎসকদের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে