ad
ad

‘আমার দেশাত্মবোধ নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে’, টুইটে তোপ দাগলেন মিতালি

জীবনের কালোতম দিন, লিখলেন মিতালি।

My patriotism doubted, tweets Mithali
Published by: Subhamay Mandal
  • Posted:November 29, 2018 12:59 pm
  • Updated:November 29, 2018 1:27 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বকাপ-বিতর্কে মিতালি রাজের বিরুদ্ধে ব্ল্যাকমেলিংয়ের অভিযোগ তুলেছেন কোচ রমেশ পওয়ার। এমন বিস্ফোরকের অভিযোগেরই পালটা জবাব দিলেন মিতালি। টুইট করে ক্ষোভপ্রকাশ করলেন ভারতের মহিলা ক্রিকেটার। লিখলেন, গোটা ব্যাপারটায় তাঁকে যেভাবে কলঙ্কিত করা হচ্ছে তাতে তিনি অত্যন্ত ব্যথিত। দেশের প্রতি তাঁর দায়বদ্ধতা, দেশাত্মবোধ নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। এই কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি একদম ভাল লাগছে না তাঁর। তাঁর জীবনের কালোতম দিন বলে উল্লেখ করে টুইট করেছেন মিতালি। তাঁর টুইটে বিতর্কে আরও ঘৃতাহুতি করেছে বলে ওয়াকিবহাল মহলের মত।

[‘বিশ্বকাপে কোচের হাতে হেনস্তার শিকার হয়েছি’, বিস্ফোরক মিতালি]

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপ-বিতর্কে মিতালির মন্তব্যে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছে। তিনি বোর্ডে যে ই-মেল পাঠিয়েছেন, তাতে নিশানা শুধু পওয়ার একা নন, সিওএ সদস্য প্রাক্তন নামী ক্রিকেটার ডায়ানা এডুলজিও। পওয়ার অবশ্য বুধবার মুম্বইয়ে বোর্ডের সদর দপ্তরে সিইও রাহুল জোহরি ও জিএম (ক্রিকেট অপারেশন) সাবা করিমের সামনে বসে মিতালির বিরুদ্ধে পালটা অভিযোগ এনেছেন। তিনি নাকি বলেছেন, মিতালি শুধু দলের ব্যাপারে উদাসীনই ছিলেন না, কোচ হিসাবে তাঁকে নিয়ন্ত্রণে রাখাও মুশকিল হয়ে যাচ্ছিল! পওয়ার বৈঠকে মিতালি সম্পর্কে ‘অ্যালুফ’ ও ’ডিফিকাল্ট টু হ্যান্ডল’ শব্দগুলি ব্যবহার করেছেন বলে খবর। এ ছাড়াও পওয়ারের অভিযোগ, মিতালি নাকি মাঝপথেই টুর্নামেন্ট ছেড়ে আসতে চেয়েছিলেন। কোচের স্ট্র্যাটেজি মানতেন না। পাকিস্তান ম্যাচে জোর করে ওপেন করেন। আর তার উপর মিতালি নাকি ব্ল্যাকমেলও করার চেষ্টা করেছেন পওয়ারকে।
মিতালি তাঁর বক্তব্যে কোচ সম্পর্কে বলেছেন, পওয়ার তাঁকে এড়িয়ে চলতেন। মিতালির তোলা যাবতীয় অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন পওয়ার।

[মিতালি ব্ল্যাকমেল করত, বিস্ফোরক অভিযোগ রমেশ পওয়ারের]

পওয়ারের বিস্ফোরক অভিযোগের পরই বৃহস্পতিবার সকালে টুইট করে ভেঙে পড়েন মিতালি। তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘যে সমস্ত অভিযোগ আমার বিরুদ্ধে আনা হয়েছে তাতে আমি অত্যন্ত ব্যথিত। ২০ বছর ধরে দেশের হয়ে খেলছি। খেলার প্রতি আমার দায়বদ্ধতা, কঠিন পরিশ্রম, ঘাম ঝরানো সব বৃথা গেল আজ। আমার দেশাত্মবোধ, খেলার প্রতি ভালবাসা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। এই কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি অসহ্য। এটা আমার জীবনের কালোতম দিন। ভগবান আমায় শক্তি দিক।’ মিতালির টুইট-বোমার পরই বিতর্কের পারদ চড়েছে। অনেকেই এই টুইটে কমেন্ট করে বিসিসিআই, সিওএ-র বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন। তুলোধোনা করা হচ্ছে বোর্ডের কর্তাব্যক্তিদেরও। বিতর্কের জল যেদিকে গড়াচ্ছে তাতে সিওএ-মিতালি সংঘাত কোন রূপ নেয় সেদিকেই তাকিয়ে গোটা ক্রিকেটমহল।

[বিশ্বকাপে বিতর্কের জের, মিতালি রাজের অবসর নিয়ে জল্পনা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ