BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টোকিওয় নেই কিংবদন্তি বোল্ট, ফেল্পসরা, নয়া চ্যাম্পিয়নের অপেক্ষায় Olympic

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: July 23, 2021 1:53 pm|    Updated: July 23, 2021 2:43 pm

New champions to be crowned at Tokyo 2020 as legends move on | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Covid-19) আতঙ্কে এক বছর স্থগিত থাকার পর জাপানের (Japan) রাজধানী টোকিওয় (Tokyo) অবশেষে বোধন হচ্ছে অলিম্পিকের। অলিম্পিক এমনই এক মঞ্চ, যেখানে খসে যায় তারা। আবার একই সঙ্গে জন্ম নেন নতুন কোনও চ্যাম্পিয়ন। এবারের মেগা ইভেন্টেই দেখা যাবে না এমন অনেক তারকাকে যাঁরা একসময়ে বিশ্ব কাঁপিয়েছেন। তাঁদের নিয়ে হতো বীরপুজো। তাঁদের পারফরম্যান্স দেখার জন্যই ভিড় জমাতেন দর্শকরা। কেবলমাত্র পারফরম্যান্স দিয়েই গোটা বিশ্বের মন জিতে নিয়েছিলেন। নিজেদের দেশের সীমা অতিক্রম করে তাঁরা হয়ে উঠেছিলেন গোটা বিশ্বের। কিন্তু এবার কেউ নিয়েছেন অবসর, কেউ আবার চোটের কবলে। আবার কেউ যোগ্যতাই অর্জন করতে পারেননি। একনজরে আলো ফেলি সেই সব কিংবদন্তির দিকে:

১. মাইকেল ফেল্পস: অলিম্পিকের ইতিহাসে অন্যতম সেরা অ্যাথলিট হিসেবে পরিচিত মার্কিন সাঁতারু মাইকেল ফেল্পস। কেরিয়ারে পাঁচ-পাঁচটি অলিম্পিকে অংশ নিয়েছেন। তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ২৮টি অলিম্পিক পদক। যা যে কোনও অ্যাথলিটের কাছেই ঈর্ষার। কোনও অ্যাথলিটের শো কেসেই নেই এত গুলো অলিম্পিক পদক। রিও-তেই নিজের উজ্জ্বল কেরিয়ারে ইতি টেন দেন ফেল্পস। অর্থাৎ টোকিওয় সাঁতারের পুলে আর ঝড় তুলবেন না তিনি। তাঁর অনুভব অনুভূুত হবে। তাঁকে দেখতে না পাওয়ায় হতাশ হবেন ক্রীড়াপ্রেমীরা। যে কোনও জায়গার শূন্যস্থানই পূরণ হয়ে যায়। একজনের অনুপস্থিতি আরেকজনের রাস্তা প্রশস্ত করে দেয়। ফেল্পস এবার না থাকায় সাঁতারের পুলে নজর কাড়তে পারেন হাঙ্গেরির ক্রিস্টোফ মিলাক। ফেল্পসের প্রিয় ২০০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে মিলাককেই সম্ভাব্য বিজয়ী হিসেবে ধরা হচ্ছে। ফেল্পসের ছেড়ে রাখা জুতোয় মিলাক পা গলাতে পারেন কি না, সেটাই দেখার।

[আরও পড়ুন: বিতর্ক-আতঙ্ক নিয়েই আয়োজিত Tokyo Olympics, তিরন্দাজির শুরুতে উধাও দীপিকার ম্যাজিক]

২. উসেইন বোল্ট: একটা সময়ে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড ইভেন্টে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘দাদাগিরি’ চলত। মার্কিনদের সেই আগ্রাসন একার হাতে ধ্বংস করেছিলেন বিশ্বের দ্রুততম মানব উসেইন বোল্ট। তাঁর দুরন্ত গতির জন্যই প্রচারের সার্চলাইটটা এসে পড়েছিল জামাইকার উপরে। ২০০৮ সালে বেজিং অলিম্পিক দিয়ে তাঁর স্বপ্নের দৌড় শুরু। একই সঙ্গে শুরু তাঁর পদকের দৌড়ও। মাঝে লন্ডন এবং সবশেষে রিওতেও জারি ছিল তাঁর সোনার দৌড়। দেখা গিয়েছিল বিদ্যুৎ গতি। তিনটি অলিম্পিকেই ১০০ মিটার এবং ২০০ মিটার দৌড়ে বাকিদের পিছনে ফেলে জিতে নিয়েছিলেন সোনার মেডেল। যা আর কোনও দৌড়বীরেরই নেই। তবে টোকিওয়  দেখা যাবে না বোল্ট ম্যাজিক। এবারে অবশ্য বোল্টের জায়গায় দেখা যাবে নতুন কোনও চ্যাম্পিয়নকে। সেক্ষেত্রে অনেকেই মার্কিন স্প্রিন্টার নোহা লায়েলসকে সেই জায়গায় দেখতে পাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ এগিয়ে রাখছেন সেদেশেরই ট্রায়ভন ব্রমেলকে। শেষমেশ সোনার পদক কার গলায় ওঠে, সেটাই দেখার। 

৩. ডেভিড রুদিশা: ২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিকে ডেভিড রুদিশার দৌড় চমকে দিয়েছিল সবাইকে। নিজেরই রেকর্ড ভেঙে পুরুষদের ৮০০ মিটারে তিনি সোনা জিতেছিলেন ওই অলিম্পিকে। এরপর রিও অলিম্পিকেও চ্যাম্পিয়নের খেতাব ধরে রেখেছিলেন। কিন্তু টোকিও অলিম্পিকে আর নামা হচ্ছে না কেনিয়ার এই দৌড়বিদের। চোট ছিটকে দেয় তাঁকে। রুদিশার জায়গায় এবার পুরুষদের ৮০০ মিটার জন্ম দেবে নতুন চ্যাম্পিয়ন। আর সেক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছেন বৎসোয়ানার নাইজেল আমোস।

৪. অ্যালেস্টার ব্রাউনলি: ২০০০ সালে অনুষ্ঠিত সিডনি অলিম্পিকে যুক্ত হয়েছিল ট্রায়াথলন। তারপর থেকে এই ইভেন্টের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল প্রতিযোগী ব্রিটেনের অ্যালেস্টার ব্রাউনলি। ২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিক এবং ২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে সোনাও জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু অবিশ্বাস্যভাবে এবার যোগ্যতাই অর্জন করতে পারেননি তিনি। তাই টোকিওয় নামা হবে না তাঁর। তবুও ব্রাউনলি পরিবার অলিম্পিকের এই ইভেন্ট থেকে পদক জিততেই পারে। কারণ অ্যালেস্টারের ভাই জনি ব্রাউনলি গ্রেট ব্রিটেনের হয়ে একই ইভেন্টে নামতে চলেছেন। গত দু’বার দাদা চ্যাম্পিয়ন হলেও এবার হয়তো ভাইয়ের কপালে শিঁকে ছিঁড়বে।

[আরও পড়ুন: ইংল্যান্ড সিরিজের আগেই বিপাকে Team India! গিল, আভেশ খানের পর ছিটকে গেলেন সুন্দর]

৫. ক্রিশ্চিয়ান টেলর: এবারের টোকিও অলিম্পিক মিস করবে মার্কিন ট্রিপল জাম্পার ক্রিশ্চিয়ান টেলরকেও। গত দুটি অলিম্পিকে চ্যাম্পিয়ন হলেও, চোটের কারণে এবার আর অলিম্পিকে নামতে পারছেন না ক্রিশ্চিয়ান। তবে তাঁরই দেশের উইল ক্লায়ে এবার এই ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দাবিদার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে