BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সৌম্যজিৎ বিয়েতে রাজি হলে মামলা তুলতে প্রস্তুত, দাবি তরুণীর বাবার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 23, 2018 9:23 am|    Updated: August 1, 2019 3:46 pm

Case registered in non bailable section against TT player soumyajit Ghosh

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাসত: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, জোর করে গর্ভপাত এবং শেষে বিয়েতে বেঁকে বসা। টেবিল টেনিসে জাতীয় চ্যাম্পিয়ন অলিম্পিয়ান সৌম্যজিৎ ঘোষের এমনই সব মারাত্মক অভিযোগ করেছেন এক তরুণী। বৃহস্পতিবার বারাসাত আদালতে গোপন জবানবন্দি দিলেন তিনি। অলিম্পিয়ান টিটি তারকার বিরুদ্ধে ধর্ষণ, ভ্রুণহত্যা-সহ একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। অভিযোগকারিনীর দাবি, যখন এই ঘটনাটি ঘটেছে, তখন তিনি প্রাপ্তবয়স্ক ছিলেন না। টিটি তারকা সৌম্যজিৎ ঘোষ অবশ্য সবই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি, কেরিয়ার নষ্ট করার জন্য চক্রান্ত করা হচ্ছে। এদিকে সৌম্যজিৎ যদি বিয়ের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেন, তাহলে তাঁরা মামলা তুলে দিতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ওই তরুণীর বাবা। তাঁর দাবি, মেয়ে প্রতারণার শিকার। তাই বাধ্য হয়েই আইনের দ্বারস্থ হয়েছেন।

[বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, অভিযুক্ত অলিম্পিয়ান সৌম্যজিৎ ঘোষ]

অভিযোগকারিনী ওই তরুণী নিজেও স্কুল পর্যায়ের টেবিল টেনিস খেলতেন। খেলার সূত্রেই তারকা টেবিল টেনিস খেলোয়াড় সৌম্যজি ঘোষের সঙ্গে আলাপ হয় তাঁর। সোশ্যাল মিডিয়ায়ও দু’জনের নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। ওই তরুণীর অভিযোগ, সৌম্যজিতের প্রশিক্ষণ চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, প্রশিক্ষণ দেওয়ার অছিলায় তাঁকে নানা জায়গায় ডেকে পাঠাতেন সৌম্যজিৎ। ওই তরুণীর দাবি, তারকা টেবিল টেনিস প্লেয়ারের বাঘাযতীনের ফ্ল্যাটে তাঁদের শারীরিক সম্পর্কও হয়েছিল। ২০১৬ সালে ওই তরুণী জানতে পারেন, তিনি অন্তঃসত্ত্বা। অভিযোগ, এরপরই ওই তরুণীর বাঘাযতীনে ফ্ল্যাটে হাজির হয় সৌম্যজিৎ ঘোষ। তাঁকে বাঘাযতীনের ফ্ল্যাটে নিয়ে যান তিনি। সেখানে জোর করে ওই তরুণীর গর্ভপাত করান তারকার টেবিল টেনিস প্লেয়ারের বাড়ির লোকেরা। বৃহস্পতিবার বারাসত আদালতে গোপন জবানবন্দি দেওয়ার পর ওই তরুণী বলেন, ‘টানা কয়েকদিন খাবারের সঙ্গে ওষুধ মিলিয়ে খাওয়ায়। আমার রক্তপাত হচ্ছে না দেখে সৌম্যজিতের পিসি আমার পেটের উপর দাঁড়িয়ে পা দিয়ে চাপ দেয়। তখন তাঁদের কথাবার্তায় জানতে পারি কী হচ্ছে।‘ তাঁর দাবি, গর্ভপাত করানোর পর তাকে এক মনস্তত্ত্ববিদের কাছে নিয়ে যায় সৌম্যজিৎ। তার কড়া ডোজের ঘুমের ওষুধ দিয়ে দীর্ঘদিন আছন্ন করে রাখা হয়। ওই তরুণীর বাবার অভিযোগ, ‘২০১৬ সালে মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক হয়। তখন আমরা বিয়ের পাকা কথা বলি। আশীর্বাদও হয়ে যায়। সৌম্যজিতের বাড়ির লোকজন বিয়ের জন্য একটি ইনোভা গাড়ি ও দশ লক্ষ টাকা যৌতুক হিসাবে চায়। এছাড়া আমার স্ত্রীর একটি পৈতৃক জমি সৌম্যজিতের নামে লিখে দেওয়া হয়। হঠাৎ এই বিয়ে ভেঙে দেয় তারা।‘

[কর্মসূত্রে মা বাইরে, ছাত্রীকে হাওড়া স্টেশনে ফেলে পালাল মামা-মামি]

তবে শুধু মৌখিকভাবে অভিযোগ তোলাই নয়, বুধবারই বারাসত মহিলা থানায় টেবিল টেনিস প্লেয়ার সৌম্যজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইআরও করেন বছর কুড়ির ওই তরুণী। বৃহস্পতিবার বারাসত আদালতে গোপন জবানবন্দি দিলেন তিনি। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে বাংলার এই নামী টেবিল টেনিস প্লেয়ারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, ভ্রুণহত্যা-সহ একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ওই তরুণীর বাবা বক্তব্য, তাঁর মেয়ে প্রতারণার শিকার। তাই আইনের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। তবে সৌম্যজিৎ যদি ওই তরুণীকে বিয়ে করে নেন, তাহলে মামলা প্রত্যাহার করে নেবেন তাঁরা।

[উচ্চ মাধ্যমিকের দায়িত্ব থেকে অপসারিত ময়নাগুড়ির প্রধান শিক্ষক]

সৌম্যজিৎ ঘোষ এখন দেশের বাইরে। টেবিল টেনিস টুর্নামেন্ট খেলতে জার্মানি গিয়েছেন তিনি। সব অভিযোগই ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন অলিম্পিয়ান এই টেনিস তারকা। তবে ওই তরুণীর সঙ্গে আলাপ বা সম্পর্কে কথা অস্বীকার করেননি। সৌম্যজিৎ বলেন,  ‘এক-দেড় বছর আমাদের কোনও যোগাযোগ নেই। এসব আমার কেরিয়ার নষ্ট করার ষড়যন্ত্র।‘  সৌম্যজিৎ ঘোষের আদিবাড়ি শিলিগুড়িতে। তাঁর বাবা শিলিগুড়ির পুরনিগমের কর্মী। শহরের ছেলের এহেন কীর্তিতে হতবাক শিলিগুড়ির ক্রীড়ামহলও।

[হাওড়া-খড়গপুর রুটে আধুনিক লোকাল ট্রেনের যাত্রা শুরু]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে